scorecardresearch

১৪তম সামরিক বৈঠকেও অধরা সমাধান সুত্র! ঝুলেই থাকল ইন্দো-চিন সীমান্ত সমস্যা

Ladakh Dispute: এই বৈঠক গত অক্টোবরের বৈঠক থেকে অনেকবেশি ইতিবাচক। সেবার পৃথক বিবৃতি জারি করে একে অপরের প্রতি দোষারোপ করা হয়েছিল।

১৪তম সামরিক বৈঠকেও অধরা সমাধান সুত্র! ঝুলেই থাকল ইন্দো-চিন সীমান্ত সমস্যা
দফায়-দফায় বৈঠকেও রফা মিলছে না। ভারত-চিন সীমান্ত দ্বন্দ্ব জারি।

Ladakh Dispute: ওয়েস্টার্ন সেক্টরে ইন্দো-চিন সীমান্ত সমস্যা সমাধানে আয়োজিত বৈঠক নিষ্ফলা। দুই পক্ষের বিবৃতি পর্যবেক্ষণ করে এই দাবি করেছেন আন্তর্জাতিক সম্পর্ক বিশেষজ্ঞরা। বুধবার ওয়েস্টার্ন সেক্টরের হট স্প্রিং এলাকা নিয়ে দুই পড়শি দেশের মধ্যে ১৪তম সামরিক বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়। ভারত এবং চিন, দুই দেশের প্রতিরক্ষা এবং সামরিক কর্তারা সেই বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন। কিন্তু ওয়েস্টার্ন সেক্টর থেকে সামরিক সম্ভার সরানো প্রসঙ্গে ঐক্যমত্যে আসেনি কোনওপক্ষ। তবে ইতিবাচক দিকেই কথা এগিয়েছে। এদিন জানান মোদি সরকারের একটি সুত্র।

বৃহস্পতিবার যৌথ বিবৃতি দিয়েছে দিল্লি এবং বেজিং। সেই বিবৃতিতে উল্লেখ, ‘দুই পক্ষের মধ্যে যোগাযোগ থাকবে। এবং আগের প্রস্তাব মেনেই কাজ করবে।‘ জানা গিয়েছে, এই বৈঠক গত অক্টোবরের বৈঠক থেকে অনেকবেশি ইতিবাচক। সেবার পৃথক বিবৃতি জারি করে একে অপরের প্রতি দোষারোপ করা হয়েছিল।

এদিকে, ইস্টার্ন লাদাখে চিন সেনার মোকাবিলা দৃঢ় সঙ্কল্প ভাবেই করবে ভারতীয় সেনা। বুধবার বেজিংয়ের উদ্দেশে এই বার্তা পাঠান সেনা প্রধান জেনারেল নারাবনে। তাঁর দাবি, ‘ দেশের সর্বোচ্চ সীমায় সর্বাধিক প্রস্তুতি নিয়েছে ভারতীয় সেনা।  এদিন আবার সীমান্ত সমস্যা সমাধানে ইন্দো-চিন বৈঠক চলছে। সেই বৈঠকের আবহেই সেনা প্রধানের এই মন্তব্য তাৎপর্যপূর্ণ। এমনটাই মত সামরিক বিশেষজ্ঞদের।

এদিন সেনা প্রধান বলেন, ‘ইস্টার্ন লাদাখে ভারতীয় বাহিনী সক্রিয় থেকে কিছুটা হুমকি কমিয়েছে। পেট্রোলিং পয়েন্ট ১৫ ঘিরে যে বিতর্ক রয়েছে, সেটার সমাধান আলোচনার মাধ্যমেই হবে। তবে পড়শি দেশের তরফে কোনও সামরিক আগ্রাসন হলে আমাদের বাহিনী সদা প্রস্তুত।‘

আমাদের দিকে কোনও চ্যালেঞ্জ ছোড়া হলে, আমরা তার মোকাবিলা করতে প্রস্তুত। এই দাবি করে সেনা প্রধান জেনারেল নারাবনে বলেন, ‘তাও যেকোনও প্রকার হুমকির বিরুদ্ধে লড়তে আমরা নানাভাবে প্রস্তুত হয়ে রয়েছি।‘ এদিকে, বুধবার সীমান্ত সমস্যা সমাধানে বৈঠকে বসছে ইন্দো এবং চিন। তার আগে নয়াদিল্লির পাশে দাঁড়িয়ে বিবৃতি দিল ওয়াশিংটন। পড়শিদের ভয় দেখানোর কূটনীতি করছে বেজিং। সহযোগী দেশগুলোকে সর্বত্র ভাবে সাহায্য করবে ইউএস। এভাবেই মঙ্গলবার সরব হয়েছেন বাইডেন প্রশাসনের প্রেস সচিব জেন সাকি। জানা গিয়েছে, ইস্টার্ন লাদাখের ঝুলে থাকা সীমান্ত বিবাদ মেটাতে বুধবার ১৪তম বৈঠকে বসছে ইন্ডিয়া এবং চিন। তার আগে জেন সাকির এই মন্তব্য তাৎপর্যপূর্ণ।

ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস বাংলা এখন টেলিগ্রামে পড়তে থাকুন

Stay updated with the latest news headlines and all the latest General news download Indian Express Bengali App.

Web Title: No outcome from 14th round talks over indo china border dispute national