scorecardresearch

বড় খবর

গেরুয়া শিবিরে চরম অস্বস্তি, বিজেপির হয়ে লড়তে নারাজ শিখা-তরুণ

বিজেপি তাঁদের সঙ্গে কোনও কথা না বলেই প্রার্থী হিসাবে নাম ঘোষণা করেছেন বলে অভিযোগ এই দু’জনের।

ফাইল ছবি।

প্রার্থী ঘোষণার ফের মুখ পুড়লো বিজেপির। নাম ঘোষণা হলেও পদ্ম পতাকায় লড়তে রাজি নন কলকাতায় দুই কেন্দ্রে প্রার্থী। বিজেপির হয়ে হয়ে ভোট ময়দানে নামতে নারাজ চৌড়ঙ্গির প্রার্থী শিখা মিত্র ও বেলগাছিয়া-কাশীপুরের তরুণ সাহা।

বৃহস্পতিবার দিল্লির বিজেপি কার্যালয় থেকে ১৪৮ বিধানসভা আসনের প্রার্থী তালিকা ঘোষণা করা হয়। তালিকায় প্রার্থীদের নাম ঘিরে একাধিক চমক রয়েছে। চৌরঙ্গি কেন্দ্রের প্রার্থী হিসাবে প্রয়াত কংগ্রেস নেতা সোমেন মিত্রের স্ত্রী শিখা মিত্রের নাম ঘোষণা করা হয়। যদিও তিনি ভোটে দাঁড়াচ্ছেন না বলে জানিয়েছেন। কলকাতার বৌবাজার কেন্দ্রের প্রাক্তন বিধায়কের দাবি, তিনি এখনও বিজেপিতে যোগও দেননি। তাঁর সঙ্গে কোনও আলোচনা না করেই প্রার্থী হিসাবে নাম ঘোষণা করা হয়েছে। সম্পূর্ণ বিষয়টিকেই ‘ভুয়ো’ বলে দাবি করেছেন শিখাদেবী।

এক ভিডিও বার্তায় শিখা মিত্র জানিয়েছেন, ‘আমি বিজেপির হয়ে দাঁড়াচ্ছি না। সম্পূর্ণ ভুয়োভাবে আমার নাম ঘোষণা করা হল। এটা আদৌ বিশ্বাসযোগ্য না। নিজেই বলছি, আমি কোথাও ভোটে দাঁড়াচ্ছি না।’

এদিকে এদিন প্রকাশিত বিজেপির তালিকায় কাশীপুর-বেলগাছিয়ার প্রার্থী হিসাবে করুণ সাহার নাম ঘোষণা করা হয়। তরুণবাবু ওই কেন্দ্রেরই বিদায়ী তৃণমূল বিধায়ক মালা সাহার স্বামী। কলকাতা পুরসভার বোরো-২ য়ের চেয়ারম্যানও ছিলেন। কিন্তু গেরুয়া শিবিরের হয়ে তিনিও ভোট ময়দানে নেই বলে জানিয়ে দিয়েছেন। সংবাদ মাধ্যমকে তরণ সাহা বলেছেন, ‘আমি বিজেপির হয়ে ভোটে লড়ছি না। আমিতো বিজেপিতে যোগদান করিনি। আমার সঙ্গে প্রার্থী হওয়া নিয়ে কোনও কথা হয়নি। আমি তৃণমূলেই রয়েছি। তৃণমূল প্রার্থী অতীন ঘোষের হয়ে প্রচার করছি।’

দ্বিতীয় দফার প্রার্থী তালিকা ঘোষণা হতেই বিজেপির হেস্টিংস কার্যালয়ের সামনে দলীয় কর্মীদের বিক্ষোভ আছড়ে পড়েছে। নেতৃত্বকে ঘিরেও চলেছে স্লোগান, প্রার্থী বদলের দাবি। পদ্ম বাহিনীর আদি-নব্য বিবাদ গভীরভাবে প্রকট হয়েছে। এমনকী দলীয় কর্মীদের বিক্ষোভ প্রশমনে খোদ অমিত শাহ-জেপি নাড্ডারা সোমবার গভীর রাত পর্যন্ত কলকাতায় বৈঠক সেরেছেন। তার মধ্যেই তৃতীয় দফার প্রার্থী তালিকা ঘিরেও নেতা-কর্মীদের অসন্তোষ দানা বেঁধেছে। প্রার্থী বদলের দাবিতে বিভিন্ন জেলায় চলছে প্রতিবাদ। জলপাইগুড়ি, মালদহ, দুর্গাপুর, কল্যাণীতে বিজেপি কার্যালয়ে তালা লাগিয়ে দিয়েছেন গেরুয়া কর্মীরা।

একুশের ভোট বাংলা দখলই বিজেপির লক্ষ্য। লক্ষ্ণীবারেই রাজ্যে সভা করেছেন প্রধানমন্ত্রী। কিন্তু সেদিনই প্রার্থী নিয়ে ফের অসন্তোষের ছবি ধরা পড়ল পদ্ম ব্রিগেডে। যা ভোটের আগে বিড়ম্বনা বাড়াচ্ছে বিজেপির।

Stay updated with the latest news headlines and all the latest General news download Indian Express Bengali App.

Web Title: Shikha mitra and tarun saha is not willing to contest for the bjp west bengal election 2021