তিহার জেলেই পাঠানো হল চিদাম্বরমকে

আদালত নির্দেশ দিয়েছে চিদাম্বরমের জেড ক্যাটিগরির নিরাপত্তার কথা মাথায় রেখে, তাঁকে পৃথক সেলে রাখতে হবে।

By: New Delhi  Updated: September 5, 2019, 08:48:27 PM

তিহার জেলেই যেতে হল দেশের প্রাক্তন অর্থমন্ত্রী পি চিদাম্বরমকে। আগামী ১৯ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত সেখানেই থাকতে হবে তাঁকে। বৃহস্পতিবার দিল্লির বিশেষ সিবিআই আদালত আইএনএক্স মিডিয়া মামলায় তাঁকে ১৪ দিনের বিতারবিভাগীয় হেফাজতের নির্দেশ দেয়।

ইতিমধ্যেই ১৫ দিন সিবিআই হেফাজতে কাটিয়েছেন চিদাম্বরম। গত ২১ জুলাই প্রাক্তন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী তথা কংগ্রেস নেতা চিদাম্বরমকে নিজের বাড়ি থেকে গ্রেফতার করা হয় চিদাম্বরমকে। আদালত তাঁর আগাম জামিনের আবেদন নাকচ করার পর তাঁকে গ্রেফতার করা হয়।

আরও পড়ুন, টাইমলাইন: আইএনএক্স মিডিয়ায় কীভাবে জড়ালেন চিদাম্বরম

আদালত নির্দেশ দিয়েছে চিদাম্বরমের জেড ক্যাটিগরির নিরাপত্তার কথা মাথায় রেখে, তাঁকে পৃথক সেলে রাখতে হবে। চিদাম্বরমের আইনজীবী তাঁর জন্য একটি পৃথক সেল একটি খাট ও পৃথক শৌচাগারের ব্যবস্থা করার অনুরোধ জানান। সলিসিটর জেনারেল তুষার মেহতা বলেছেন, প্রাক্তন কেন্দ্রীয় মন্ত্রীর জন্য জেলে পর্যাপ্ত নিরাপত্তার ব্যবস্থা থাকবে।

এদিনের সওয়ালে সিবিআই চিদাম্বরমের বিচারবিভাগীয় হেফাজতের জন্য আবেদন করে। আদালতে সিবিআই বলে চিদাম্বরম অত্যন্ত প্রভাবশালী ব্যক্তি হওয়ায় তাঁকে মুক্ত করা উচিত হবে না।

চিদাম্বরমের আইনজীবী বলেন, প্রাক্তন মন্ত্রী তিহার জেলের বদলে ইডি হেফাজতে যেতে রাজি রয়েছেন।

আরও পড়ুন, ছেলের ব্যবসায়ে সাহায্য করার অনুরোধ করেছিলেন চিদাম্বরম, দাবি ইন্দ্রাণীর

দিল্লি আদালত এদিন অর্থ পাচার মামলায় চিদাম্বরমের আত্মসমর্পণের আবেদনের প্রেক্ষিতে ইডিকে নোটিস জারি করেছে।  বিচারবিভাগীয় হেফাজত সম্পর্কিত নির্দেশ দেওয়ার পর চিদাম্বরম ইডি মামলায় আত্মসমর্পণের আবেদন করেন। এই মামলার শুনানি হবে আগামী ১২ সেপ্টেম্বর।

এদিনই এয়ারসেল মাক্সিস মামলায় অন্তর্বর্তী জামিন পেয়েছেন পি চিদাম্বরম ও তাঁর ছেলে কার্তি চিদাম্বরম। এক লক্ষ টাকার ব্যক্তিগত বন্ড ও সমপরিমাণ অঙ্কের জামানতের বিনিময়ে এই ছাড় দেওয়া হয়েছে পিতা-পুত্রকে।

Get all the Latest Bengali News and West Bengal News at Indian Express Bangla. You can also catch all the General News in Bangla by following us on Twitter and Facebook

Web Title:

P chidambaram tihar jail inx media case judicial custody

The moderation of comments is automated and not cleared manually by bengali.indianexpress.com.
Advertisement

ট্রেন্ডিং