scorecardresearch

বড় খবর

‘করোনা মোকাবিলায় নরেন্দ্র মোদীর প্রচেষ্টার সুফল পেয়েছে ভারত’, ইউপিতে মন্তব্য কেন্দ্রীয় মন্ত্রীর

Prime Minister Modi: করোনাকালে দেশের স্বাস্থ্য পরিকাঠামো বদলে মোদীর উদ্যোগ বেশি কার্যকরী। অন্য অনেক দেশের চেয়ে যার সুফল বেশি পেয়েছে দেশ।

‘করোনা মোকাবিলায় নরেন্দ্র মোদীর প্রচেষ্টার সুফল পেয়েছে ভারত’, ইউপিতে মন্তব্য কেন্দ্রীয় মন্ত্রীর
উত্তর প্রদেশের এক অনুষ্ঠানে এই মন্তব্য করেন নাকভি। এক্সপ্রেস ফাইল ফটো

Prime Minister Modi: প্রধানমন্ত্রীর প্রচেষ্টা করোনা মোকাবিলায় বিশ্বে অনেক বেশি সুফল পেয়েছে ভারত। রবিবার এই দাবি করেন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী মুখতার আব্বাস নাকভি। বিশ্বে এমন অনেক দেশ রয়েছে, যাদের স্বাস্থ্য পরিকাঠামো উন্নত। কিন্তু করোনাকালে দেশের স্বাস্থ্য পরিকাঠামো বদলে মোদীর উদ্যোগ বেশি কার্যকরী। করোনা মোকাবিলায় অন্য অনেক দেশের চেয়ে যার সুফল বেশি পেয়েছে দেশ। এভাবেই প্রশংসার সুরে ভরিয়েছেন কেন্দ্রীয় সংখ্যালঘু উন্নয়ন মন্ত্রী।

তিনি দাবি করেন, ‘গত কয়েক মাসে পিএম-কেয়ার্সের টাকায় দেশব্যাপী ১৫০০টি অক্সিজেন প্লান্ট বসেছে। এদিন উত্তর প্রদেশের রামপুরে অক্সিজেন প্লান্ট বসানোর একটি অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন এই কেন্দ্রীয় মন্ত্রী। তখনই কোভিড মোকাবিলায় প্রধানমন্ত্রীর উদ্যোগের ভূয়সী প্রশংসা করেন তিনি। এদিকে, প্রকোপ কমলেও সম্পূর্ণ কাটেনি করোনার দ্বিতীয় ঢেউয়ের প্রভাব। এর মধ্যেই প্রমাদ গুনছে দেশ। যেকোনও সময় আছড়ে পড়তে পারে কোভিডের তৃতীয় ঢেউ। আশঙ্কা আরও বেড়েছে স্বাস্থ্য বিষয়ক নীতি আয়োগ সদস্যের সতর্কবাণীতে। ডাঃ ভি কে পাল সাফ জানিয়েছেন, করোনার বিরুদ্ধে লড়াইয়ে আগামী ১০০-১২৫ দিন অত্যন্ত সাবধানে থাকতে হবে। কোভিডের প্রতিরোধে কেন্দ্রীয় টাস্ক ফোর্সের সদস্য ডাঃ পালের কথায়, ‘সংক্রমণের মাত্রা কমেছে। কিন্তু এটাই সতর্ক হওয়ার সময়। আগামী ১০০-১২৫ দিন খুবই সঙ্কটের হতে পারে। তাই এই সময়কালে খুব সাবধানে জীবনযাপন করতে হবে।’

স্বাস্থ্য কর্তাদের মতে, ভারত এখনও সামগ্রিক অর্জিত রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতায় (হার্ড ইমিউনিটি) পৌঁছয়নি। ফলে এ দেশে করোনার তৃতীয় ঢেউ আছড়ে পড়ার সম্ভাবনা রয়েছে। তাই সতর্ক থাকতে হবে। কোভিড বিধি মেনে চলতে হবে। না হলেই চরম বিপদ ঘটে যেতে পারে। উল্লেখ্য, করোনার তৃতীয় ঢেউ নিয়ে ইতিমধ্যে সতর্কতা জারি করেছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা। দেশের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীও সতর্ক করেছেন।

মারণ ভাইরাসেপ প্রকোপ রুখতে টিকাকরণ ও সতর্কতাই একমাত্র পথ বলে জানিয়েছেন বিশেষজ্ঞরা। কেন্দ্রের তরফে দেশবাসীকে বিনামূল্যে টিকাদানের কাজ চলছে। এই অবস্থায় আইসিএমআর রিপোর্টে প্রকাশ, ডেল্টা ভেরিয়েন্ট-চালিত কোভিডের দ্বিতীয় তরঙ্গের সময় উচ্চ-ঝুঁকিপূর্ণ পুলিশকর্মীদের ৯৫ শতাংশকেই মৃত্যুর হাত থেকে বাঁচিয়েছে ভ্যাকসিনের দু’টি ডোজ। সোমবার নীতি আয়োগের সদস্য ডাঃ ভি কে পাল আইসিএআর-এর এই রিপোর্ট প্রকাশ্যে আনেন।

ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস বাংলা এখন টেলিগ্রামে, পড়তে থাকুন

Stay updated with the latest news headlines and all the latest General news download Indian Express Bengali App.

Web Title: Narendra modis efforts is meaningful to come out from covid claims union minister national