বড় খবর

নাগরোটায় জইশ জঙ্গিদের হামলায় পাক মদতের প্রমাণ স্পষ্ট

নিহত জঙ্গিদের কাছ থেকে যে মোবাইল ফোন ও টিপিআিএস পাওয়া গিয়েছে তার লিঙ্ক রয়েছে পাকিস্তানের সঙ্গে। এছাড়াও মিলেথে অন্যান্য প্রমাণ।

‘কোথায় পৌঁছেছ? এখন কী পরিস্থিতি? কোনও সমস্যা রয়েছে কি? ২টোর সময় ফের কথা বলব।’ নাগরোটা টোল প্লাজার কাছে নিকেশ চার জঙ্গির কাছ থেকে উদ্ধার মোবাইলের মেসেজ থেকে এমনই তথ্য মিলেছে। যা থেকে গোয়েন্দারা পরিস্কার যে গত বৃস্পতিবারের নাশতার পিছনে পাকিস্তানের মদত রয়েছে।

গোয়েন্দাদের দাবি, পাক পাঞ্জাব প্রদেশে ছিল চার নিহত জঙ্গির বাড়ি। সেখানেই তাদের আত্মঘাতী হামলার প্রশিক্ষণ দিয়েছে মৌলনা মাসুদের ভাই মুফতি আসগর ও জইশের অপরেশনাল কমান্ডার জারার। বড় কোনও নাশকতার উদ্দেশেই তাদের ভারতের পাঠানো হয়েছিল। নিহত জঙ্গিদের কাছ থেকে যে মোবাইল ফোন ও টিপিআিএস পাওয়া গিয়েছে তার লিঙ্ক রয়েছে পাকিস্তানের সঙ্গে। উদ্ধার হওয়া ডিজিটাল রেডিওটিও পাক সংস্থা ‘কিউ’ মোবাইলের বলে জানিয়েছেন তদন্তকারীরা। জম্মু-কাশ্মীর পুলিশের তদন্তে উঠে এসেছে যে, স্থানীয় ডিডিসি নির্বাচন বানচাল করতেই এই পরিকল্পনা করা হয়েছিল।

জঙ্গি বোঝাই একটি ট্রাককে বৃহস্পতিবার ভোরে নাগরোটায় বান টোল প্লাজার সামনে থামায় নিরাপত্তারক্ষীরা। তখনই ড্রাইভার পালায়, যার এখনও খোঁজ নেই। সিআরপিএফ ও পুলিশ ট্রাকটিকে ঘিরে ফেলে। এরপর সেখানে যান জম্মুর আইজি মুকেশ সিং। সন্ত্রাসবাদীদের আত্মসমর্পণ করতে বলেন তিনি। কিন্তু জইশ জঙ্গিরা গুলি চালাতে শুরু করে। গ্রেনেড বর্ষণ করে। প্রায় তিন ঘণ্টার গুলির লড়াইয়ের পর চার জঙ্গির মৃত্যু হয়। আহত হন দুই পুলিশকর্মী। ট্রাক থেকে বিপুল সংখ্যক আগ্নেয়াস্ত্র উদ্ধার করা হয়। ছিল ১১টি একে ৪৭, ২৯টি গ্রেনেড, তিনটি পিস্তল ইত্যাদি। এছাড়াও ওষুধ, তার, ইলেকট্রিক সার্কিট ইত্যাদি পাওয়া যায়।

এদিকে শুক্রবার নাগরোটা এনকাউন্টার নিয়ে রিভিউ বৈঠক করেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। ছিলেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ, জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টা অজিত ডোভাল সহ গোয়েন্দা বিভাগের শীর্ষ কর্তারা। সেখানে এই কথা প্রধানমন্ত্রীকে জানানো হয় যে জম্মুর নাগরোটায় বৃহস্পতিবার সকালে যে চার জঙ্গি হত হয়েছিল, তাদের মুম্বই হানার বর্ষপূর্তিতে বড়সড় আক্রমণের পরিকল্পনা ছিল। বৈঠকের পর নিরাপত্তারক্ষীদের প্রশংসা করে টুইট করেন প্রধানমন্ত্রী। সেখানে তিনি লেখেন, ‘পাকিস্তানের জয়েশের চার সন্ত্রাবাদীর মৃত্যু ও তাদের সঙ্গে বিপুল অস্ত্রশস্ত্র থেকে এটা স্পষ্ট যে বড়রকম ক্ষয়ক্ষতি করার চেষ্টা করছিল তারা। নিরাপত্তাবাহিনী ফের চরম সাহসিকতা ও পেশাদারিত্বের পরিচয় দিয়েছে। তাদের তৎপরতার জন্যেই জম্মু-কাশ্মীরে তৃণমূল স্তরে গণতান্ত্রিক কার্যকলাপ বিঘ্ন করার পরিকল্পনা পরাজিত হয়েছে।’

Read in English

ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস বাংলা এখন টেলিগ্রামে, পড়তে থাকুন

Get the latest Bengali news and General news here. You can also read all the General news by following us on Twitter, Facebook and Telegram.

Web Title: Nagrota encounter pakistan fingerprints all over

Next Story
সামাজিক দূরত্ব-মাস্ক বিধি মেনে মহা কুম্ভের জন্য তৈরি হচ্ছে হরিদ্বারMaha Kumbh
The moderation of comments is automated and not cleared manually by bengali.indianexpress.com
X