scorecardresearch

৮৪ দিনের আগেই মিলবে কোভিশিল্ডের দ্বিতীয় ডোজ? নয়া কী নির্দেশ হাইকোর্টের?

কোভিশিল্ডের প্রথম ডোজের চার সপ্তাহ পরেই দ্বিতীয় ডোজ দেওয়ার অনুমতি চায় একটি সংস্থা। হাইকোর্টের সিঙ্গল বেঞ্চ সেই আবেদনে সাড়া দিয়েছিল।

Kerala HighCourt nullifies order permitting second vaccine to be administered before 84-day gap
কোভিশিল্ডের প্রথম ডোজের চার সপ্তাহ পরেই দ্বিতীয় ডোজ দেওয়ার অনুমতি চায় একটি সংস্থা।

৮৪ দিনের আগেই যাতে কর্মীদের কোভিশিল্ডের দ্বিতীয় ডোজ দেওয়া যায়, সেই আবেদন জানিয়েছিল কোচির একটি সংস্থা। কেরল হাইকোর্টের সিঙ্গল বেঞ্চ সেই আবেদনে সাড়া দিয়েছিল। তবে এবার সিঙ্গল বেঞ্চের সেই নির্দেশ বাতিল ডিভিশন বেঞ্চ। এব্যাপারে কেন্দ্রীয় সরকারের অবস্থানেই আস্থা রাখলেন কেরল হাইকোর্টের প্রধান বিচারপতি এস মণিকুমারের ডিভিশন বেঞ্চ। ৮৪ দিনের আগে কোভিশিল্ড টিকার দ্বিতীয় ডোজ নেওয়ার নির্দেশ বাতিল ডিভিশন বেঞ্চে। গ্লোবাল অ্যাডভাইসরি কমিটির সুপারিশ অনুযায়ী করোনা টিকা কোভিশিল্ডের প্রথম ডোজের ৮৪ দিন পরেই দ্বিতীয় ডোজ নেওয়ার নিয়ম রয়েছে দেশে।

শুক্রবার কেরল হাইকোর্টের ডিভিশন বেঞ্চ সিঙ্গল বেঞ্চের নির্দেশ বাতিল করে দিয়েছে। এর আগে সিঙ্গল বেঞ্চ কোভিশিল্ড নেওয়ার ক্ষেত্রে নিয়মের বদলের নির্দেশ দিয়েছিল। কোভিশিল্ডের প্রথম ডোজ নেওয়ার চার সপ্তাহ পরেই যাতে দ্বিতীয় ডোজ নেওয়া যেতে পারে সেব্যাপারে কো-উইন পোর্টালে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা রাখারও নির্দেশ দেওয়া হয়েছিল।

এদিন সিঙ্গল বেঞ্চের সেই নির্দেশই বাতিল করেছে কেরল হাইকোর্টের ডিভিশন বেঞ্চ। টিকাপ্রাপকদের সুরক্ষার স্বার্থেই প্রথম ডোজের ৮৪ দিন পর দ্বিতীয় ডোজ নেওয়া উচিত বলে সওয়াল করেছিল কেন্দ্র। এব্যাপারে গ্লোবাল অ্যাডভাইসরি কমিটির ভ্যাকসিন সুরক্ষা সংক্রান্ত একটি তথ্যও আদালতে পেশ করেছিল কেন্দ্রীয় সরকার। শেষমেশ কেন্দ্রের অবস্থানকেই স্বীকৃতি কেরল হাইকোর্টের ডিভিশন বেঞ্চের।

আরও পড়ুন- ওমিক্রন আতঙ্কের মাঝেও স্বস্তি, দেশের কোভিড-গ্রাফ নিম্নমুখী

করোনা টিকা কোভিশিল্ডের প্রথম ও দ্বিতীয় ডোজের মধ্যে ব্যবধান কমানোর আবেদন জানিয়েছিল কোচির একটি সংস্থা। ওই সংস্থাই কেরল হাইকোর্টের দ্বারস্থ হয়েছিল। কোভিশিল্ড দেওয়ার ক্ষেত্রে ৮৪ দিনের ব্যবধান কমানোর আবেদন জানিয়েছিল সংস্থাটি। চলতি বছরের অগস্ট মাসে কেরল হাইকোর্টে এব্যাপারে আবেদন করে সংস্থাটি। সংস্থাটি তাঁর কর্মীদের জন্য প্রয়োজনীয় সংখ্যক কোভিশ্লিড টিকার ডোজ কিনেছিল। কিন্তু দ্বিতীয় ডোজ নিতে পারেনি। কারণ, রাজ্য সরকার নির্ধারিত ব্যবধানের মেয়াদ শেষ হওয়ার আগে দ্বিতীয় ডোজ নেওয়ার অনুমতি দেওয়া হয়নি।

তবে কোচির KITEX নামে ওই সংস্থার আবেদন মঞ্জুর করেন কেরল হাইকোর্টের বিচারপতি পিবি সুরেশ কুমার। সেই সময় বিচারপতি জানিয়েছিলেন, কেন্দ্রীয় সরকার শিক্ষার্থীদের বিদেশ ভ্রমণ, যাঁরা বিদেশে চাকরি করেত যান, ক্রীড়াবিদদের জন্যও টিকার দুটি ডোজের মধ্যে সময়ের ব্যবধান শিথিল করেছে। সেই তথ্য তুলে ধরেই কোভিশিল্ড টিকার দুটি ডোজের মধ্যে ব্যবধান কমানোর ব্যাপারে সম্মতি জানিয়েছিল কেরল হাইকোর্টের সিঙ্গল বেঞ্চ। তবে শেষমেশ সিঙ্গল বেঞ্চের সেই নির্দেশ বাতিল করেছে ডিভিশন বেঞ্চ।

Read full story in English

ইন্ডিয়ানএক্সপ্রেসবাংলাএখনটেলিগ্রামে, পড়তেথাকুন

Stay updated with the latest news headlines and all the latest General news download Indian Express Bengali App.

Web Title: Kerala highcourt nullifies order permitting second vaccine to be administered before 84 day gap