বড় খবর

ঐশীই অভিযুক্ত জেএনইউ হামলায়, বিস্ফোরক দাবি দিল্লি পুলিশের

জেএনইউতে হামলার ঘটনায় ৯ জন সন্দেহভাজনের নাম প্রকাশ করল দিল্লি পুলশ। এই ৯ জনের মধ্যে রয়েছে জেএনইউ ছাত্র সংসদের সভানেত্রী ঐশীর নাম।

aishe ghosh, ঐশী ঘোষ
ঐশী ঘোষ। ছবি: ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস।

জেএনইউকাণ্ডে চাঞ্চল্যকর মোড়। ঐশী ঘোষের নেতৃত্বেই হামলা হয়েছে জওহরলাল নেহরু বিশ্ববিদ্যালয়ে, এমনই বিস্ফোরক দাবি করল দিল্লি পুলিশ। গত সপ্তাহে জেএনইউতে হামলার ঘটনায় ৯ জন সন্দেহভাজনের নাম প্রকাশ করল দিল্লি পুলশ। এই ৯ জনের মধ্যে রয়েছে জেএনইউ ছাত্র সংসদের সভানেত্রী ঐশীর নাম। যদিও গত রবিবার মুখোশ পরে যারা হামলা চালিয়েছিল, সে ব্যাপারে কার্যত মুখে কুলুপ এঁটেছে দিল্লি পুলিশ।

এদিন সাংবাদিক বৈঠকে ডিসিপি ক্রাইম ব্রাঞ্চ জয় তিরকে বলেন, গত ৫ জানুয়ারি ক্যাম্পাসে ঐশী-সহ কয়েকজন হামলা চালিয়েছিলেন। ঐশী ছাড়াও চুনচুন কুমার, পঙ্কজ মিশ্র, ওয়াসকর বিজয়, সুচেতা তালুকরাজ, প্রিয়া রঞ্জন, দোলন সাওয়ান্ত, যোগেন্দ্র ভরদ্বাজ ও বিকাশ পটেলের নাম প্রকাশ করেছে দিল্লি পুলিশ।

আরও পড়ুন: প্রত্যয়ী ঐশী: ভয় পাইনি, আক্রান্ত হওয়ার প্রমাণ রয়েছে

এ প্রসঙ্গে জেএনইউ ছাত্র সংসদের সভানেত্রী ঐশী ঘোষ বলেন, ‘‘আমি কোনও হামলা চালাইনি। জানি না কী ভিত্তিতে একথা বলছে দিল্লি পুলিশ। আমি কোনও অন্যায় করিনি। দেশের আইনের প্রতি বিশ্বাস রয়েছে’’।

আরও পড়ুন: মোদী সরকারকে বছরের প্রথম সুপ্রিম ধাক্কা, কটাক্ষ কংগ্রেসের

উল্লেখ্য, গত রবিবার সন্ধ্যায় জওহরলাল নেহরু বিশ্ববিদ্যালয়ে মুখে কাপড় বেঁধে কয়েকজন হামলা চালায় বলে অভিযোগ ওঠে। এই হামলায় জখম হন ছাত্র সংসদের সভানেত্রী ঐশী ঘোষ-সহ ৩৬ জন। হামলার অভিযোগ ওঠে এবিভিপি-র বিরুদ্ধে।  জেএনইউ-তে ছাত্র ও শিক্ষকদের উপর হামলার ঘটনায় ফুঁসছে গোটা দেশ। কেন কোনও অভিযুক্তকে গ্রেফতার করা হচ্ছে না, এ নিয়ে প্রশ্ন ওঠে বিভিন্ন মহলে। এদিকে, মঙ্গলবার সার্ভার রুম ভাঙচুরের অভিযোগে আক্রান্ত ঐশী ঘোষ-সহ ১৯ জনের বিরুদ্ধে এফআইআর দায়ের করে দিল্লি পুলিশ। যার জেরে পড়ুয়াদের বিক্ষোভের সুর আরও তীব্র হয়।

এদিকে, বৃহস্পতিবার জেএনইউকাণ্ডে নতুন করে ধুন্ধুমার বাধে রাজধানীতে। আবারও পড়ুয়াদের উপর লাঠি চালানোর অভিযোগ ওঠে দিল্লি পুলিশের বিরুদ্ধে। মানবসম্পদ উন্নয়ন মন্ত্রকের সঙ্গে বৈঠক ‘সন্তোষজনক না হওয়ায়’ রাষ্ট্রপতি ভবন অভিযানের সিদ্ধান্ত নেন পড়ুয়ারা। এরপরই পড়ুয়াদের মিছিল আটকায় পুলিশ। এ সময়ই পুলিশের সঙ্গে পড়ুয়াদের গোলমাল বাধে। পরিস্থিতি সামলাতে পড়ুয়াদের উপর ‘লাঠি চালায়’ পুলিশ। কয়েকজন পড়ুয়াকে আটক করা হয় বলে খবর। জওহরলাল নেহরু বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্যের পদত্যাগের দাবিতে সোচ্চার ঐশী ঘোষরা। কিন্তু উপাচার্যের পদত্যাগ কোনও সমাধান নয় বলে জানিয়ে দেয় মানবসম্পদ উন্নয়ন মন্ত্রক। এরপরই রাষ্ট্রপতি ভবনের দিকে মিছিল এগোনোর সিদ্ধান্ত নেন পড়ুয়ারা।

Read the full story in English

Get the latest Bengali news and General news here. You can also read all the General news by following us on Twitter, Facebook and Telegram.

Web Title: Jnu violence live updates aishe ghosh delhi police

Next Story
পেশোয়ারে শিখ যুব হত্যায় গ্রেফতার বাগদত্তা
The moderation of comments is automated and not cleared manually by bengali.indianexpress.com