scorecardresearch

‘TRP মামলায় ভিক্টিম কার্ড খেলছে রিপাবলিক টিভি’, বম্বে হাইকোর্টে সওয়াল মুম্বাই পুলিশের

গত জানুয়ারি মাসে মুম্বাই পুলিশ অভিযোগ এনেছিল, এআরজি আউটলিয়ার মিডিয়া প্রাইভেট লিমিটেড এবং রিপাবলিক টিভির সম্পাদক উদ্দেশ্যপ্রণোদিত ভাবে মুম্বাই পুলিশের ভাবমূর্তি কলুষিত করার চেষ্টা করছে।

‘TRP মামলায় ভিক্টিম কার্ড খেলছে রিপাবলিক টিভি’, বম্বে হাইকোর্টে সওয়াল মুম্বাই পুলিশের
প্রতীকী ছবি।

নিজেদের অপরাধের শিকার হিসেবে তুলে ধরতে চাইছে রিপাবলিক টিভি। বম্বে হাইকোর্টে দাখিল করা হলফনামায় এই দাবি করেছে মুম্বাই পুলিশ। ভুয়ো টিআরপি মামলায় সম্প্রতি তদন্তভার সিবিআইকে দিতে আদালতে আবেদন করেছে এআরজি আউটলিয়ার মিডিয়া প্রাইভেট লিমিটেড। এই সংস্থার অধীনেই রিপাবলিক টিভির মালিকানা। যদিও এই আবেদনের বিরোধিতা করেছে মুম্বাই পুলিশ। রিপাবলিক টিভি কিংবা অন্য সংবাদমাধ্যগুলো নিজেদের অপরাধের শিকার হিসেবে তুলে ধরতে চাইছে। অর্থাৎ ভিক্টিম কার্ড খেলার চেষ্টা করছে অভিযুক্ত সংস্থাগুলো। এমন অভিযোগ জানিয়েছে মুম্বাই পুলিশ।  

মুম্বাই পুলিশ সূত্রে দাবি করা হয়েছে, এখনও এই মামলায় অনেক তথ্য-প্রমাণ হাতে আসা বাকি। তাই মুম্বাই পুলিশ এই আবেদনের তীব্র বিরোধিতা করছে। এমনকি, হাইকোর্টে রিপাবলিক টিভির তরফে আবেদন করা হয়েছে, তদন্তের পূর্ণাঙ্গ রিপোর্ট তাদের হাতে তুলে দিতে হবে। সেই আবেদনের বিরোধিতায় সরব মুম্বাই পুলিশ। এভাবে পূর্ণাঙ্গ তদন্তভার তুলে দেওয়া সম্ভব নয়। হাইকোর্টে জানিয়েছে তারা।

গত জানুয়ারি মাসে মুম্বাই পুলিশ অভিযোগ এনেছিল, এআরজি আউটলিয়ার মিডিয়া প্রাইভেট লিমিটেড এবং রিপাবলিক টিভির সম্পাদক উদ্দেশ্যপ্রণোদিত ভাবে মুম্বাই পুলিশের ভাবমূর্তি কলুষিত করার চেষ্টা করছে। এমনকি, সংবাদ পরিবেশনের নামে সাক্ষীদের প্রভাবিত করছেন সাংবাদিক অর্ণব গোস্বামী।

এদিকে, হাইকোর্টের বিচারপতি এসএস শিন্ডে ও মনীশ পিটালের ডিভিশন বেঞ্চে মুম্বাই পুলিশের এফআইআর খারিজের আবেদন করে এআরজি আউটলিয়ার মিডিয়া প্রাইভেট লিমিটেড। এমনকি, মুম্বাই জোর করে সেই সংস্থাকে ভুয়ো টিআরপি মামলায় ফাঁসাতে চাইছে। এমন অভিযোগ হাইকোর্টে করেছে রিপাবলিক টিভি। সেই অভিযোগও খারিজ করেছে মুম্বাই পুলিশ।

এদিকে, ২ লক্ষ টাকার ব্যক্তিগত বন্ডে বার্কের প্রাক্তন সিইও পার্থ দাশগুপ্তর জামিন মঞ্জুর করল বম্বে হাইকোর্ট। টেলিভিশন রেটিং কেলেঙ্কারির অভিযোগ রয়েছে তাঁর বিরুদ্ধে। বিচারপতি পিডি নায়েকের বেঞ্চে মঙ্গলবার এই মামলার শুনানি হয়। হাইকোর্টের নির্দেশ, আগামী ছয় সপ্তাহের মধ্যে জামিনের অর্থ জমা করতে হবে পার্থ দাশগুপ্তকে। তবে আপাতত তাঁকে পাসপোর্ট জনা রাখতে হবে ও মাসের প্রথম শনিবার মুম্বই পুলিশের ক্রাইম ব্রাঞ্চে হাজিরা দিতে হবে। আগামী ৬ মাস এই নির্দেশ কার্যকর থাকবে, পরে প্রতি তিন মাস অন্তর হাজিরা দিতে হবে। এছাড়াও নির্দেশে বলা হয়েছে যে, পার্থ দাশগুপ্তকে তদন্তে সহযোগিতা করতে হবে ও সমন পেলে হাজিরা দিতে হবে।

টেলিভিশন রেটিংয়ে হেরফের করতে বার্কের প্রাক্তন সিইও পার্থ দাশগুপ্তকে লক্ষ লক্ষ টাকা দিয়েছেন রিপাবলিক টিভির এডিটর ইন চিফ অর্ণব গোস্বামী। মুম্বই পুলিশ এমনই দাবি করে। এই অভিযোগে গত ২৪ ডিসেম্বর মুম্বই ক্রাইম ব্রাঞ্চ পার্থ দাশগুপ্তকে গ্রেফতার করে।

গত ডিসেম্বর থেকে তালোজা জেলে বন্দি ছিলেন অভিযুক্ত। এর আগে প্রাক্তন বার্ক কর্তা সেশন কোর্টে জামিনের আবেদন জানালেও গত মাসে তা খারিজ হয়ে যায়। এরপর হাইকোর্টে আবেদন জানান পার্থ দাশগুপ্ত। গত ১৬ ফেব্রুয়ারি এই মামলার শুনানি সম্পন্ন হলেও রায় সুরক্ষিত রেখেছিল আদালত। অবশেষে মঙ্গলবার জামিন মঞ্জুর হল।

Stay updated with the latest news headlines and all the latest General news download Indian Express Bengali App.

Web Title: Republic tv trying to implicate itself as victim mumbai police pitches in bombay hc national