scorecardresearch

বড় খবর

অগ্নিগর্ভ অবস্থার মাঝেই অগ্নিপথে নিয়োগের বিজ্ঞপ্তি জারি ভারতীয় সেনার, জানুন খুঁটিনাটি

রবিবারই নয়া প্রকল্পে বাহিনী নিয়োগের জন্য বিজ্ঞপ্তি জারি করেছিল বায়ু সেনা।

অগ্নিগর্ভ অবস্থার মাঝেই অগ্নিপথে নিয়োগের বিজ্ঞপ্তি জারি ভারতীয় সেনার, জানুন খুঁটিনাটি
গুজরাত উপকূলে পাক অনুপ্রবেশের চেষ্টা, আটক ২ ট্রলার

অগ্নিপথ বিক্ষোভে উত্তাল দেশ। কিন্তু অনড় কেন্দ্র। রবিবারই নয়া প্রকল্পে বাহিনী নিয়োগের জন্য বিজ্ঞপ্তি জারি করেছিল বায়ু সেনা। আর সোমবার অগ্নিপথ সামরিক নিয়োগ প্রকল্পের আওতায় সৈন্যদের অন্তর্ভুক্তির জন্য বিজ্ঞপ্তি জারি করেছে ভারতীয় সেনা। সেনাবাহিনীর তরফে বলা হয়েছে যে, নতুন মডেলের অধীনে সমস্ত চাকরি প্রার্থীদের সেনার ওয়েবসাইটে (joinindianarmy.nic.in) অনলাইন নাম নথিভুক্তকরণ বাধ্যতামূলক। জুলাই থেকে অনলাইন রেজিস্ট্রেশন শুরু হবে।

এ দিন সেনার ঘোষণায় উল্লেখ, ‘অগ্নিবীর’ ভারতীয় সেনাবাহিনীতে একটি স্বতন্ত্র পদ। যা বাহিনীর অন্য যেকোনও বিদ্যমান পদ থেকে পৃথক।

সেনাবাহিনী জানিয়েছে অগ্নিবীরদের চার বছরের চাকরির সময়কালে অর্জিত প্রতিরক্ষা সংক্রান্ত গোপনীয় তথ্য, অফিসিয়াল সিক্রেটস অ্যাক্ট ১৯২৩-এর অধীনে কোনও অননুমোদিত ব্যক্তির কাছে বা অন্য কোথাউ প্রকাশ করতে নিষেধ করা হবে।

“এই স্কিমের প্রবর্তনের সাথে সাথে, ভারতীয় সেনাবাহিনীর নিয়মিত ক্যাডারে সৈনিকদের তালিকাভুক্তি, মেডিকেল শাখার প্রযুক্তিগত ক্যাডার ছাড়া, শুধুমাত্র সেই সমস্ত কর্মীদের জন্য উপলব্ধ হবে যারা অগ্নিবীর হিসাবে তাদের বাগদানের সময়কাল শেষ করেছে,” এটি বলে।

গত ১৪ জুন অগ্নিপথ প্রকল্প ঘোষণা করেছে কেন্দ্র। সাড়ে ১৭ থেকে ২১ বছর বয়সী যুবকদের মাত্র চার বছরের জন্য এই প্রকল্পে নিয়োগের ব্যবস্থা করা হয়েছে। যাঁদের অগ্নিবীর বলা হবে। এদের মধ্যে ২৫ শতাংশকে আরও ১৫ বছরের জন্য নিয়োগের কথা ঘোষণা করা হয়।

যাকে কেন্দ্র করে প্রবল হইচই হয়। এরপর সরকার ২০২২ সালে নিয়োগের জন্য বয়সের ঊর্ধ্বসীমা বাড়িয়ে ২৩ বছর করে। প্রতিরক্ষা মন্ত্রকের কাজেও অগ্নিবীরদের জন্য ১০ শতাংশ সংরক্ষের ঘোষণা করা হয়।

এরপরও কেন্দ্রের ঠিকা সেনা নিয়োগ প্রকল্পের বিরুদ্ধে বেশ কয়েকটি রাজ্যে বিক্ষোভ চলছেই। সেনাবাহিনী বলেছে যে নতুন নিয়োগপ্রাপ্তরা আর্মি অ্যাক্ট, ১৯৫০-র অধীন সমুদ্র বা আকাশপথে যেখানেই নির্দেশ দেওয়া হবে সেখানে যেতে বাধ্য হবে।

এটি বলেছে যে অগ্নিবীররা তাদের চাকরির সময়কালে তাদের ইউনিফর্মে একটি “স্বাতন্ত্র্যসূচক চিহ্ন” পরিধান করবে। পরে এ নিয়ে বিস্তারিত নির্দেশ জারি করা হবে। সেনাবাহিনী বলেছে যে ‘অগ্নিবীর’দের কাজের মেয়াদের সময়কাল শেষ হলে, নিয়মিত ক্যাডারে তালিকাভুক্তির জন্য আবেদন করার সুযোগ দেওয়া হবে।

“নিয়মিত ক্যাডার হিসাবে নথিভুক্ত অগ্নিবীরদের আরও ১৫ বছরের নিযুক্ত সময়ের জন্য কাজ করতে হবে এবং বর্তমানে প্রচলিত পরিষেবার শর্তাবলী (জুনিয়র কমিশনড অফিসার/অন্যান্য পদমর্যাদার) দ্বারা নিয়ন্ত্রিত হবে,” বলে জানিয়েছে সেনা৷

সেনাবাহিনী বলেছে যে অগ্নিবীরদের তাদের চার বছরের মেয়াদ শেষ হওয়ার পরে পুনরায় নিয়োগের কোনও অধিকার থাকবে না।

তালিকাভুক্তি প্রক্রিয়ার অংশ হিসাবে, প্রতিটি অগ্নিবীরকে অগ্নিপথ স্কিমের সমস্ত শর্তাবলী আনুষ্ঠানিকভাবে গ্রহণ করতে হবে। নথি অনুসারে, ১৮ বছরের কম বয়সী কর্মীদের জন্য, নথিভুক্তকরণ ফর্মটিতে পিতামাতা বা অভিভাবকদের স্বাক্ষর করতে হবে। অগ্নিবীররা নিয়মিত চাকরিরতদের জন্য ৯০ দিনের তুলনায় বছরে ৩০ দিনের ছুটি পাওয়ার যোগ্য হবে। চিকিৎসার পরামর্শের ভিত্তিতে চিকিৎসা ছুটি মঞ্জুর করা হবে।

সেনাবাহিনী বলেছে যে অগ্নিবীরদের মাসিক বেতনের ৩০ শতাংশ বাধ্যতামূলকভাবে একটি তহবিলে জমা করা হবে এবং সরকারের তরফে সম পরিমাণ অবদান রাখা হবে।

Stay updated with the latest news headlines and all the latest General news download Indian Express Bengali App.

Web Title: Indian army issues notification for recruitment under agnipath schem 459359e