scorecardresearch

বড় খবর

পজিটিভ ৩০ জন মন্ত্রী-বিধায়ক, করোনা সংক্রমণে ছারখার বিধানসভা

ভয়ঙ্কর পরিস্থিতি, বিধানসভার অধিবেশন কাটছাঁট করল সরকার।

পজিটিভ ৩০ জন মন্ত্রী-বিধায়ক, করোনা সংক্রমণে ছারখার বিধানসভা
মুম্বইয়ে জারি ১৪৪ ধারা, শুনশান গেটওয়ে অফ ইন্ডিয়া চত্বর।

করোনা সংক্রমণে ছারখার মহারাষ্ট্র বিধানসভা। ১০ জনের বেশি মন্ত্রী এবং অন্তত ২০ জন বিধায়ক কোভিড পজিটিভ। উপমুখ্যমন্ত্রী অজিত পওয়ার শনিবার জানিয়েছেন, এই পরিস্থিতি চলতে থাকলে রাজ্যে আরও কড়া বিধিনিষেধ আরোপ করা হবে। পওয়ারের হুঁশিয়ারির দিনই রাজ্যে ৮ হাজারের বেশি দৈনিক করোনা সংক্রমিত। বৃহস্পতিবার থেকে প্রায় ৫০ শতাংশ বেশি সংক্রমণ।

অজিত পওয়ার এদিন জানিয়েছেন, “করোনা আশঙ্কায় আমরা বিধানসভার অধিবেশন ছোট করে দিয়েছি। এখনও পর্যন্ত ১০ জন মন্ত্রী এবং ২০ জন বিধায়কেরও বেশি করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন। সবাই বর্ষবরণ, জন্মদিন এবং অন্যান্য উৎসবে শরিক হতে চান। কিন্তু এটা মাথায় রাখতে হবে করোনার নয়া প্রজাতি ওমিক্রন দ্রুত গতিতে ছড়াচ্ছে তাই সতর্ক থাকতে হবে। প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর আবেদনে বেশ কিছু রাজ্য নাইট কার্ফু ঘোষণা করেছে। মহারাষ্ট্রে মুম্বই এবং পুণেতে সংক্রমণ বাড়ছে।”

এদিন ভীমা-কোরেগাঁও যুদ্ধের ২০৪তম বার্ষিকী উপলক্ষে একটি অনুষ্ঠানে তিনি সাংবাদিকদের একথা বলেন। এদিকে, মুম্বইয়ে দৈনিক করোনা সংক্রমণের হাইজাম্প উদ্বেগ বাড়িয়েছে পুলিশ-প্রশাসনের। দৈনিক সংক্রমিতের ৩৭ শতাংশই ওমিক্রন আক্রান্ত। যা চিন্তার ভাঁজ ফেলেছে প্রশাসনের কপালে। এই পরিস্থিতিতে বড়সড় সিদ্ধান্ত নিয়েছে মুম্বই পুলিশ। শুক্রবার থেকে আগামী ১৫ জানুয়ারি পর্যন্ত শহরের সৈকত, খেলার মাঠ, পার্ক এবং অন্যান্য পাবলিক প্লেসে বিকেল ৫টা থেকে ভোর পাঁচটা পর্যন্ত কার্ফু জারি হয়েছে। জমায়েত-ভিড় নিয়ন্ত্রণ করতে এই সিদ্ধান্ত নিয়েছে মুম্বই পুলিশ।

আরও পড়ুন ভারতে ডেল্টাকে ছাপিয়ে যাচ্ছে ওমিক্রনের সংক্রমণ, বাড়ছে উদ্বেগ!

যদিও বর্ষবরণের কথা মাথায় রেখে শহরের রেস্তরাঁ, জিমখানা, স্পা, সিনেমা হলগুলিতে ৫০ শতাংশ মানুষের অনুমতি দিয়েছে পুলিশ। জানা গিয়েছে, ১৪৪ ধারার অন্তর্গত এই নির্দেশিকায় মুম্বই পুলিশের মুখপাত্র চৈতন্য এস জানিয়েছেন, নিয়ম ভাঙলে ভারতীয় দণ্ডবিধির ১৮৮ ধারায় মামলা দায়ের হবে অভিযুক্তের বিরুদ্ধে। সেইসঙ্গে মহামারী আইন এবং জাতীয় বিপর্যয় মোকাবিলা আইনে মামলা হবে।

উল্লেখ্য, বৃহস্পতিবার রাতে বৃহন্মুম্বই পুরনিগমের তরফে অতিরিক্ত বিধিনিষেধ আরোপ করা হয়েছে। বিয়ে, সামাজিক অনুষ্ঠান, জমায়েত, সামাজিক, রাজনৈতিক বা ধর্মীয় জমায়েতের ক্ষেত্রে ৫০ জনকে অনুমতি দেওয়া হবে। অন্ত্যেষ্টি অনুষ্ঠানের ক্ষেত্রে সর্বাধিক ২০ জনকে ছাড় দেওয়া হবে। পুরনিগমের নির্দেশ লঙ্ঘন করলে পুলিশ সংশ্লিষ্ট ব্যক্তি বা কর্তৃপক্ষের বিরুদ্ধে এফআইআর দায়ের করবে।

আরও পড়ুন লাগামহীন সংক্রমণ দেশে, একদিনে করোনা আক্রান্ত প্রায় ২৩ হাজার

আগেই পুরনিগম বর্ষবরণের পার্টি, বা কোনওধরনের জমায়েতে নিষেধাজ্ঞা জারি করেছে। ৭ জানুয়ারি পর্যন্ত কোনও রকম খোলা জায়গায় ৫ জনের বেশি মানুষকে ছাড় দেওয়া হবে না। পাবলিক প্লেসে রাত ৯টা থেকে ভোর ছটা পর্যন্ত এই নিষেধাজ্ঞা জারি হয়েছে।

Stay updated with the latest news headlines and all the latest General news download Indian Express Bengali App.

Web Title: Over 10 ministers 20 mlas have tested positive for covid 19 in maharashtra says deputy cm