scorecardresearch

বড় খবর

রাজ্যসভায় বিরোধী আপত্তি উপেক্ষা! ভোট সংস্কারে উচ্চকক্ষেও পাশ নির্বাচনী বিল ২০২১

Parliament Winter Session: এই বিল আইনে পরিণত হলে ভোটার কার্ডের সঙ্গে জুড়তে হবে আধারকে।

রাজ্যসভায় বিরোধী আপত্তি উপেক্ষা! ভোট সংস্কারে উচ্চকক্ষেও পাশ নির্বাচনী বিল ২০২১
লোকসভার অধিবেশন।

Parliament Winter Session: মঙ্গলবার রাজ্যসভাতেও পাশ হয়ে গেল নির্বাচনী সংস্কার (সংশোধনী) বিল ২০২১। সোমবার বিরোধী আপত্তি উপেক্ষা করে লোকসভায় ধ্বনিভোটে এই বিলা পাশ হয়েছিল। এদিন একইভাবে বিরোধী হল্লার মধ্যেই সংসদের উচ্চকক্ষে পাশ হয়ে গেল নির্বাচনী সংস্কার (সংশোধনী) বিল ২০২১। এই বিল আইনে পরিণত হলে ভোটার কার্ডের সঙ্গে জুড়তে হবে আধারকে। এতে ভুয়ো ভোটার ধরা সহজ হবে। এমনটাই দাবি মোদি সরকারের। পাশাপাশি দেশের নির্বাচনী প্রক্রিয়ায় আরও স্বচ্ছতা আসবে। কেন্দ্রীয় আইন মন্ত্রকের একটি সুত্র এই দাবি করেছে।

পাশাপাশি এই বিল আইনে পরিণত হলে, বছরে ৪ বার ভোটার তালিকায় নাম তুলতে পারবেন যোগ্য নাগরিকরা। এযাবৎকাল শুধুমাত্র পয়লা জানুয়ারি থেকে ভোটার তালিকায় নাম তোলার কাজ হয়। এবার থেকে পয়লা জানুয়ারি, পয়লা এপ্রিল, পয়লা জুলাই এবং পয়লা অক্টোবর থেকে এই কাজ হবে। এমনই ভোটারদের মধ্যে লিঙ্গভেদ দূর করতে এই বিলে পরিসর দেওয়া আছে।

ভোটার তালিকা থেকে পত্নী শব্দ তুলে দিয়ে সঙ্গী শব্দ যুক্ত হবে। এই সংশোধনে স্বামীরাও, স্ত্রীয়ের কর্মস্থল থেকে ভোট দিতে পারবেন। এতদিন ভোটিং আইনে স্ত্রীরা, স্বামীদের কর্মস্থল থেকে ভোট দিতে পারতেন।  

এদিকে, সোমবার নির্বাচনী সংস্কারের স্বার্থে বড়সড় পদক্ষেপ নিল মোদি সরকার। সংসদে পাশ করা হয় নির্বাচনী আইন (সংশোধিত) বিল ২০২১। আইন মন্ত্রী কিরেন রিজেজু এই বিল লোকসভায় পেশ করেন। ভোটার পরিচয়পত্রের সঙ্গে আধার কার্ড সংযুক্তি করতে এই বিল। যদিও সংসদে বিজেপি বিরোধী সব দল এই বিলের বিরোধিতায় সরব। মানুষের ব্যক্তি স্বার্থ লঙ্ঘন করতে এই বিল আনছে কেন্দ্র। এমনটাই অভিযোগ কংগ্রেস, তৃণমূল কংগ্রেস-সহ ডিএমকের। বিরোধী আপত্তি উপেক্ষা করেই লোকসভায় ধ্বনি ভোটে পাশ হয়ে যায় এই বিল।

এই বিল প্রসঙ্গে আইন মন্ত্রীর দাবি, ‘ভুয়ো ভোটার ধরতে এবং আরও স্বচ্ছ নির্বাচনী প্রক্রিয়ার জন্যই এই সংশোধন।‘ যদিও নির্বাচন আইন (সংশোধিত) বিলকে সংসদীয় সিলেক্ট কমিটিতে পাঠানোর  দাবিতে সরব ছিলেন কংগ্রেস সাংসদ অধীর চৌধুরী।  বিরোধী হল্লায় দফায় দফায় মুলতুবি হয়েছে সংসদের দুইকক্ষ। বিজেপির অভিযোগ, ‘সংসদ অচল রাখতে উদ্দেশ্যপ্রণোদিত হই-হট্টগোল করছে বিরোধীরা।’

অপরদিকে, সংসদে করোনার প্রবেশ? সোমবার পর্যন্ত সংসদে ছিলেন যে সাংসদ, মঙ্গলবার তিনিই আক্রান্ত করোনায়। ট্যুইট করে নিজের সংক্রমণের  কথা জানান বিএসপি-র লোকসভার সাংসদ কুয়ার দানিশ আলি। তিনি লেখেন, ‘ডবল টিকা নিয়েও আজ আমি করোনা সংক্রমিত। আমার মৃদু উপসর্গ রয়েছে। আশা করছি দ্রুত সুস্থ হয়ে উঠবো। কাল সংসদেও গিয়েছিলাম। আমার সংস্পর্শে যারা এসেছেন দ্রুত পরীক্ষা করুন এবং নিজেদের আইসোলেট করুন।‘

ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস বাংলা এখন টেলিগ্রামে, পড়তে থাকুন

Stay updated with the latest news headlines and all the latest General news download Indian Express Bengali App.

Web Title: Rajya sabha passes election bill amendment 2021 amid opposition chaos national