scorecardresearch

বড় খবর

মোদী জমানায় ঢেলে সাজানো হয়েছে দেশের নিরাপত্তা, হিংসার ঘটনা কমেছে ৭০ শতাংশ: অমিত শাহ

করোনা কালে পুলিশ গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করেছে এদিনের ভাষণে বলেন শাহ

মোদী জমানায় ঢেলে সাজানো হয়েছে দেশের নিরাপত্তা, হিংসার ঘটনা কমেছে ৭০ শতাংশ: অমিত শাহ
মোদী জমানায় ঢেলে সাজানো হয়েছে দেশের নিরাপত্তা, হিংসার ঘটনা কমেছে ৭০ শতাংশ: অমিত শাহ

শুক্রবার কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ বলেন, “প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর নেতৃত্বে গত আট বছরে উত্তর-পূর্ব রাজ্য, জম্মু ও কাশ্মীর এবং নকশাল-প্রভাবিত এলাকায় নিরাপত্তা পরিস্থিতির প্রভূত উন্নতি হয়েছে। ‘জাতীয় পুলিশ স্মৃতি দিবস’ উপলক্ষে চাণক্যপুরী এলাকার জাতীয় পুলিশ স্মৃতিসৌধে শীর্ষ পুলিশ ও আধাসামরিক বাহিনীর কমান্ডারদের সম্বোধন করে শাহ বলেন, “উত্তর-পূর্বে, আমরা সশস্ত্র বাহিনীকে বিশেষ ক্ষমতা বাড়িয়ে দিয়েছি। যার ফলে এসব এলাকায় হিংসার ঘটনা ৭০ শতাংশ কমেছে”।

তিনি বলেন, “সারা দেশে পুলিশ এবং আধাসামরিক কর্মীদের আত্মত্যাগের কারণেই ভারত উন্নয়নের পথে এগিয়ে চলেছে”। পুলিশ কর্মীদের আশ্বস্ত করে তিনি বলেন, “দেশের জন্য প্রাণ দেওয়া সৈনিকদের আত্মত্যাগ বৃথা যাবে না। কেন্দ্রীয় সরকার প্রতিটি পদক্ষেপে দেশের নিরাপত্তা নিশ্চিত করবে”। দেশের অভ্যন্তরীণ নিরাপত্তা এবং দেশের সীমানা রক্ষার জন্য সারাদেশের পুলিশ বাহিনী এবং সিএপিএফ-এর ৩৫ হাজারেরও বেশি কর্মী তাদের সর্বোচ্চ ‘আত্মত্যাগ’ করেছেন। তিনি বলেন, ” জীবনের বিনিময়ে তাঁরা দেশকে রক্ষা করেছেন। সারা দেশের মানুষ তাদের এই আত্মত্যাগকে মনে রাখবে”।

আরও পড়ুন : [ সম্পত্তি নিয়ে বিবাদের জেরেই ভুয়ো গণধর্ষণের অভিযোগ, তদন্তে নেমে চোখ কপালে পুলিশের ]

করোনার সময় পুলিশ গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করেছে- শাহ
আজকের ভাষণে, শাহ বলেন, ‘বামপন্থী চরমপন্থা (এলডব্লিউই) প্রভাবিত রাজ্যগুলিতে, এখন একলব্য স্কুলগুলিতে জাতীয় সংগীত গাওয়া হয় এবং জাতীয় পতাকা উত্তোলন করা হয়। শাহ আরও বলেন, “সারা দেশে পুলিশ এবং আধাসামরিক কর্মীদের আত্মত্যাগের কারণেই ভারত উন্নয়নের পথে এগিয়ে চলেছে। এই কর্মীদের প্রতি শ্রদ্ধা জানিয়ে শাহ বলেছিলেন যে তারা কোভিড মহামারী কালে অগ্রণী ভূমিকা পালন করেছে। তাদের সেই অবদান দেশ মনে রেখেছে।

স্বাধীনতার পর দেশ রক্ষায় প্রাণ হারানো পুলিশ কর্মীদের স্মরণে পালিত হয় ‘পুলিশ স্মৃতি দিবস’। ১৯৫৯ সালে শুরু হয় ‘জাতীয় পুলিশ স্মৃতি দিবস’। লাদাখের হট স্প্রিংস এলাকায়, এটি ১০ ​​জন সেন্ট্রাল রিজার্ভ পুলিশ ফোর্স (সিআরপিএফ) সৈন্যদের স্মরণে এই দিনটি পালিত হয়। যারা চিনা আক্রমণের প্রতিশোধ নেওয়ার সময় প্রাণ হারিয়েছিলেন।

তিনি আরও বলেন, “দেশের বেশিরভাগ সন্ত্রাস-হটস্পট আজ শান্তির দিকে এগোচ্ছে। বহু বছর আগে, যখন সিআরপিএফ চিনা সৈন্যদের ধূলিসাৎ করেছিল, সেই দিনেই পুলিশ মেমোরিয়াল ডে-র প্রক্রিয়া শুরু হয়েছিল এবং এই প্রক্রিয়া আজ অবধি চলছে। দেশের অভ্যন্তরীণ নিরাপত্তার জন্য পুলিশ অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ দায়িত্ব পালন করে চলেছে ।

শাহ আরও বলেন, সন্ত্রাস, বিপর্যয় ও জনসাধারণের নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে পুলিশের ভূমিকা সবসময়ই গুরুত্বপূর্ণ। সাম্প্রতিক কালে, কোভিডের সময় পুলিশ গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করেছে। মানুষকে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হোক বা লকডাউনের নিয়ম কার্যকর করা হোক। পুলিশের এই অবদান সারা দেশ মনে রাখবে। তিনি আরও বলেন, আজ বামপন্থী এলাকায় একলব্য স্কুলে ভারতের তেরঙ্গা উত্তোলন করা হচ্ছে, এটা মোদী সরকারের সাফল্য।

Stay updated with the latest news headlines and all the latest General news download Indian Express Bengali App.

Web Title: Security situation improved in ne jk lwe areas in last 8 years hm amit shah