বড় খবর

কৃষক আন্দোলনকে সমর্থন, চাকরি ছাড়লেন পুলিশের বড় কর্তা

‘আমার ৮১ বছরের মা এখনও ক্ষেতের কাজ দেখভাল করেন। প্রতিবাদী কৃষকদের আন্দোলন নিয়ে আমার কী মতামত? মায়ের এই প্রশ্নে আমি তাঁর চোখের দিকে তাকাতে পারছি না।’

প্রতিবাদী কৃষকদের সমর্থনে তিনি। তাই পাঞ্জাবের ডিআইজি পদ থেকে ইস্তফা দিলেন আইপিএস লক্ষ্মীন্দর সিং ঝাকর। পাঞ্জাবের কারা বিভাগের ডিআইজি পদে কর্মরত ছিলেন এই পুলিশ কর্তা। শনিবারই ইস্তফাপত্র জাম দেন ঝাকর। এরপর তিনি বলেছেন, ‘পদত্যাগের জন্য সমস্ত আনুষ্ঠানিকতা সম্পন্ন করেছি। আশা করি আমার ইস্তফা গ্রহণে কোনও অসুবিধা হবে না।’

চলতি বছর মে মাসে ঘুষকাণ্ডে আইপিএস লক্ষ্মীন্দর সিং ঝাকরকে বহিষ্কার করা হয়। তবে, দু’মাস আগেই ফের পদ ফিরে পান ৫৬ বছর বয়সী ওই আইপিএস। ইস্তফাপত্রে ঝাকর জানিয়েছেন, তাঁর পদত্যাগ অবিলম্বে মঞ্জুরের জন্য তিন মাসের বেতন ও অন্যান্য পাওনা জমা করতে প্রস্তুত তিনি। পাঞ্জাবের এডিজিপি (কারা) প্রবীণ কুমার সিনহা ডিআইজি লক্ষ্মীন্দর সিং ঝাকরের ইস্তফার কথা নিশ্চিৎ করেছেন।

কেন হঠাৎ পদত্যাগ?
পাঞ্জাবের কারা বিভাগের ডিআইজি বলেছেন, ‘আমি প্রথমে কৃষক, পরে পুলিশ। আমার বাবা একজন কৃষক। ক্ষেতে কাজের মাধ্যমে উপার্জনের অর্থেই আমি পড়াশুনা করেছি। আমার জীবনের যা কিছু সাফল্য তা কৃষির জন্যই।’ ঝাকর জানিয়েছেন, ‘আমার ৮১ বছরের মা এখনও ক্ষেতের কাজ দেখভাল করেন। প্রতিবাদী কৃষকদের আন্দোলন নিয়ে আমার কী মতামত? মায়ের এই প্রশ্নে আমি তাঁর চোখের দিকে তাকাতে পারছি না। তাই ইস্তফার সিদ্ধান্ত নিয়েছি।’

বিক্ষুব্ধ কৃষকদের পাশে থেকে তাঁদের সমর্থনের জন্য মা তাঁকে অনুপ্রেরনা দিয়েছেন বলেও দাবি পদত্যাগী আইপিএসের। দ্রুত দিল্লিতে গিয়ে আন্দোলনে যোগ দেবার কথা জানিয়েছেন তিনি।

১৪ পাঞ্জাব রেজিমেন্টের ক্যাপটেন (১৯৮৯-৯৪) হিসাবে কাজ শুরু করলেও পরে আইপিএস পদে চাকরি করেন।

Read in English

ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস বাংলা এখন টেলিগ্রামে, পড়তে থাকুন

Web Title: Punjab dig lakhminder singh jakhar resigns in support of farmer s protest

Next Story
‘জানুয়ারি থেকে টিকাকরণ, অক্টোবরের মধ্যেই স্বাভাবিক হবে ভারত’, আশ্বাস সেরাম প্রধানের
The moderation of comments is automated and not cleared manually by bengali.indianexpress.com