কেরালার সন্ন্যাসিনী ধর্ষণকাণ্ডের অন্যতম সাক্ষীর রহস্যমৃত্যু

৬১ বছর বয়সী ফাদার কুরিয়াকোজ কাট্টুথারা নামের ওই ধর্মযাজককে খুন করা হয়েছে বলে অভিযোগ তুলেছেন তাঁর পরিজনরা। ধর্ষণে অভিযুক্ত বিশপ ফ্রাঙ্কো মুলাক্কালের বিরুদ্ধে সরব হয়েছিলেন ওই ধর্মযাজক।

By: New Delhi  October 22, 2018, 1:44:59 PM

কেরালার সন্ন্যাসিনীকে ধর্ষণের ঘটনা চাঞ্চল্যকর মোড় নিল। ধর্ষণের ঘটনার অন্যতম সাক্ষী এক ক্যাথলিক ধর্মযাজককে খুনের অভিযোগ উঠল। ৬১ বছর বয়সী ফাদার কুরিয়াকোজ কাট্টুথারা নামের ওই ধর্মযাজককে খুন করা হয়েছে বলে অভিযোগ তুলেছেন তাঁর পরিজনরা। ধর্ষণে অভিযুক্ত বিশপ ফ্রাঙ্কো মুলাক্কালের বিরুদ্ধেই সরব হয়েছিলেন ওই ধর্মযাজক। সেজন্যই তাঁকে খুন করা হয়েছে বলে অভিযোগ উঠেছে। সোমবার জলন্ধরের দাসুয়ায় ওই ধর্মযাজকের দেহ উদ্ধার করা হয়েছে বলে জানা গিয়েছে। যে মৃত্যু ঘিরে রহস্য তৈরি হয়েছে।

এ ঘটনা প্রসঙ্গে একটি মালয়ালাম টিভি চ্যানেলে মৃত ফাদার কাট্টুথারার পরিজনরা অভিযোগ করেন যে, বিশপের বিরুদ্ধে কথা বলায় তাঁকে লাগাতার খুনের হুমকি দেওয়া হচ্ছিল। মৃতের ভাই জোস কাট্টুথারা মাতৃভূমি টিভি চ্যানেলে বলেন, “আমরা একশো শতাংশ নিশ্চিত যে ওঁরাই খুন করেছেন তাঁকে। ওঁর মৃত্যুতে পুলিশি তদন্ত করা হোক।”

আরও পড়ুন: সন্ন্যাসিনী ধর্ষণে অভিযুক্ত বিশপ ফ্রাঙ্কো মুলাক্কালকে শর্ত সাপেক্ষ জামিন কেরালা হাইকোর্টের

জলন্ধর এলাকায় ধর্মযাজক হিসেবে নিয়োজিত ছিলেন ফাদার কুরিয়াকোজ কাট্টুথারা। কেরালার সন্ন্যাসিনীকে ১৩ বার ধর্ষণের অভিযুক্ত বিশপের বিরুদ্ধে পুলিশের কাছে বয়ান দিয়েছিলেন তিনি। মিশনারিজ অফ জেসাসের অন্তর্গত একটি মঠে ভোকেশনাল ট্রেনার হিসেবেও কাজ করতেন ওই ধর্মযাজক। তাছাড়া বিশপের বিরুদ্ধে সন্ন্যাসিনীদের ক্ষোভের বিষয়টিও তিনি দেখাশোনা করছিলেন।

উল্লেখ্য, কেরালার সন্ন্যাসিনীকে ধর্ষণে অভিযুক্ত বিশপ মুলাক্কাল সম্প্রতি জামিনে মুক্ত হয়েছেন। নির্দল বিধায়ক পি সি জর্জসহ বিশপের বহু সমর্থক গত সপ্তাহেই মুলাক্কালকে শুভেচ্ছা জানান। শর্তসাপেক্ষে জেল থেকে ছাড়া পাওয়ার পর বিশপকে অভিবাদন জানান তাঁরা।

Read the full story in English

Get all the Latest Bengali News and West Bengal News at Indian Express Bangla. You can also catch all the General News in Bangla by following us on Twitter and Facebook

Web Title:

Kerala nun rape case priest dead in jalandhar

The moderation of comments is automated and not cleared manually by bengali.indianexpress.com.
Advertisement

ট্রেন্ডিং
নজরে পাহাড়
X