বড় খবর


‘নিজের পছন্দমত চাকরির এলাকা পছন্দের অধিকার নেই সরকারি কর্মচারীদের’

কোনও সরকারী কর্মচারী নিজের পছন্দের স্থানে বা পদে থাকার অধিকার নেই বা কোনও কর্মচারী তার পোস্টিংয়ের ক্ষেত্রে শর্ত সাজাতে পারে না।

এক দৃষ্টিহীন আইএএস অফিসারের আবেদন ছিল তাঁকে যেন স্থানান্তর না করা হয়, কিন্তু মানেনি প্রশাসন। সেই আবেদনকে চ্যালেঞ্জ জানিয়ে পাঞ্জাব হরিয়ানা হাইকোর্টে যান কর্মী। হরিয়ানা সরকারের তরফে ওই প্রতিবন্ধী অফিসারকে অন্যত্র বদলি করার কথা জানান হয়। যদিও অফিসারের ওই আবেদন খারিজ করে দিয়েছে হাইকোর্ট।

কেন্দ্রীয় প্রশাসনিক ট্রাইব্যুনালের (সিএটি) আদেশের আগে সরকারী আদেশ অকার্যকর করার জন্য আইএএস অফিসারের আবেদন খারিজ হয়। বিচারপতি অগাস্টিন জর্জ মসিহ এবং বিচারপতি অশোক কুমার ভার্মার ডিভিশন বেঞ্চ বলেছিল, ‘নিয়মের বাইরে কিছু হবে না। বদলি সেবার একটি অংশ হিসেবেই ধরা হয়। কোনও সরকারী কর্মচারী নিজের পছন্দের স্থানে বা পদে থাকার অধিকার নেই বা কোনও কর্মচারী তার পোস্টিংয়ের ক্ষেত্রে শর্ত সাজাতে পারে না। উক্ত ক্ষমতা নিয়োগকারীর উপর ন্যস্ত। উল্লিখিত ক্ষমতা প্রয়োগ করবে প্রশাসন।”

এদিকে, বিহার পুলিশের তরফে একটি বিবৃতি জারি করা হয়েছে যে এবার প্রতিবাদের পথে হাঁটতে গেলে নাও মিলতে পারে সরকারি চাকরি। বিবৃতিতে এও বলা হয়েছে এইসব কাজের সঙ্গে যারা যুক্ত তারা যদি পথ না বদলায় তবে সরকারের তরফে তাদের কোনও ঋণও দেওয়া হবে না।

বিবৃতিতে বলা হয়েছে, যারা কোনও না কোনও সময় সড়ক অবরোধ, কোনও কিছুর প্রতিবাদে বিক্ষোভ দেখানোর মতো কাজে জড়িত ছিল যেগুলো আইনশৃঙ্খলা বিরোধী; তারা চাকরি ও ঋণ সংক্রান্ত সরকারি কোনও সুবিধা থেকে বঞ্চিত হতে পারে। বিবৃতিতে এও বলা হয়েছে, এই সব মানুষরা সরকারি চাকরি ও চুক্তি থেকে বঞ্চিত থাকবে। তাই যে কোনও সময়ে যে কোনও রকম বিরূপ পরিস্থিতির জন্য যেন তারা তৈরি থাকে।

যদি কোনও বিষয়ে গণতান্ত্রিক অধিকার প্রয়োগ করে কেউ বিদ্রোহ করে তবে সরকারি থেকে বঞ্চিত করবে।

Read the full story in English

ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস বাংলা এখন টেলিগ্রামে, পড়তে থাকুন

Web Title: No govt servant has right to stay posted at place of choice

Next Story
সরকার কৃষকদের সম্মান করে, কৃষি আইন নিয়ে পিছু হটছে মোদী সরকার?কৃষক আন্দোলন, কৃষি আইন
The moderation of comments is automated and not cleared manually by bengali.indianexpress.com