বড় খবর

রবিবার মধ্যরাতে জামিয়ায় ফের গুলি

পুলিশের দাবি, ‘ঘটনাস্থলে দ্রুত পুলিশ গেলেও গুলির খোল মেলেনি। তবে প্রত্যক্ষদর্শীদের বয়ানের ভিত্তিতে অভিযোগ জমা ও তদন্ত শুরু হয়েছে।’

ফের দিল্লির জামিয়া মিলিয়া ইসলামিয়া বিশ্ববিদ্যালয়ে সিএএ প্রতিবাদীদের বিক্ষোভ অবস্থানের কাছে গুলি চলল।

ব্যবধান মাত্র তিন দিনের। ফের দিল্লির জামিয়া মিলিয়া ইসলামিয়া বিশ্ববিদ্যালয়ে সিএএ প্রতিবাদীদের বিক্ষোভ অবস্থানের কাছে গুলি চলল। এবার গুলি ছোড়ার অভিযোগ রাতের অন্ধকারে। প্রত্যক্ষদর্শীদের বয়ান অনুযায়ী, বিশ্ববিদ্যায়লের পাঁচ নম্বর গেটের বাইরে গুলি ছোড়া হয়। লাল রঙের স্কুটারে করে এসেছিল দুষ্কৃতীরা। এদের মধ্যে এক জন লাল জ্যাকেট পড়েছিল। তবে, রাতের অন্ধকারে দুই অজ্ঞাত পরিচয় দুষ্কৃতী গুলি চালিয়ে পালিয়ে যায় বলে জামিয়া কোঅর্ডিনেশন কমিটির তরফে দাবি করা হয়েছে।

রবিবার রাত ১২.২০ নাগাদ এই ঘটনা ঘটে। স্বাভাবিকভাবেই আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়ে আন্দোলনকারীদের মধ্যে। খবর পেয়ে স্থানীয় জামিয়া নগর থানার বিশাল পুলিশবাহিনী ঘটনাস্থলে যায়। হামলার প্রতিবাদে বিশ্ববিদ্যালয়ের বাইরে বিক্ষোভ দেখাতে থাকেন জামিয়ার প্রক্তনী ও সিএএ বিরোধী আন্দোলনকারীরা। এই ঘটনায় হতাহতের কোনও খবর মেলেনি। দিল্লি পুলিশের অতিরিক্ত ডিসিপি কুমার গণেশ জানিয়েছেন, ‘জামিয়া কোঅর্ডিনেশন কমিটির অভিযোগের ভিত্তিতে মামলা রুজু হয়েছে। অজ্ঞাত পরিচয় ব্যক্তিদের বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে। কে বা কারা এর পিছনে রয়েছে তা দ্রুত জানা যাবে।’

জামিয়া নগর স্টেশন হেডকোয়াটার পড়ুয়াদের আশ্বস্ত করে জানান, ‘ভয়ের কোনও কারণ নেই। পুলিশ পিকেট রয়েছে। সবাইকে তল্লাশি করেই বিশ্ববিদ্যালয়ের মধ্যে ছুকতে দেওয়া হচ্ছে। গাড়ির নম্বর দিলেই তদন্তে আরও গতি আসবে।’

গত বৃহস্পতিবারই বন্দুকবাজের তাণ্ডব চলেছিল দিল্লির জামিয়া মিলিয়া বিশ্ববিদ্যালয়ে। ভরদুপুরে এক যুবক পড়ুয়াদের বন্দুক তাক করে এগিয়ে আসে। পরে সে গুলিও ছোড়ে। এই সময় সে মুখে বলতে থাকে “এই নে আজাদি”। গুলিতে আহত হয় জামিয়ার এক পড়ুয়া। বন্দুকবাজকে নাবালক বলে জানায় পুলিশ। আপাতত প্রতিষেধমূলক হেফাজতে রয়েছে অভিযুক্ত।

রবিবার রাতের ঘটনার প্রত্যক্ষদর্শী ও জামিয়ার টিভি সাংবাদিকতার ছাত্র মোহদ প্রফুল্ল বলেন, ‘গুলি চালালেও দুষ্কৃতীদের মুখে কোনও স্লোগান ছিল না।’ সিএএ বিরোধী আন্দোলনে শামিল ইগনুর স্নাতক পর্যায়ের পড়ুয়া ফাইজানের কথায়, ‘দু’জন দুষ্কৃতী এসে গুলি চালিয়েছে। আমি মাত্র ২০ মিটার দূরেই ছিলাম।’ জামিয়ার আরেক ছাত্রী আয়েষা জানিয়েছেন, ‘আমরা ৮ ন্বর গেটের কাছেঅবস্থান করছি। হঠাৎই গুলির শব্দ পাই। ভয়ে সবাই ছোটাছুটি শুরু করে দেয়। কয়েকজন দুষ্কৃতীদের ধরতে গেলেও ওরা পালিয়ে যায়। এর কিছুক্ষণ পরেই পুলিশ আসে।’

আরও পড়ুন: জামিয়া গুলিকাণ্ডে ‘সরাসরি যুক্ত’ মন্ত্রী অনুরাগ, থানায় অভিযোগ দায়ের

জামিয়া থানার বাইরে রাতেই জড়ো হন বিক্ষোভকারীরা। এক সিনিয়র পুলিশ অফিসার বলেন, ‘ঘটনাস্থলে দ্রুত পুলিশ গেলেও কিছু মেলেনি। তবে, প্রত্যক্ষদর্শীদের বয়ানের ভিত্তিতে অভিযোগ জমা ও তদন্ত শুরু হয়েছে।’

সিএএ বিক্ষোভে উতাতল দেশ। নয়া আইনের প্রতিবাদে বিক্ষোভ চলছে দিল্লির শাহিনবাগ ও জামিয়া মিলিয়া ইসলামিয়ায়। এই দুই বিক্ষোভস্থ লক্ষ্য করেই গত সপ্তাহে গুলি চলেছে। ফলে পুলিশের ভূমিকা নিয়ে প্রশ্ন উঠতে শুরু করে। আগামী শনিবারই দিল্লি বিধানসভা নির্বাচন। তার আগেই কমিশনেরর নির্দেশে দক্ষিণ পূর্ব দিল্লির ডিসিপি পদ থেকে সরিয়ে দেওয়া হল চিন্ময় বিশওয়ালকে। পরিস্থিতি সামলাতে ব্যর্থতার কারণেই তাকে সরানো হল বলে জানা গিয়েছে। অতিরিক্ত ডিসিপি পদে কর্মরত কুমার গণেশ কমিশনের নির্দেশে দক্ষিণ পূর্ব দিল্লির ডিসিপি পদের দায়িত্বে নেবেন।

Read the full story in English

Get the latest Bengali news and General news here. You can also read all the General news by following us on Twitter, Facebook and Telegram.

Web Title: Jamia another firing sunday night delhi caa protest police probe

Next Story
অসুস্থ সোনিয়া গান্ধী, ভর্তি দিল্লির হাসপাতালেsonia gandhi, সোনিয়া গান্ধী
The moderation of comments is automated and not cleared manually by bengali.indianexpress.com