বড় খবর

এক যুগ বাদে বাড়ি ফিরলেন কচ্ছের ইসমাইল, ১৩ বছর ছিলেন পাক জেলে

২০০৮ সালের আগস্টে গরু চড়াতে গিয়ে উধাও হয়ে যান ইসমাইল

এ যেন পুনর্জন্ম! কচ্ছের ইন্দো-পাক সীমান্তের ভুজ তালুকার ইসমাইল সামার গল্প খানিকটা তেমন। প্রায় ১৩ বছর অর্থাৎ একটা প্রজন্মকাল পাক জেলে কাটিয়ে অবশেষে গ্রামে ফিরলেন এই মেষ -পালক। জানা গিয়েচগে। কচ্ছের নানা দিনারার বাসিন্দা ইসমাইল। ২০০৮ সালে হঠাৎ করেই হারিয়ে গিয়েছিল এই মেষ-পালক। একেবারে উবে গিয়েছিল কর্পূরের মতোন। এমনটাই বলছে নানা দিনারা গ্রাম। শুক্রবার সকালে গ্রাম ঢোকার পথে তাঁর গাড়ি এসে থামলেই উচ্ছ্বাসে ফেটে পড়ে গোটা গ্রাম। সকাল থেকেই ইসমাইলকে অভ্যর্থনা জানাতে আয়োজন ছিল তুঙ্গে। ইন্দো-পাক সীমান্ত থেকে গাড়ি চালিয়ে তাঁকে গ্রামে নিয়ে আসেন সৎ-ভাই জুনাস।

এদিন তাঁকে প্রাথমিক অভ্যর্থনা জানানোর পর স্থানীয় মসজিদে নিয়ে যাওয়া হয়। সেখানেও একপ্রস্থ অভিবাদন জানানো হয়েছে তাঁকে। এদিন দ্য ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেসকে ইসমাইল জানান, ‘আমাকে পাকিস্তান রেঞ্জার্স আটক করার পর ওদের জেলে বন্দি করা হয়। আইএসআই শুরু করে অত্যাচার। সেসময় আমি বাড়ি ফিরতে পারবো স্বপ্নেও কল্পনা করতে পারিনি। আল্লাকে ডাকা শুরু করি। সে আমাকে বাড়ি পৌঁছে দিল। যেন পুনর্জন্ম হল।’

২০০৮ সালের অগাস্টে গরু চড়াতে গিয়ে উধাও হয়ে যান ইসমাইল। ইসমাইলের পরিবার জানিয়েছে, ‘ওকে বিছে কামড়ালে ও অজ্ঞান হয়ে যায়। হুঁশ ফিরলে দেখে পাক রেঞ্জার্সরা ওকে ঘিরে আছে। ওরা বলে ইসমাইল অনুপ্রবেশ করেছে। ওরাই চিকিৎসার ব্যবস্থা করে। সুস্থ হলে আইএসআইয়ের হাতে তুলে দেয়।’

Web Title: Kutch man returns home after 13 years in pakistan jail national

Next Story
Covishield-এর পর এবার Covavax টিকা নিয়ে আসছে সেরাম ইনস্টিটিউট
The moderation of comments is automated and not cleared manually by bengali.indianexpress.com