বড় খবর

বয়কটের জের! হোয়াটসঅ্যাপেই নেওয়া হবে পরীক্ষা, সিদ্ধান্ত নিল জেএনইউ

স্কুল অফ ইন্টারন্যাশনাল স্টাডিজের ডিন অশ্বিনী কে মহাপাত্র জানান যে এই সিদ্ধান্তটি সব আধিকারিক, ডিনদের সঙ্গে কথা বলে এবং ‘বিশেষ পরিস্থিতি’র কারণেই নেওয়া হয়েছে।

অভিনব পদ্ধতিতে পরিক্ষার সিদ্ধান্ত নিল জেএনইউ

দিল্লির জওহরলাল নেহরু বিশ্ববিদ্যালয়ে ফি বৃদ্ধি ইস্যুকে ঘিরে বিক্ষোভের সমর্থনে বন্ধ হয়েছে দিল্লির জওহরলাল বিশ্ববিদ্যালয়ের শেষ সেমিস্টারের পরীক্ষা। অগত্যা এবার হোয়াটসঅ্যাপ এবং ইমেলের মাধ্যমে ‘অভিনব পদ্ধতিতে’ পরীক্ষা নেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন জেএনইউ কর্তৃপক্ষ। প্রসঙ্গত, কয়েকদিন ধরেই হস্টেলে ফি বৃদ্ধি ইস্যুতে উত্তাল হয়েছে জেএনইউ ক্যাম্পাস। পড়ুয়াদের দাবি মতো বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ ফি কিছুটা কমালেও, পুরোপুরি ফি কমানোর দাবিতে অনড় ছিলেন পড়ুয়ারা।

আরও পড়ুন: জামিয়া বিক্ষোভে গ্রেফতার ১০, ধৃতরা ‘পড়ুয়া নয়’ দাবি পুলিশের

ইতিমধ্যেই দিল্লি বিশ্ববিদ্যালয়ের সব সেন্টারে পাঠিয়ে দেওয়া হয়েছে বিশ্ববিদ্যালয়ের নয়া সিদ্ধান্তের এই বিজ্ঞপ্তিটি। স্কুল অফ ইন্টারন্যাশনাল স্টাডিজের ডিন অশ্বিনী কে মহাপাত্র জানান যে এই সিদ্ধান্তটি সব আধিকারিক, ডিনদের সঙ্গে কথা বলে এবং ‘বিশেষ পরিস্থিতি’র কারণেই নেওয়া হয়েছে। তবে সব কলেজেই এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হচ্ছে কি না সে বিষয়ে কিছু নিশ্চিতভাবে জানা যায়নি। অশ্বিনী কে মহাপাত্র লেখেন, “জেএনইউ বিশ্ববিদ্যালয়ের পড়ুয়াদের স্বার্থে ১৬ ডিসেম্বরে ডাকা বৈঠকে সকলেই একমত হন। এরপরই এমফিল, পিএইচডি এবং এমএ পরীক্ষার শেষ সেমিস্টার এই বিকল্প পদ্ধতির মাধ্যমে নেওয়ার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।”

কীভাবে নেওয়া হবে এই পরীক্ষা?

অশ্বিনী মহাপাত্র বলেন, “এমফিল এবং এমএ পরীক্ষার জন্য রেজিস্টার পড়ুয়াদের কাছে প্রশ্ন পাঠিয়ে দেওয়া হবে। পরীক্ষার সময়সূচী নির্ধারণ করবেন সেন্টারের চেয়ারপার্সনরা। শিক্ষার্থীরা তাঁদের উত্তরপত্রগুলি মূল্যায়নের জন্য সংশ্লিষ্ট কোর্সের শিক্ষকদের কাছে জমা দেবেন। উত্তরপত্র জমা দেওয়ার শেষ দিন ২১ ডিসেম্বর। শিক্ষার্থীরা উত্তরপত্রগুলি ইমেল বা হাতে লিখে সে উত্তরপত্রের ছবি তুলে তা হোয়াটসঅ্যাপের মাধ্যমে বা ইমেলে ব্যক্তিগতভাবে শিক্ষকদের কাছে জমা দিতে পারবেন।”

আরও পড়ুন: নেহেরু পরিবার নিয়ে বিতর্কিত মন্তব্য, আটদিনের জেল হেফাজতে অভিনেত্রী পায়েল রোহতগি

তবে কতটা স্বচ্ছতা অবলম্বন করা সম্ভব এই বিকল্প মাধ্যমে?

শিক্ষার্থীরা অসদুপায় অবলম্বন করবেন না এমন নিশ্চিতসুরেই অশ্বিনী মহাপাত্র বলেন, “এই মুহুর্তে এই পদ্ধতি অবলম্বন করা ছাড়া উপায় নেই। আমি শিক্ষার্থীদের ভবিষ্যৎ নিয়েই বেশি চিন্তিত।”

যদিও জেএনইউয়ের টিচার্স অ্যাসোসিয়েশন এবং জেএনইউয়ের স্টুডেন্টস ইউনিয়ন এভাবে পরীক্ষা নেওয়ার এমন সিদ্ধান্তকে ‘অযৌক্তিক’ এবং ‘হাস্যকর’ বলেছেন।

Read the full story in English

Get the latest Bengali news and General news here. You can also read all the General news by following us on Twitter, Facebook and Telegram.

Web Title: Jnu set to hold exams via whatsapp jnuta jnusu termed the move absurd and ludicrous

Next Story
জামিয়া বিক্ষোভে গ্রেফতার ১০, ধৃতরা ‘পড়ুয়া নয়’ দাবি পুলিশের
The moderation of comments is automated and not cleared manually by bengali.indianexpress.com