বড় খবর

রাফালে ডিলে ভারতীয় পার্টনার ফরাসি সরকার বাছে নি: ফ্রাঁসোয়া ওলাঁদ

“আমাদের মতামত দেওয়ার জায়গা ছিল না। ভারত সরকারের পক্ষ থেকে রিলায়েন্সের নাম প্রস্তাব করা হয়, এবং Dassault আম্বানীদের সঙ্গে কথাবার্তা বলে।”

প্রাক্তন ফরাসি রাষ্ট্রপতি ফ্রাঁসোয়া ওলাঁদের পর এবার বর্তমান ফরাসি সরকার। ওলাঁদ বলেছিলেন, রাফালে চুক্তিতে অফসেট পার্টনার হিসেবে অনিল আম্বানির রিলায়েন্স ডিফেন্সের নামের সুপারিশ এসেছিল ভারত সরকারের তরফ থেকে। তার কয়েক ঘণ্টার মধ্যেই শনিবার ফরাসি সরকারের পক্ষ থেকে স্পষ্ট জানিয়ে দেওয়া হলো, ভারতীয় শিল্পে বিনিয়োগকারী কোনও ফরাসি কোম্পানি তাদের সহযোগী হিসেবে কাকে বেছে নেবে, সে বিষয়ে ফরাসি সরকার কোনও হস্তক্ষেপ করে না বা করবে না।

দিল্লিতে ফরাসি দূতাবাসের পক্ষ থেকে একটি প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, “ভারতীয় ব্যবসায়িক সহযোগী হিসেবে কোনও ফরাসি সংস্থা ভারতীয় অধিগ্রহণ প্রক্রিয়া অনুসারে কাকে বেছে নেবে, সে বিষয়ে ফরাসি সরকার কোনোভাবেই হস্তক্ষেপ করবে না। যে কোনও ফরাসি সংস্থার পূর্ণ স্বাধীনতা রয়েছে সবচেয়ে যোগ্য ভারতীয় সহযোগী বেছে নেওয়ার।”

ফরাসি দূতাবাসের ওই প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে আরও বলা হয়েছে, “সরকারি-বেসরকারি একাধিক ভারতীয় সংস্থার সঙ্গে ব্যবসায়িক চুক্তি স্বাক্ষরিত হয়েছে বিভিন্ন ফরাসি সংস্থার। প্রথানুযায়ী, ভারতীয় আইনেরই অনুসরণ করেছে চুক্তি-প্রক্রিয়া।”

Rafale deal
Dassault Aviation দ্বারা জারি বিজ্ঞপ্তি

চুক্তি সংক্রান্ত কিছু স্পষ্টিকরণ করেছে Dassault Aviation-ও। এক বিবৃতিতে ওই সংস্থা জানায়, “এই চুক্তি দুই সরকারের মধ্যে। চুক্তির একটি শর্ত অনুযায়ী Dassault Aviation ক্রয়মূল্যের পঞ্চাশ শতাংশ সম্ভাব্য ক্ষতিপূরণ-বিনিয়োগ হিসাবে দিতে দায়বদ্ধ।” বিবৃতিতে আরও উল্লেখ করা হয়েছে, “এই ক্ষতিপূরণ বিনিয়োগে ২০১৬ সালের প্রতিরক্ষা ক্রয় কার্যপ্রণালী অনুসারে, এবং মেক ইন ইন্ডিয়া কর্মপন্থা মেনে, Dassault Aviation ভারতের রিলায়েন্স গ্রুপকে পার্টনার হিসেবে বেছে নিয়েছে। এই পার্টনারশিপের ফলে Dassault Reliance Aerospace Ltd নামক যৌথ উদ্যোগের সৃষ্টি হয় ফেব্রুয়ারি ২০১৭-তে।”

বিবৃতি অনুযায়ী, Dassault Aviation এবং রিলায়েন্স নাগপুরে একটি কারখানা তৈরি করেছে, যেখানে ফ্যালকন ও রাফালে প্লেনের যন্ত্রাংশ বানানো হবে।

ফ্রাঁসোয়া ওলাঁদ, যিনি ভারতের সঙ্গে ৩৬ টি রাফালে বিমান কেনাবেচা সংক্রান্ত চুক্তি সই করার সময় ফ্রান্সের রাষ্ট্রপতি ছিলেন, বলেছেন ফরাসি সরকারের এই বিষয়ে কোনো অভিমত ছিল না। “আমাদের মতামত দেওয়ার জায়গা ছিল না। ভারত সরকারের পক্ষ থেকে রিলায়েন্সের নাম প্রস্তাব করা হয়, এবং Dassault আম্বানীদের সঙ্গে কথাবার্তা বলে। আমাদের কোনো পছন্দ অপছন্দের প্রশ্ন ছিল না, মধ্যস্থতা করতে যাকে দেওয়া হয়েছিল, তাকেই নিয়েছিলাম।”

ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেসে প্রকাশিত একটি প্রতিবেদনের প্রতিক্রিয়া জানাতে গিয়ে ওলাঁদ আরও বলেন, তাঁর কোনও ধারণা ছিল না যে রিলায়েন্স এন্টারটেনমেন্ট যৌথভাবে ফরাসি ছবি Tout La-Haut-এর প্রযোজনা করে অভিনেত্রী জুলি গায়েতের সঙ্গে, যিনি ওলাঁদের সঙ্গিনী। এবং ছবিটি তৈরি হয় তখন, যখন রাফালে নিয়ে ভারত-ফ্রান্স আলোচনা চলছে। “এই কারণেই এই গোষ্ঠীর (রিলায়েন্স) আমাকে ধন্যবাদ দেওয়ার কোনও প্রশ্ন নেই। আমি কল্পনাও করিনি জুলি গায়েতের ছবির সঙ্গে কোনও যোগাযোগ থাকতে পারে।”

Get the latest Bengali news and General news here. You can also read all the General news by following us on Twitter, Facebook and Telegram.

Web Title: Rafale deal french government not involved in indian partners embassy statement

Next Story
পৃথিবীর বাইরেও নাকি পৃথিবী আছে! একটা নয়, দু’দুটো!
The moderation of comments is automated and not cleared manually by bengali.indianexpress.com