scorecardresearch

কর্ণাটকে ‘৪৫ বছরের সবচেয়ে বড়ো বন্যা’য় ২৪ জনের মৃত্যু

কর্ণাটকের ৮৭৪ টি গ্রাম ইতিমধ্যে বন্যা কবলিত। অধিকাংশ নদীর জল বিপদসীমার ওপর দিয়ে বইছে। রাজ্যের ২ লক্ষের ওপর মানুষকে শুক্রবার বিকেলেই অন্যত্র সরানো হয়েছে।

বৃষ্টি কমার নাম নেই কেরালা-কর্ণাটকে। ইতিমধ্যে বন্যা কবলিত কর্ণাটকে মৃতের সংখ্যা ২৪ ছুঁয়েছে। জনজীবন রীতিমতো ব্যহত। উপকূলবর্তী অঞ্চল মালনাদে বাস পরিবহণ সম্পূর্ণ ব্যহত। ইতিমধ্যে ২ লক্ষ মানুষকে প্রশাসনের তরফে অন্যত্র নিয়ে যাওয়া হয়েছে। রাজ্য সরকার জানিয়েছে বন্যায় এখনও পর্যন্ত ৬ হাজার কোটি টাকার ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে।

কর্ণাটকের মুখ্যমন্ত্রী বিএস ইয়েদুরাপ্পা রাজ্যের বন্যাকে ‘৪৫ বছরের মধ্যে এটিই সবচেয়ে বড়ো প্রাকৃতিক দুর্যোগ’ বলে বর্ণনা করেছেন। কেন্দ্রের কাছে ৩ হাজার কোটির অনুদান চেয়েছে কর্ণাটক সরকার।

আরও পড়ুন, বৃষ্টিতে বিপর্যস্ত কেরালা, মৃত ১২

কর্ণাটকের ৮৭৪ টি গ্রাম ইতিমধ্যে বন্যা কবলিত। অধিকাংশ নদীর জল বিপদসীমার ওপর দিয়ে বইছে। রাজ্যের ২ লক্ষের ওপর মানুষকে শুক্রবার বিকেলেই অন্যত্র সরানো হয়েছে।

মালনাদ সহ উপকূলবর্তী অঞ্চলে ধ্বস নামার খবরও এসেছে। দক্ষিণ কন্নড় জেলার সঙ্গে সড়ক পথে যোগাযোগ পুরোপুরি বিচ্ছিন্ন। চারমাড়ি ঘাট রোড এবং শিরাডি ঘাট রোড আংশিক ভাবে বন্ধ। কাবেরি নদীর জল কুশলনগর-মাইসোর রোডের ওপর দিয়ে বওয়ার ফলে রাস্তায় যান পরিবহন বন্ধ হবার উপক্রম হয়েছে।

অন্যদিকে গত ২ দিন ধরে টানা বৃষ্টির জেরে কার্যত ভাসছে কেরালা। তার মধ্যেই দক্ষিণের এই রাজ্যে আরও বৃষ্টির পূর্বাভাস জারি করেছে আবহাওয়া দফতর। বৃষ্টির জেরে এখনও পর্যন্ত কেরালায় মৃত্যু হয়েছে ১২ জনের। এমতাবস্থায় কেরালার ৪ রাজ্যে রেড অ্যালার্ট জারি করা হয়েছে। কোঝিকোড়, ওয়েনাড়, ইড়ুক্কি, মালাপ্পুরম জেলায় চরম সতর্কতা জারি করা হয়েছে। বাকি জেলাগুলিতে অরেঞ্জ অ্যালার্ট জারি করা হয়েছে। তবে রাজধানী তিরুঅনন্তপুরমে সেই অর্থে এখনও পর্যন্ত কোনও সতর্কতা জারি করা হয়নি।

Read the full story in English

Stay updated with the latest news headlines and all the latest General news download Indian Express Bengali App.

Web Title: Karnataka floods 24 killed 200000 evacuated