scorecardresearch

বড় খবর

গায়ে আগুন দিয়ে সহকর্মীকে জড়িয়ে ধরার চেষ্টা! গবেষক পড়ুয়া কাণ্ডে হুলস্থূল বিশ্ববিদ্যালয় চত্ত্বর

বিয়ের প্রস্তাব ফিরিয়ে দেওয়ার বদলা

গায়ে আগুন দিয়ে সহকর্মীকে জড়িয়ে ধরার চেষ্টা! গবেষক পড়ুয়া কাণ্ডে হুলস্থূল বিশ্ববিদ্যালয় চত্ত্বর

গায়ে আগুন দিয়ে নিজে পুড়িয়ে মারার চেষ্টা! অগ্নিদগ্ধ অবস্থাতেই সহকর্মীকে জড়িয়ে ধরে হত্যার চেষ্টার অভিযোগ উঠলো বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসেই। এই ঘটনায় গোটা বিশ্ববিদ্যালয় চত্ত্বর জুড়ে হুলস্থূল পড়ে যায়। জানা গিয়েছে প্রেমে প্রত্যাখ্যানের কারণেই এমন ঘটনা ঘটে মহারাষ্ট্রের ঔরঙ্গাবাদের ডঃ বাবাসাহেব আম্বেদকর মারাঠওয়াড়া বিশ্ববিদ্যালয়ে। পরে হাসপাতালে মৃত্যু হয় ওই গবেষক পড়ুয়ার। মহিলার অবস্থা আশঙ্কাজনক।

সোমবার বিকেলে বিশ্ববিদ্যালয়ের একজন পিএইচডি গবেষক সোমবার বিশ্ববিদ্যালয় চত্ত্বরেই নিজের গায়ে আগুন ধরিয়ে দেন। এরপর তিনি সহকর্মী মহিলা গবেষককে হত্যা করার চেষ্টা করেন। এই দুর্ঘটনায় দু’জনেই গুরুতর অগ্নিদগ্ধ হন। একজন আধিকারিক জানিয়েছেন যে দু’জনেই মারাত্মক ভাবে এই ঘটনায় আহত হয়েছে। উভয়েরই শরীরের ৫০ শতাংশের বেশি ঝলসে গিয়েছে। হাসপাতালে মৃত্যু হয় গবেষক ছাত্রের। মহিলার অবস্থাও আশঙ্কাজনক।

বেগমপুরা থানার এক কর্মকর্তা বলেন, দুর্ঘটনার পর দুজনকেই চিকিৎসার জন্য সরকারি মেডিকেল কলেজে ভর্তি করা হয়েছে। পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে পিএইচডি গবেষক গজানন মুন্ডে প্রথমে নিজের গায়ে আগুন ধরিয়ে দেন এবং তারপরে মহিলাকে জড়িয়ে ধরেন, যার কারণে তিনিও অগ্নিদগ্ধ হন।

আরও পড়ুন: [ ‘উস্কানিতেই রাগের মাথায় খুন’! আদালতে বিস্ফোরক মন্তব্য আফতাব পুনাওয়ালার ]

দুজনেই বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রাণিবিদ্যা বিভাগের পিএইচডি গবেষক এবং দুর্ঘটনার সময় মহিলা গবেষক একজন সহকারী অধ্যাপকের অফিসরুমে বসে ছিলেন, এমন সময় হঠাৎ মুন্ডে সেখানে পৌঁছান এবং ছাত্রীটির পাশাপাশি নিজের গায়ে পেট্রোল ঢেলে আগুন ধরিয়ে দেন। ঘটনাস্থলে উপস্থিত সহকারী অধ্যাপক বলেন, ওই মহিলা পালানোর চেষ্টা করলেও মুন্ডে তাকে ধরে ফেলেন।

Stay updated with the latest news headlines and all the latest General news download Indian Express Bengali App.

Web Title: Phd student sets himself on fire hugs woman for rejecting marriage proposal