scorecardresearch

বড় খবর

কোর্স অসমাপ্ত, ভবিষ্যত নিয়ে উদ্বেগে ইউক্রেন থেকে আগত পড়ুয়ারা

ইউক্রেনে ডাক্তারি পড়তে লাগে ৪-৫ লক্ষ টাকা। যা প্রায় তিনগুণ কম। ফলে ইউক্রেনকেই প্রথম পছন্দ হিসাবে বেছে নেন পড়ুয়ারা।

ফিরেছেন ইউক্রেন থেকে ডাক্তারি পড়ুয়া

রাশিয়া ইউক্রানের হামলার মাঝে পড়ে ২০হাজার ভারতীয় মেডিক্যাল পড়ুয়ার ভবিষ্যত অন্ধকারে। কী করবেন ভেবে উঠতে পারছেন না তারা। ইতিমধ্যেই অপারেশন গঙ্গার অধীনে যুদ্ধ-বিধ্বস্ত ইউক্রেন থেকে বাড়ি ফিরছে প্রায় সাড়ে ছ’হাজার পড়ুয়া। বিদেশ মন্ত্রকের তরফে জানানো হয়েছে আগামী দু’দিনের মধ্যেই আরও সাড়ে সাত হাজার পড়ুয়াকে দেশে ফিরিয়ে নিয়ে আসা হবে। যাদের দেশে ফেরানো হয়েছে যারা ইতিমধ্যেই দেশে ফিরে এসেছেন সকলেই মেডিক্যাল পড়ুয়া। কেউ শেষ বর্ষে ছাত্র অথবা কারুর কোর্স শেষ হবে বাকী হয়ত বা দু বছর। এই সকল পড়ুয়ার ভবিষ্যত কী হবে তা নিয়ে চিন্তায় রাতের ঘুম উড়েছে অভিভাবকদের।

এই মুহুর্তে কেন্দ্রের প্রথম কাজ অবশ্যই ভারতীয় পড়ুয়াদের উদ্ধারের কাজকে অগ্রাধিকার দিতে হবে তেমনই পড়ুয়াদের ভবিষ্যতের বিষয়টিও অগ্রাধিকার দেওয়া জরুরী। প্রশ্ন উঠেছে কেন ভারত থেকে হাজার হাজার পড়ুয়া ইউক্রেনে যান প্রতিবছর ডাক্তারি পড়তে। ইউক্রেনের শিক্ষা এবং বিজ্ঞান মন্ত্রকের তথ্য অনুসারে, ১৮ হাজার ৯৫ জন ভারতীয় পড়ুয়ারা বর্তমানে সে দেশে রয়েছেন। এদের মধ্যে বেশিরভাগই এমবিবিএস পড়তে গিয়েছেন। 

এ বিষয়ে জলন্ধরের এক শিক্ষা পরামর্শবিদ (education consultant) জানিয়েছেন ভারতের মতো এত প্রতিযোগিতা নেই ইউক্রেনে। ফলে সেখানে চিকিৎসাবিজ্ঞান খুব সহজেই পড়া যায়। বাইরের ডিগ্রি থাকলে তার গুরুত্ব বেশি হয়। ফলে পরবর্তী পড়াশুনোর ক্ষেত্রে তা লাভদায়ক ভূমিকা পালন করে। এছাড়াও ইন্ডিয়ান মেডিকেল কাউন্সিল, ওয়ার্ল্ড হেলথ কাউন্সিল -প্রতিষ্ঠানগুলি ইউক্রেনের এই এমবিবিএস ডিগ্রিকে মান্যতা দেয়। আরও একটি কারণ হল-কম খরচ। ভারতে আধা সরকারি প্রতিষ্ঠানে ডাক্তারি পড়তে ৫ বছরে ১০ থেকে ১২ লক্ষ টাকা খরচ হয়৷ বেসরকারিতে তা প্রায় ৫০ লক্ষ টাকা। আর সরকারি হলে বছরে ২ লক্ষ। কিন্তু প্রতিযোগিতা অত্যন্ত কঠিন। সকলে সুযোগ পায় না। আর ইউক্রেনে ডাক্তারি পড়তে লাগে ৪-৫ লক্ষ টাকা। যা প্রায় তিনগুণ কম। ফলে ইউক্রেনকেই প্রথম পছন্দ হিসাবে বেছে নেন পড়ুয়ারা।

আরো পড়ুন:আগামী দু’দিনে ফেরানো হবে ৭,৪০০ পড়ুয়াকে, জানাল বিদেশমন্ত্রক

ইউক্রেনে এমবিবিএস কোর্সে ভর্তির জন্য শিক্ষার্থীদের শুধু NEET-এর যোগ্যতা অর্জন করতে হবে। সেখানে স্কোর খুব একটা জরুরী বিষয় নয়।একজন ছাত্র বলেছেন ন্যাশনাল এলিজিবিলিটি কাম এন্ট্রান্স টেস্টে প্রতিবছর যত সংখ্যক ছাত্র ছাত্রী অংশ নেয় তা মোট আসন সংখ্যার তুলনায় কয়েকগুণ। সেই অনুপাতে ইউক্রেনে ডাক্তারি পড়ার সুযোগ অনেক সহজ। অন্য একজন ছাত্র বলেছিলেন যে ইউক্রেনে মেডিকেল কলেজগুলির ভাল পরিকাঠামো রয়েছে। সেই সঙ্গে সেখানকার কোর্স বিশ্বব্যাপী স্বীকৃত। তাই পড়ুয়াদের কাছে প্রিয় জায়গা ইউক্রেন’।

এবিষয়ে কী জানিয়েছে বিশ্বস্বাথ্য সংস্থা? WHO জানিয়েছে ভারতে প্রায় ১.৮ মিলিয়ন ডাক্তার এবং স্বাস্থ্যকর্মী প্রয়োজন। তুলনায় ভারতে এই মুহূর্তে ডাক্তার এবং স্বাস্থ্যকর্মীর সংখ্যা ১.২ মিলিয়ন। যা প্রয়োজনেরতুলনায় অনেক কম। সেই সঙ্গে বিশ্বস্বাস্থ্য সংস্থার পরামর্শ ভারতে সরকারী স্তরে আরও আসন বাড়ানোর, কারণ প্রতিবছর ডাক্তারি আসনের তুনলনায় প্রায় চার থেকে পাঁচগুন পড়ুয়া এন্ট্রাস পরীক্ষায় অংশ নেয়। ফলে সুযোগ না পেয়ে অনেকেই বাইরে ডাক্তারি পড়তে যান। তবে ফিরে আসা পড়ুয়াদের জন্য সরকারের সুর্নিদিষ্ট পদক্ষেপ গ্রহণ প্রয়োজন বলেই মনে করছেন শিক্ষাবিদরা

Stay updated with the latest news headlines and all the latest General news download Indian Express Bengali App.

Web Title: Students returning from ukraine must not be left in lurch govts must find a way for their education to continue