scorecardresearch

বড় খবর

‘দ্বিপাক্ষিক সম্পর্ক শক্তিশালী করতে ভারতের সঙ্গে যৌথভাবে কাজ করতে চাই’, সংঘাত আবহে বড় বিবৃতি চিনের

উভয় দেশই সীমান্ত এলাকায় স্থিতিশীলতা বজায় রাখতে প্রতিশ্রুতিবদ্ধ দাবি চিনা বিদেশমন্ত্রীর

‘দ্বিপাক্ষিক সম্পর্ক শক্তিশালী করতে ভারতের সঙ্গে যৌথভাবে কাজ করতে চাই’, সংঘাত আবহে বড় বিবৃতি চিনের

চিনের বিদেশমন্ত্রী ওয়াং ই রবিবার এক সাংবাদিক সম্মেলনে বলেন, “বেজিং দ্বিপাক্ষিক সম্পর্ক “স্থিতিশীল ও শক্তিশালী” করতে ভারতের সঙ্গে সব সময়ের জন্য কাজ করতে প্রস্তুত। তিনি আরও বলেন, ” উভয় দেশ সীমান্ত এলাকায় স্থিতিশীলতা বজায় রাখতে প্রতিশ্রুতিবদ্ধ, যেখানে ২০২০ সাল থেকে উত্তেজনার পরিস্থিতি তৈরি হয়েছে। ২০২২ সালে আন্তর্জাতিক পরিস্থিতি এবং চিনের বৈদেশিক সম্পর্ক বিষয়ক একটি সেমিনারে ভাষণ দিতে গিয়ে চিনা বিদেশমন্ত্রী বলেন ‘দুই দেশ কূটনৈতিক ও সামরিক পর্যায়ে যোগাযোগ বজায় রেখে চলেছে।

ওয়াং ই বলেন, “চিন ও ভারত কূটনৈতিক ও সামরিক স্তরে যোগাযোগ রেখে চলেছে। উভয় দেশই সীমান্ত এলাকায় স্থিতিশীলতা বজায় রাখতে প্রতিশ্রুতিবদ্ধ। আমরা চিন-ভারত সম্পর্ককে ‘স্থিতিশীল ও শক্তিশালী’ করার জন্য এগিয়ে যাওয়ার অপেক্ষায় আছি।” চিন ভারতের সঙ্গে একসঙ্গে কাজ করতে প্রস্তুত।”

উভয় দেশই সীমান্তে অচলাবস্থা নিরসনে এখনও পর্যন্ত ১৭ দফা আলোচনা করেছে। আলোচনার পরে জারি করা একটি যৌথ প্রেস বিজ্ঞপ্তি অনুসারে, ‘ভারত-চিন কর্পস কমান্ডার’ স্তরের ১৭ তম রাউন্ড ২০ ডিসেম্বর অনুষ্ঠিত হয়, যেখানে উভয় পক্ষই ঘনিষ্ঠ যোগাযোগ বজায় রাখতে এবং সামরিক ও কূটনৈতিক চ্যানেলের মাধ্যমে আলাপ-আলোচনা চালিয়ে যেতে সম্মত হয়েছে।

ওয়াং ই তার ভাষণে পাকিস্তানের সঙ্গে চিনের সম্পর্কের কথাও সংক্ষেপে উল্লেখ করেন। তিনি বলেন, ‘দুই দেশ দৃঢ়ভাবে একে অপরকে সমর্থন করে চলেছে, সর্বকালের কৌশলগত অংশীদারিত্ব বজায় রেখে এবং বন্ধুত্বকে শক্তিশালী করার লক্ষ্যে কাজ করে চলেছে’।

চিন-যুক্তরাষ্ট্র সম্পর্কের বিষয়ে ওয়াং ই বলেন, “আমরা চীনের প্রতি মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের ভুল নীতিকে দৃঢ়ভাবে প্রত্যাখ্যান করেছি এবং দুই দেশকে একে অপরের কাছাকাছি নিয়ে আসার সঠিক পথের সন্ধানে রয়েছি।” চিন-মার্কিন সম্পর্ক গুরুতর সমস্যার মধ্য দিয়ে যাচ্ছে।”

তাইওয়ান ইস্যুতে ওয়াং ই বলেন, ‘চিন আমেরিকাকে ভয় পায় না। চিনের মূল স্বার্থ এবং জাতীয় গর্ব রক্ষা করার জন্য দৃঢ়তার সঙ্গে আমরা কাজ করে চলেছি’। তিনি ইউক্রেনে রাশিয়ার আগ্রাসন সত্ত্বেও চিন-রাশিয়া সম্পর্কের উন্নয়ন নিয়ে খোলাখুলি কথা বলেছেন। ওয়াং ই বলেছেন, “ভালো-প্রতিবেশী দেশ হিসাবে, আমরা রাশিয়ার সঙ্গে বন্ধুত্ব ও সহযোগিতাকে আরও বাড়িয়েছি। “গত বছর থেকে, চিন এবং রাশিয়া তাদের নিজ নিজ মূল স্বার্থ রক্ষায় একে অপরকে দৃঢ়ভাবে সমর্থন করেছে এবং এই সময়ে আমাদের পারস্পরিক রাজনৈতিক ও কৌশলগত আস্থা আরও জোরদার হয়েছে,”।

Stay updated with the latest news headlines and all the latest General news download Indian Express Bengali App.

Web Title: Ready to work with india for steady sound growth of bilateral ties china