দ্বিতীয়বারও কন্যা সন্তান, প্রথম সন্তানকে ছাদ থেকে ছুঁড়ে ফেলে দিলেন বাবা

ভয়াবহ এই ঘটনার সময় মদ্যপ অবস্থায় ছিলেন অরবিন্দ গাঙওয়ার নামের ওই ব্যক্তি। ইতিমধ্যেই তাঁকে গ্রেফতার করেছে উত্তরপ্রদেশ পুলিশ।

By: Updated: Sep 14, 2018, 8:15:44 PM

দ্বিতীয়বার কন্যা সন্তান হওয়ায় বেজায় চটে গেলেন বাবা। এতটাই, যে মাত্র আঠারো মাস বয়সী প্রথম কন্যাসন্তানকে ছুড়ে ফেলে দিলেন ছাদ থেকে। গত বৃহস্পতিবার রাতে ঘটনাটি ঘটেছে উত্তরপ্রদেশের পারধৌলি গ্রামে। বেশ উঁচু ছাদ থেকে নীচে ছুড়ে ফেলায় গুরুতর আহত হয় ওই দম্পতির মাত্র দেড় বছরের শিশুটি, নাম কাব্য। স্থানীয় হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছে সে, এমনটাই জানিয়েছে উত্তরপ্রদেশ পুলিশ।

আরও পড়ুন: পালানোর চারদিন আগে সুপ্রিম কোর্টে গিয়ে মালিয়াকে আটকানোর ব্যবস্থা করতে বলা হয়েছিল স্টেট ব্যাঙ্ককে

ভয়াবহ এই ঘটনার সময় মদ্যপ অবস্থায় ছিলেন অরবিন্দ গাঙওয়ার নামের ওই ব্যক্তি। ইতিমধ্যেই তাঁকে গ্রেফতার করেছে উত্তরপ্রদেশ পুলিশ। স্থানীয় সূত্রে খবর, পাঁচ দিন আগেই দ্বিতীয় কন্যাসন্তানের জন্ম দেন অরবিন্দর স্ত্রী। আর তখন থেকেই পরিবারের মধ্যে দুশ্চিন্তা বা অশান্তির সৃষ্টি হয়। অভিযোগ, প্রথম মেয়ের ১৮ মাস পরে ফের মেয়ে হওয়ায় ক্ষেপে ওঠেন অরবিন্দ। গত পাঁচ দিন ধরেই স্ত্রী-র উপর তিনি অত্যাচার চালাচ্ছিলেন বলে জানিয়েছেন অরবিন্দর প্রতিবেশীরা। প্রথম মেয়ে হওয়ার পর থেকেই অরবিন্দ চাইছিলেন তাঁদের একটি পুত্রসন্তান হোক। তবে দ্বিতীয়বার ফের কন্যাসন্তানেরই জন্ম দেন অরবিন্দের স্ত্রী। এরপরই মেজাজ হারান অরবিন্দ।

বৃহস্পতিবার মদ্যপ অবস্থায় বাড়ি ফিরে চিৎকার চেঁচামেচি শুরু করেন অরবিন্দ। মারধরও করেন স্ত্রীকে। এরপর আঠারো মাসের মেয়ে কাব্যকে ছাদে নিয়ে গিয়ে, সেখান থেকে নিচে ফেলে দেন তিনি। এসপি (সিটি) অভিমন্যু সিং জানান, খুনের চেষ্টার অপরাধে অরবিন্দর বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের করেছে পুলিশ।

Get all the Latest Bengali News and West Bengal News at Indian Express Bangla. You can also catch all the General News in Bangla by following us on Twitter and Facebook


Title: দ্বিতীয়বারও কন্যাসন্তান, প্রথম সন্তানকে ছাদ থেকে ছুঁড়ে ফেলে দিলেন বাবা

Advertisement