বড় খবর

পাতিয়ালায় পুলিশের হাত কাটল যুবক, লকডাউনে কার্ফু পাস দেখতে চাওয়ায় বিপত্তি

করোনা সংক্রমণ রুখতে ইতিমধ্যেই পাঞ্জাব সরকার রাজ্যে লকডাউনের মেয়াদ ১লা মে পর্যন্ত বাড়িয়েছে। তার মধ্যেই এই ঘটনা ঘিরে চাঞ্চল্য দেখা দিয়েছে।

পাতিয়ালায় পুলিশের হাত কাটল যুবক
লকডাউনের মধ্যেই পাঞ্জাবের পাতিয়ালার শানুর সবজি বাজারে গাড়ি নিয়ে একদল যুবক ঘোরাফেরা করছে বলে খবর যায় পুলিশে। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে বাজারে আসে পুলিশ। একদল যুবকের কাছে পুলিশ জানতে চায় তাদের কাছে কার্ফু পাস আছে কি না। যা ঘিরে শুরু হয় ধুন্ধুমার। পুলিশের উপর চড়াও হয় যুবরকরা। ধারাল অস্ত্র দিয়ে এক এএসআইয়ের হাত কেটে নেওয়া হয়। ঘটনায় জখম আরও দুই পুলিশ কর্মী।

জখম এএসআই হারজিৎ সিং।

পাতিয়ালার পুলিশ সুপার মনদীপ সিং সিধু এদিন জানান, শিখ ধর্মাবলম্বী কয়েকজন ‘নিহাঙ্গ’ ধর্মীর রীতি মেনে রাস্তায় অস্ত্র (শিখদের ধর্মীয় রীতি অনুযায়ী) নিয়ে বের হয়েছিল। লকডাউনে যা নিয়ম বিরুদ্ধ। মাঝ রাস্তায় তাঁদের পুলিশ আটকায়। এরপরই বাঁধে তুমুল উত্তেজনা। মুহূর্তে এএসআইএর হাতে তরোয়ালের কোপ বসায় অভিযুক্তরা। আর এরপর পুলিশ অফিসারের একটি হাত কেটে দেয় অভিযুক্তরা।

আরও পড়ুন- রোজ এক লাখ করে করোনা পরীক্ষার লক্ষ্য নির্ধারণ মোদী সরকারের

জখম এএসআইকে প্রথমে স্থানীয় হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। পরে তাঁকে চণ্ডীগড়ের পিজিআইএমইআর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। পুলিস কর্মীর পাশাপাশি আক্রান্ত সবজি বাজারের কর্মকর্তাও। ঘটনায় গ্রেফতার করা বয়েছে আট জনকে।

করোনা ভাইরাসের প্রবল প্রকোপ গোটা দেশে। আক্রান্তের সংখ্যা আট হাজার পার হয়েছে। মৃত ২৭৮। করোনা রুখতে ২১ দিনের লকডাউনে ভারত। এমন পরিস্থিতিতে পাঞ্জাবেও করোনা আক্রান্তের সংখ্যা ক্রমশ বাড়ছে। পাঞ্জাবে মৃত্যু হয়েছে ১১ জনের। রাজ্যে ইতিমধ্যেই ১লা মে পর্যন্ত লকডাউনের ঘোষণা করেছে পাঞ্জাব সরকার। নিয়ম লাগু করতে পুলিশকে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। তার মধ্যেই এই ঘটনায় উদ্বেগ বাড়ল প্রশাসনের।

Read the full story in English

ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস বাংলা এখন টেলিগ্রামে, পড়তে থাকুন

Get the latest Bengali news and General news here. You can also read all the General news by following us on Twitter, Facebook and Telegram.

Web Title: Nihangs youth chop off punjab patiala cop hand in lockdown

The moderation of comments is automated and not cleared manually by bengali.indianexpress.com