বড় খবর

১৭ মে পর্যন্ত ভারতজুড়ে লকডাউন

৪ মে থেকে দু’সপ্তাহের জন্য দেশজুড়ে চলবে তৃতীয় দফার লকডাউন, কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রকের তরফে এমনটাই জানানো হয়েছে।

lockdown, লকডাউন
স্তব্ধ রাজপথ।
করোনাভাইরাস মোকাবিলায় দেশে লকডাউনের মেয়াদ ফের বাড়ানো হল। আগামী ৩ মে’র পর আরও ২ সপ্তাহের জন্য় লকডাউনের মেয়াদ বাড়ানো হয়েছে । উল্লেখ্য়, আগামী ৩ মে শেষ হচ্ছে দ্বিতীয় দফার লকডাউন। আগামী ১৭ মে পর্যন্ত দেশজুড়ে চলবে তৃতীয় দফার লকডাউন, কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রকের তরফে এমনটাই জানানো হয়েছে।

প্রসঙ্গত, করোনা রুখতে গত ২৫ মার্চ দেশজুড়ে প্রথম লকডাউন জারি করা হয়। প্রথম দফার লকডাউন শেষ হয় গত ১৪ এপ্রিল। ১৫ এপ্রিল থেকে ৩ মে পর্যন্ত দ্বিতীয় দফার লকডাউন ঘোষণা করে মোদী সরকার।

আরও পড়ুন:  ৪ মে থেকে বাংলার কোন জেলা কোন জোনে? দেখুন, কেন্দ্রীয় তালিকা

তৃতীয় দফার লকডাউনে কী কী নিষেধাজ্ঞা থাকছে, জেনে নিন…

অলঙ্করণ- অভিজিৎ বিশ্বাস

 

* রেল-বিমান-মেট্রো পরিষেবা বন্ধ থাকবে

* সড়কপথে আন্ত:রাজ্য় পরিবহণ বন্ধ থাকবে

* স্কুল-কলেজ-সহ সব শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধ থাকবে

* হোটেল ও রেস্তোঁরা বন্ধ থাকবে

* সিনেমা হল, শপিং মল, জিম, স্পোর্টস কমপ্লেক্স বন্ধ থাকবে

* সামাজিক, রাজনৈতিক ও সাংস্কৃতিক জমায়েত নিষিদ্ধ

* ধর্মীয় স্থান বন্ধ থাকবে

রেড জোনে কী কী ছাড় দেওয়া হল, জেনে নিন…

অলঙ্করণ- অভিজিৎ বিশ্বাস

* চালক ছাড়াও ২ জনকে নিয়ে গাড়িতে করে যাতায়াত করা যাবে, তবে তা অনুমতি সাপেক্ষ। দু’চাকার গাড়ির ক্ষেত্রে পিলিয়ন রাইডারকে ছাড় নয়।

* শহরাঞ্চলে স্পেশাল ইকোনোমিক জোন, এক্সপোর্ট ওরিয়েন্টেড ইউনিট, ইন্ডাস্ট্রিয়াল এস্টেট অ্য়ান্ড ইন্ডাস্ট্রিয়াল টাউনশিপকে ছাড়।

* ড্রাগ, ফার্মাসিউটিক্য়ালস, মেডিক্য়াল ডিভাইস, বিভিন্ন অত্য়াবশকীয় পণ্য়ের কাঁচামাল তৈরিতে অনুমতি। সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে হার্ডওয়ার ও জুট শিল্পে অনুমতি।

