scorecardresearch

বড় খবর

‘দলিত বলেই ওকে এভাবে মরতে হল, আমরা আতঙ্কিত’! প্রশাসনকেই একহাত নিল মৃত শিশুর পরিবার

ঘটনার সুষ্ঠু তদন্তের দাবিতে সোমবার এসপির কাছে স্মারকলিপি পেশ করেছে রাজপুত সম্প্রদায়

‘দলিত বলেই ওকে এভাবে মরতে হল, আমরা আতঙ্কিত’! প্রশাসনকেই একহাত নিল মৃত শিশুর পরিবার
‘সংরক্ষিত’ মাটির পাত্র থেকে ভুল করেই জল খেয়ে নেয় দলিত শিশুটি, তার জেরেই মারে মৃত্যু অভিযোগ পরিবারের

টাকা দিয়ে মুখ বন্ধ করার অভিযোগ আগেই উঠেছিল এবার রাজস্থানে দলিত শিশুর মৃত্যু নিয়ে আবারও প্রশাসনের বিরুদ্ধে ক্ষোভ উগড়ে দিলেন মৃত শিশুর পরিবার। পরিবারের দাবি গত ২০ জুলাই স্কুল চলাকালীন শিক্ষকের জন্য ‘সংরক্ষিত’ মাটির পাত্র থেকে ভুল করেই জল খেয়ে নেয় দলিত শিশুটি। আর তাতেই ক্ষেপে যান স্কুলের শিক্ষক, বেধড়ক মারধরে মৃত্যু হয় দলিত শিশুর। এই নিয়ে উত্তাল রাজ্য রাজনীতি।

পরিবারের দাবি এর মধ্যে একাধিকবার শিক্ষক অভিযুক্ত চাইল সিং শিশুটির পরিবারকে টাকা নিয়ে বিষয়টি মিটমাটের অনুরোধ করেন। এমনকী পুলিশের কাছে না যাওয়ারও অনুরোধ করেন। এর পাশাপাশি দলিত শিশুর চিকিৎসার সমস্ত খরচ দেওয়ার কথাও বলেন। মৃত শিশুটির পরিবারের আরও দাবি ‘ঘটনার পর, তাদের গ্রামের রাজপুতরা একটি সমঝোতায় পৌঁছাতে এবং পুলিশের কাছে না যেতে বলেছিল আমাদের’।

পাশাপাশি মৃত শিশুর কাকার অভিযোগ, ‘শিক্ষক গ্রেফতারের পর থেকেই আমরা গ্রামে ভয়ের মধ্যে বাস করছি। তিনি বলেন, আজও দলিতরা গ্রামে নির্যাতিত। চুল কাটতেও এক কিলোমিটার পথ পাড়ি দিয়ে যেতে হয় নাপিতের কাছে। আমরা যখন পুলিশের কাছে এফআইআর করি তার পর থেকে আকারে ইঙ্গিতে নানা প্রকার হুমকির মুখে পড়তে হয়েছে’।

ইন্দ্রের বড় ভাই, একই স্কুলের ক্লাস ফাইভের ছাত্র পরিবারের এই বিষয়টির সঙ্গে একমত। সোমবার, জালোরের এসপি হর্ষ বর্ধন আগরওয়াল ইতিমধ্যেই স্কুলের ১০ জন পড়ুয়ার বয়ান রেকর্ড করেছেন। এসপি আগরওয়াল বলেছেন, তদন্ত চলছে। তবে জল খাওয়ার জন্য যে শিশুটিকে মারধর করা হয়েছে তার কোন প্রমাণ মেলেনি। ইন্দ্রের এক সহপাঠী দ্য ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেসকে জানান, একটি কাগজের টুকরো নিয়ে ঝামেলার জেরেই শিক্ষক তাদের দুজনকে মারধর করেন। ঘটনার সুষ্ঠু তদন্তের দাবিতে সোমবার এসপির কাছে স্মারকলিপি পেশ করেছে রাজপুত সম্প্রদায় পরিবারের তরফে মৃত শিশুর পরিবারের তরফে ধর্নায় বসে।

আরও পড়ুন: [ আজ ‘খেলা হবে দিবস’, নয়া উদ্যমে পথে নামছে জোড়াফুল ]

আত্মীয়রা দাবি করেন পরিবারকে ৫০ লক্ষ টাকা ক্ষতিপূরণ দিতে হবে। সেই সঙ্গে পরিবারের একজনকে চাকরির ব্যবস্থা করতে হবে এবং অবিলম্বে স্কুলের লাইসেন্স বাতিলেরও দাবি তোলা হয়েছে। দলিত শিশু মৃত্যুর ঘটনায় প্রবল অস্বস্তিতে রাজস্থান সরকার। ন্যাশনাল কমিশন ফর প্রোটেকশন অফ চাইল্ড রাইটস-এর চেয়ারপারসন প্রিয়াঙ্ক কানুনগো রবিবার বলেছেন যে শিশুটির মৃত্যুর বিষয়ে রাজস্থান সরকারকে ইতিমধ্যেই একটি নোটিশ জারি করা হয়েছে। মৃত্যুর প্রকৃত কারণ সামনে আনা এবং দোষী ব্যক্তির শাস্তি নিশ্চিত করা একান্ত ভাবেই দরকার।

রাজস্থানের মুখ্যমন্ত্রী অশোক গেহলট শনিবার একটি টুইট বার্তায় দলিত শিশুমৃত্যুর ঘটনায় শোক প্রকাশ করে লিখেছেন, “জালোরের সাইলা থানা এলাকায় একটি বেসরকারি স্কুলে শিক্ষকের মারে শিশুর মৃত্যুর ঘটনা দুঃখজনক। অভিযুক্ত শিক্ষককে ইতিমধ্যেই গ্রেফতার করা হয়েছে এবং তার বিরুদ্ধে খুনের মামলা দায়ের করা হয়েছে। দলিত পরিবার যাতে দ্রুত বিচার পায় তা নিশ্চিত করা হবে। মৃত শিশুর পরিবারকে ৫ লক্ষ টাকা ক্ষতিপূরণেরও আশ্বাস দেওয়া

Stay updated with the latest news headlines and all the latest General news download Indian Express Bengali App.

Web Title: Rajasthan dalit boys death my nephew is dead because of his caste we are living in fear