scorecardresearch

বড় খবর

লখিমপুর-কাণ্ডে ৫ হাজার পাতার চার্জশিট! মন্ত্রী পুত্র-সহ ১৪ জনের নাম

Lakhimpur Kheri Violence: খুন এবং খুনের চেষ্টার ধারা-সহ একাধিক ধারায় ১৪ জনকে অভিযুক্ত করা হয়েছে চার্জশিটে। যুক্ত করা হয়েছে বেআইনি আগ্নেয়াস্ত্রের ধারাও।

Lakhimpur Kheri, SIT Probe, farmers Killing
মূল অভিযুক্ত লখিমপুর খেড়ি জেলে বন্দি।

Lakhimpur Kheri Violence: কেন্দ্রীয় মন্ত্রীর ছেলে আশিস মিশ্র-সহ ১৪ জনকে অভিযুক্ত করে লখিমপুর-কাণ্ডে চার্জশিট পেশ। সোমবার লখিমপুরের এক আদালতে ৫ হাজার পাতার এই চার্জশিট পেশ করে সিট। খুন এবং খুনের চেষ্টার ধারা-সহ একাধিক ধারায় ১৪ জনকে অভিযুক্ত করা হয়েছে চার্জশিটে। যুক্ত করা হয়েছে বেআইনি আগ্নেয়াস্ত্রের ধারাও। এই মামলার এক তদন্তকারী আধিকারিক সংবাদ মাধ্যমকে এই তথ্য দিয়েছেন।

ইতিমধ্যে এই ঘটনায় গ্রেফতার হয়ে জেলবন্দি মন্ত্রী অজয় মিশ্রের ছেলে আশিস মিশ্র।  পাশাপাশি তথ্য-প্রমাণ লোপাটে অভিযুক্ত বীরেন্দ্র শুক্লর নাম আছে চার্জশিটে। যদিও তাঁকে এখনও গ্রেফতার করতে পারেনি সিট। এছাড়াও অঙ্কিত দাস নামেও একজনকে অভিযুক্ত দেখানো হয়েছে চার্জশিটে। ইতিমধ্যে হাইকোর্টে আশিস মিশ্রের জামিনের আবেদন বিবেচনাধীন।

এদিকে, লখিমপুর খেড়ি-কাণ্ড পরিকল্পিত ষড়যন্ত্র। গত মাসে কোর্টে পেশ করা রিপোর্টে এই দাবি করেছিল বিশেষ তদন্তকারী দল বা সিট। স্থানীয় এক আদালতে জমা করা রিপোর্টে উল্লেখ, ‘গাফিলতি বা অসতর্কতার জন্য নয়। বরং খুনের উদ্দেশ্য নিয়েই এই ঘটনা ঘটানো হয়েছে।’ এই ঘটনায় মূল অভিযুক্ত কেন্দ্রীয় মন্ত্রীর ছেলে আশীষ মিশ্র লখিমপুর খেড়ি জেলে বন্দি। সিটের পেশ করা রিপোর্ট প্রসঙ্গে সরকারি আইনজীবী এসপি যাদব বলেন, ‘আদালতে বিশেষ তদন্তকারী দল খুন, অস্ত্র আইন এবং অপরাধের উদ্দেশ্য ধারায় ১৩ অভিযুক্তের বিরুদ্ধে চার্জ গঠন করতে বলছে। যদিও এখনও কোনও সিদ্ধান্ত নেয়নি আদালত।’

গত বছর, লখিমপুর কাণ্ডে ধৃত কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী অজয় মিশ্রের ছেলে আশিস সম্প্রতি ডেঙ্গুতে আক্রান্ত হয়েছিলেন। পুলিশ হেফাজতে থাকা অবস্থাতেই অসুস্থ হয়ে পড়েন তিনি। গত অক্টোবরে আশিসের ডেঙ্গু হওয়ার কথা জানিয়েছিল পুলিশ। আপাতত আশঙ্কার কিছু নেই বলে জানিয়েছিল পুলিশ।

সেই সময় তদন্তে জেরার জন্য আশিসকে পুলিশ হেফাজতে রাখার নির্দেশ দিয়েছিল আদালত। পুলিশ হেফাজতেই ডেঙ্গু হয় তাঁর। রক্ত পরীক্ষার পর দেখা যায় তাঁর শরীরে প্লেটলেট কমেছে। তড়িঘড়ি পুলিশ তাঁকে জেলা সংশোধনাগারে নিয়ে যায় সেখানকার হাসপাতালে চিকিৎসার জন্য। ওখানেই এখন চিকিৎসাধীন ছিলেন আশিস, জানিয়েছিলেন অতিরিক্ত পুলিশ সুপার অরুণ কুমার সিং।

এর আগে লখিমপুর কাণ্ডে তিকোনিয়ার ঘটনাস্থলে নিয়ে গিয়ে নাট্য রূপান্তর করে পুলিশ। ৩ অক্টোবর কী হয়েছিল তা জানতে পুলিশ সেখানে আশিস-সহ বাকি ধৃতদের নিয়ে যায়।

২৯ সেকেন্ডের ভয়াবহতা! সামান্য সময়ের মধ্যেই উত্তরপ্রদেশের লখিমপুরে শরতের এক দুপুরে কেন্দ্রীয় মন্ত্রীর এসইউভি পিষে দেয় বিক্ষোভরত কৃষকদের। তাতে চারজনের মৃত্যু হয়। সেই ভয়াবহ ভিডিও প্রকাশ্যে এনেছিল কংগ্রেস। ভিডিও টুইট করে তাদের দাবি, ইচ্ছাকৃতভাবে কৃষকদের পিষে দেয় মন্ত্রীর গাড়ি।

ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস বাংলা এখন টেলিগ্রামে, পড়তে থাকুন

Stay updated with the latest news headlines and all the latest General news download Indian Express Bengali App.

Web Title: Sit files charge sheet over lakhimpur kheri accusing ministers son and 13 others national