বড় খবর

NRC নিয়ে বক্তব্যের জেরে মমতার নামে পুলিশে অভিযোগ

গতকাল মোদী সরকারের তীব্র সমালোচনা করে মমতা বলেন, এই সরকার রাজনৈতিক ফায়দা লুটতে আসামের লক্ষ লক্ষ মানুষকে “রাজ্যহীন” করার চেষ্টা চালাচ্ছে, এবং হুঁশিয়ারি দেন যে এর ফলে দেশে রক্তক্ষয়ী গৃহযুদ্ধ লাগতে পারে।

আজ দিল্লিতে সংসদের সামনে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। ( ছবি: অনিল শর্মা, ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস)

গতকাল দিল্লিতে আসামের জাতীয় নাগরিক পঞ্জির (NRC) বিরুদ্ধে তাঁর মন্তব্যের প্রেক্ষিতে পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের নামে আসামের ডিব্রুগড় জেলায় পুলিশে অভিযোগ দায়ের করেছে বিজেপির যুব মোর্চা। ভারতীয় জনতা যুব মোর্চার তিনজন সদস্য অভিযোগটি করেছেন নাহারকাটিয়া থানায়। পুলিশের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে তারা অভিযোগটি খতিয়ে দেখছে, যদিও এখন পর্যন্ত কোনো এফআইআর দায়ের করা হয় নি।অভিযোগে বলা হয়েছে, মমতার বক্তব্যে পাশাপাশি বসবাসকারী মানুষের মধ্যে বিদ্বেষ এবং উত্তেজনা ছড়ানোর সম্ভাবনা রয়েছে, এবং এর ফলে নাগরিক সনদের প্রক্রিয়া লাইনচ্যুত হতে পারে।

আরও পড়ুন: আসামে এনআরসি-র প্রতিবাদে উত্তর ২৪ পরগনায় রেল অবরোধ মতুয়াদের

গতকাল মোদী সরকারের তীব্র সমালোচনা করে মমতা বলেন, এই সরকার রাজনৈতিক ফায়দা লুটতে আসামের লক্ষ লক্ষ মানুষকে “রাজ্যহীন” করার চেষ্টা চালাচ্ছে, এবং হুঁশিয়ারি দেন যে এর ফলে দেশে রক্তক্ষয়ী গৃহযুদ্ধ লাগতে পারে।

“NRC করাই হচ্ছে রাজনৈতিক উদ্দেশ্য নিয়ে। আমরা তা হতে দেব না। বিজেপি মানুষের মধ্যে বিভেদ সৃষ্টি করছে, এটা সহ্য করা যায় না। দেশে গৃহযুদ্ধ লাগবে, রক্তগঙ্গা বইবে,” কাল একটি সভায় বলেন মমতা।

অন্যদিকে বিজেপি সভাপতি অমিত শাহ মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় এবং অন্যান্য বিরোধী দলনেতার তোলা অভিযোগ জোরগলায় অস্বীকার করে বলেছেন, আসামের NRC বস্তুত জাতীয় নিরাপত্তা এবং ভারতীয় নাগরিকদের অধিকারের প্রশ্ন।

আসামের নাগরিক পঞ্জির চূড়ান্ত খসড়া প্রকাশের পরদিন থেকেই বিরোধীদের রোষের মুখে পড়তে হয়েছে কেন্দ্রীয় সরকারকে। আসামে বসবাসকারী অবৈধ বাংলাদেশীদের চিহ্নিত করতে এই চূড়ান্ত খসড়া থেকে বাদ পড়েছেন ৪০ লক্ষ মানুষ।

সংসদের ভেতরে এবং বাইরে বিষয়টি নিয়ে একাধিক বিক্ষোভ প্রদর্শন করা হয়েছে। সব বিরোধী দলেরই কার্যত এক কথা, বিজেপি সমাজকে বিভক্ত করে ভারতীয় নাগরিকদের তাঁদের নিজের দেশেই উদ্বাস্তু বানিয়ে দিচ্ছে।

আরো পড়ুন: বিজেপি NRC কে হাতিয়ার করে গৃহযুদ্ধ বাঁধাতে চায়: মমতা

এদিকে এক সাংবাদিক সম্মেলনে অমিত শাহ বলেছেন এনডিএ সরকার দেশ থেকে অবৈধ বাংলাদেশী অনুপ্রবেশকারীদের বহিষ্কার করতে বদ্ধপরিকর, এবং NRC “শেষ যতিচিহ্ন পর্যন্ত” কার্যকরী করা হবে। তিনি সব রাজনৈতিক দলকে বলেন NRC নিয়ে তাদের অবস্থান স্পষ্টভাবে জানাতে।

তিনি বলেন অনুপ্রবেশকারীদের চিহ্নিত করতে NRC প্রক্রিয়া শুরু হয় ২০০৫ সালে, কিন্তু পূর্ববর্তী ইউপিএ সরকারের “সাহস ছিল না অবৈধ বাংলাদেশীদের বিতাড়িত করার”। মমতার গৃহযুদ্ধ নিয়ে হুঁশিয়ারির নিন্দা করে তিনি আরও বলেন, “বিজেপি ভারতের প্রত্যেক নাগরিকের সুরক্ষার প্রতি দায়বদ্ধ।বাকি সবাই তাদের মতামত স্পষ্টভাবে জানাক।”

Get the latest Bengali news and General news here. You can also read all the General news by following us on Twitter, Facebook and Telegram.

Web Title: Police complaint against mamata banerjee in assam

Next Story
আসামে এনআরসি-র প্রতিবাদে উত্তর ২৪ পরগনায় রেল অবরোধ মতুয়াদেরrail roko, রেল অবরোধ
The moderation of comments is automated and not cleared manually by bengali.indianexpress.com