scorecardresearch

বড় খবর

‘সাক্ষরদের শিক্ষিত হওয়ার প্রয়োজন রয়েছে’, সিএএ বিরোধী মন্তব্যে নাদেলাকে কটাক্ষ মীনাক্ষীর

‘শিক্ষিত লোকেদেরও যে পড়াশোনা করার প্রয়োজন রয়েছে, তার একদম সঠিক উদাহরণ’, এ ভাষাতেই নাদেলাকে বিঁধেছেন বিজেপি সাংসদ মীনাক্ষি লেখি।

মীনাক্ষী লেখি ও সত্য নাদেলা। ছবি: ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস।
সংশোধিত নাগরিকত্ব আইনের বিরুদ্ধে এবার বিজেপি নেতার রোষে মাইক্রোসফটের সিইও সত্য নাদেলা। ‘সাক্ষর লোকেদেরও যে শিক্ষিত হওয়ার প্রয়োজন রয়েছে, তার একদম আদর্শ উদাহরণ’, এ ভাষাতেই নাদেলাকে বিঁধেছেন বিজেপি সাংসদ মীনাক্ষী লেখি। উল্লেখ্য, সিএএ বিরুদ্ধে সোচ্চার হয়ে ভারতীয় বংশোদ্ভূত নাদেলা বলেন, ‘‘আমার মনে হয় খুব খারাপ হচ্ছে…কোনও বাংলাদেশি অভিবাসীকে ভারতে পরবর্তী ইউনিকর্ন ও ইনফোসিসের সিইও হিসেবে দেখতে চাই’’।

ঠিক কী বলেছেন মীনাক্ষী লেখি?

টুইটারে এ প্রসঙ্গে নাদেলাকে বিঁধে বিজেপি সাংসদ লিখেছেন, ‘‘শিক্ষিত লোকেদেরও যে পড়াশোনা করার প্রয়োজন রয়েছে, তার একদম আদর্শ উদাহরণ। বাংলাদেশ, পাকিস্তান, আফগানিস্তান থেকে আসা সংখ্যালঘুদের নাগরিকত্বের সুযোগ দেবে সিএএ। এই সুযোগ কেন আমেরিকার ইয়েজিদিদের বদলে সিরিয়ার মুসলিমদের দেওয়া হবে না?’’।

অন্যদিকে সিএএ ইস্যুতে সত্য নাদেলার বক্তব্যকে সমর্থন জানিয়েছেন ইতিহাসবিদ রামচন্দ্র গুহ। এ প্রসঙ্গে তিনি বলেন, ‘‘আমি খুব খুশি যে সত্য নাদেলা নিজের মত প্রকাশ করেছেন’’।

আরও পড়ুন: সিএএ দুঃখজনক, ভবিষ্যতে বাংলাদেশি শরণার্থীকে ইনফোসিসের সিইও হিসাবে দেখতে চাই: সত্য নাদেলা

সংশোধিত নাগরিকত্ব আইন অনুযায়ী ২০১৪ সালের ৩১ ডিসেম্বর পর্যন্ত পাকিস্তান, বাংলাদেশ ও আফগানিস্তান থেকে ধর্মীয় নীপিড়েনর শিকার হয়ে এদেশে আসা হিন্দু, শিখ, বৌদ্ধ, জৈন, পার্সি ও খ্রিস্টান সম্প্রদায়ের মানুষদের ভারতীয় নাগরিকত্ব দেওয়া হবে। তবে, নাগরিকত্বের আবেদনকারী শরণার্থীরা কেন এদেশে এসেছিলেন তার কারণ অবশ্য জানাতে হবে না বলেই স্বরাষ্ট্রমন্ত্রক সূত্রে জানা গিয়েছে। এই পরিস্থিতিতে সিএএ প্রসঙ্গে ভারতীয় বংশোদ্ভূত মাইক্রোসফ্টের সিইও-র মন্তব্য যথেষ্ট তাৎপর্যপূর্ণ বলে মনে করা হচ্ছে।

Read the full story in English

Stay updated with the latest news headlines and all the latest General news download Indian Express Bengali App.

Web Title: Meenakshi lekhi satya nadellas caa remark