বড় খবর


২০১৯-এ লোকসভা ভোট, অবশেষে বেতন বাড়ছে পার্শ্বশিক্ষকদের

শেষমেশ বেতন বাড়তে চলেছে রাজ্য়ের ৪৮ হাজার পার্শ্বশিক্ষকের। ওই বেতন কার্যকরী হবে চলতি বছরের ১ মার্চ থেকে। নেতাজি ইন্ডোরে পার্শ্বশিক্ষকদের সভায় শোনানো হল মুখ্য়মন্ত্রীর মোবাইল বার্তা।

para-teacher meeting
মুখ্য়মন্ত্রী এবং শিক্ষামন্ত্রীর ঘোষণা, পার্শ্বশিক্ষকদের পাশে রয়েছে রাজ্য়। নিজস্ব চিত্র

ভোট বড় বালাই। সম্ভবত সেই কারণেই ২০১৯ লোকসভা নির্বাচনের আগে ‘প্য়ারা টিচারদের’ পাশে থাকার বার্তা দিলেন রাজ্য় সরকার। বেশ কিছু সুযোগ সুবিধার কথা ঘোষণা করলেন শিক্ষামন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্য়ায়। রাজ্য়ে ৪৮,০০০ পার্শ্বশিক্ষকের বেতন বৃদ্ধির কথা ঘোষণা করলেন। সোমবার নেতাজি ইন্ডোর স্টেডিয়ামে তৃণমূলপন্থী প্য়ারা টিচারদের সম্মেলনে শিক্ষামন্ত্রী ছাড়াও হাজির ছিলেন পুর ও নগরোন্নয়ন মন্ত্রী ফিরহাদ হাকিম। এবং সম্মেলনে না এলেও মোবাইল ফোনের মাধ্য়মে পার্শ্বশিক্ষকদের বার্তা দিলেন মুখ্য়মন্ত্রী মমতা বন্দ্য়োপাধ্য়ায়। এই বার্তা মাইক্রোফোন মারফত শোনানো হয় সভায় হাজির পার্শ্বশিক্ষকদের।

মোবাইল বার্তায় মমতা বলেন, “শুধু আর্থিক নয়, অাপনাদের প্রতি সবরকম সমর্থন আমার ছিল, আছে ও থাকবে। পার্শ্বশিক্ষক বলে নিজেদের কখনও ছোট বলে মনে করবেন না। আপনারা সবার চেয়ে উঁচুতে আছেন। সরকারের কাছে সবসময় টাকা থাকে না। অনেক টাকা ঋন শোধ করতে চলে যায়।” তবে রাজ্য় সরকার তাঁদের পাশে রয়েছেন, স্পষ্ট বার্তা দিয়েছেন মুখ্য়মন্ত্রী। রাজ্য় তৃণমূল কংগ্রেস পার্শ্বশিক্ষক সেল ছিল এই পার্শ্বশিক্ষক সম্মেলনের উদ্য়োক্তা।

এদিন পার্থ চট্টোপাধ্য়ায় পার্শ্বশিক্ষকদের বেতন বৃদ্ধিসহ বেশ কিছু সুবিধার কথা ঘোষণা করেন। তিনি জানান, এখন প্রাথমিকের পার্শ্বশিক্ষকরা পাচ্ছেন ৫,৯৫৪ টাকা, যা বেড়ে হবে ১০,০০০ টাকা। উচ্চ প্রাথমিকে বেতন ছিল ৮,১৮৬ টাকা, বেড়ে হবে ১৩,০০০ টাকা। মুখ্য়মন্ত্রী যখন ঘোষণা করেছেন, তখন ২০১৮ সালের ১ মার্চ থেকে পার্শ্বশিক্ষকদের নতুন বেতন কাঠামো কার্যকরী হবে। শিক্ষামন্ত্রী বলেন, “আমাদের মুখ্য়মন্ত্রী অত্য়ন্ত মানবিক। আলাপ আলোচনার মাধ্যমে তিনি সব শােনেন। কিন্তু অন্য়ায্য দাবি তিনি শুনতে চান না। তাই এত কেস করবেন না। অনুরোধ, নিয়মিত স্কুলে আসুন।” মহিলা পার্শ্বশিক্ষকদের মাতৃত্বকালীন ছুটি দেওয়ার কথাও ঘোষণা করেন শিক্ষামন্ত্রী।

রাজ্যে ২২,০৯৫ প্রাথমিক এবং ২৬,৫৮৫ জন উচ্চপ্রাথমিক পার্শ্বশিক্ষক আছেন। মন্ত্রীর ঘোষণা, ৬০ বছর পর্যন্ত চাকরি থাকবে। তারপর অবসরকালীন ভাতা। পিএফ আছে। বিনামূল্যে প্রশিক্ষণ দেওয়া হয়েছে, তার ফল শীঘ্রই প্রকাশ করা হবে। এখন চাকরিতে টেটের মাধ্য়মে আসতে হয়। যদি বাধা না হয়, তাহলে প্য়ারা টিচারদের মধ্য়ে থেকে পরীক্ষা নেওয়া হবে। প্রাথমিক এবং উচ্চপ্রাথমিকে ২০২১ এর মধ্য়ে যোগ্য়তা অনুযায়ী স্থায়ীকরণ করার চেষ্টা করবেন সরকার। সংরক্ষণ ১০ শতাংশ থেকে বাড়বে, কিন্তু তা কত হবে তা নিয়ে পার্থক্য় থেকে গিয়েছে মুখ্য়মন্ত্রী এবং শিক্ষামন্ত্রীর ঘোষণায়।

Web Title: Salary increase para teacher announce partha chatterjee

Next Story
নির্ভয়া কাণ্ডে অভিযুক্তদের ফাঁসির সাজা বহাল রাখলেন শীর্ষ আদালতsc
The moderation of comments is automated and not cleared manually by bengali.indianexpress.com