* শহরাঞ্চলে নির্মাণকাজে ছাড়।

* অত্যাবশকীয় নয় এমন পণ্যের জন্য শহরাঞ্চলে মল, মার্কেট কমপ্লেক্সে ছাড় নয়।

* গ্রামাঞ্চলে নির্মাণ কাজ, মনরেগার কাজে ছাড়পত্র

* গ্রামাঞ্চলে শপিং মল বাদে সব দোকান খোলায় ছাড়

* কৃষিক্ষেত্রে ফসল উৎপাদন, বীজবপনের কাজে ছাড়

* পশুপালন ও মাছের চাষে অনুমতি

* সবরকম স্বাস্থ্য় পরিষেবায় ছাড়

* ব্যাঙ্ক, নন ব্য়াঙ্কিং ফিনান্স কোম্পানিতে ছাড়

* অঙ্গনওয়াড়ির কাজে ছাড়

* জল, বিদ্য়ুৎ, সাফাইয়ের কাজ, টেলিকমিউনিকেশন, ইন্টারনেট পরিষেবায় অনুমতি

* ক্যুরিয়র, পোস্টাল পরিষেবায় ছাড়

* অত্যাবশকীয় পণ্যের জন্য ই-কমার্স পরিষেবায় ছাড়

* ৩৩ শতাংশ কর্মী নিয়ে খুলতে পারে বেসরকারি অফিস। বাকি কর্মীরা ওয়ার্ক ফর্ম হোম করবে।

* শহরাঞ্চলে পাড়ার দোকান, রেসিডেন্সিয়াল কমপ্লেক্সের দোকান খোলায় অনুমতি।

* সমস্ত সরকারি অফিস চালু থাকবে। ৩৩ শতাংশ কর্মী নিয়ে কাজ করতে হবে।

* প্রিন্ট ও ইলেক্ট্রনিক মিডিয়া, আইটি, ডেটা ও কলসেন্টার, হিমঘর, ওয়ার হাউস, বেসরকারি নিরাপত্তারক্ষী পরিষেবায় ছাড়।

আরও পড়ুন: লকডাউনে প্রথম ট্রেন চলল ১০০০ পরিযায়ী শ্রমিককে নিয়ে

রেড জোনে কী করা যাবে না…

অলঙ্করণ- অভিজিৎ বিশ্বাস

* সাইকেল রিকশা, অটো রিকশা চলবে না

* ট্যাক্সি ও ক্য়াব পরিষেবা চলবে না।

* আন্ত:জেলা বাস পরিষেবা বন্ধ থাকবে

* স্পা, সেলুন খুলবে না

অরেঞ্জ জোনে কী কী ছাড়, জেনে নিন…

* ট্যাক্সি, ক্যাব পরিষেবায় ছাড়। তবে একজন চালক ও একজন যাত্রীকে নিয়ে চলবে এই পরিষেবা

* অনুমতি সাপেক্ষে আন্ত:জেলায় গাড়ি চলাচলে ছাড়

* চালক ছাড়া ২ ব্য়ক্তিকে নিয়ে চার চাকার গাড়ি চলাচলে ছাড়। দু’চাকার ক্ষেত্রে চালকের সঙ্গে পিলিয়ন রাইডারকে ছাড়।

গ্রিন জোনে কী ছাড় থাকছে?
গ্রিন জোনে লকডাউন অনেকটাই শিথিল করা হচ্ছে। ৫০ শতাংশ আসন নিয়ে বাস পরিষেবা চালু থাকবে। বাস ডিপোয় ৫০ শতাংশ কর্মী থাকতে পারেন।

তবে বিশেষ কোনও কারণে কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রকের অনুমতিসাপেক্ষে কোনও ব্য়ক্তি বিমান-রেল বা সড়কপথে যাতায়াত করার সুযোগ পাবেন। সমস্ত জোনে ৬৫ বছরের বেশি বয়সী, যাঁদের কো-মরবিডিটি রয়েছে, অন্তঃসত্ত্বা ও ১০ বছরের কম বয়সীদের বাড়িতে থাকার পরামর্শ দেওয়া হয়েছে।

অন্য়দিকে, করোনা পরিস্থিতি পর্যালোচনা করে রেড জোন, অরেঞ্জ জোন ও গ্রিন জোনের তালিকা প্রকাশ করল স্বাস্থ্য় মন্ত্রক। দেশের মোট ১৩০ জেলাকে রেড জোনের তালিকায় রাখা হয়েছে। অরেঞ্জ জোনের তালিকায় রয়েছে ২৮৪টি জেলা। ৩১৯টি জেলাকে গ্রিন জোন হিসেবে চিহ্নিত করা হয়েছে।

Read the full story in English

ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস বাংলা এখন টেলিগ্রামে, পড়তে থাকুন

Get the latest Bengali news and General news here. You can also read all the General news by following us on Twitter, Facebook and Telegram.

Web Title: Lockdown extension india coronavirus latest updates

The moderation of comments is automated and not cleared manually by bengali.indianexpress.com