scorecardresearch

বড় খবর

কর্ণাটক হিজাব মামলায় আজই রায়দান সুপ্রিম কোর্টের, গোটা দেশের নজর সর্বোচ্চ আদালতে

বিচারপতি হেমন্ত গুপ্ত এবং সুধাংশু ধুলিয়ার একটি ডিভিশন বেঞ্চ আজ শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে হিজাব নিষিদ্ধ সংক্রান্ত মামলায় রায় দান করবেন।

কর্ণাটক হিজাব মামলায় আজই রায়দান সুপ্রিম কোর্টের, গোটা দেশের নজর সর্বোচ্চ আদালতে
কর্ণাটক হিজাব মামলায় আজই রায়দান সুপ্রিম কোর্টের

কর্ণাটকের শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে হিজাব নিষিদ্ধ সংক্রান্ত মামলায় আজ রায় দেবে সুপ্রিম কোর্ট। বিচারপতি হেমন্ত গুপ্ত এবং সুধাংশু ধুলিয়ার একটি ডিভিশন বেঞ্চ আজ শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে হিজাব নিষিদ্ধ সংক্রান্ত মামলায় রায় দান করবেন। এর আগে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে হিজাবের নিষেধাজ্ঞা বহাল রাখার নির্দেশ দিয়েছিল কর্ণাটক হাইকোর্ট। সেই নির্দেশকে চ্যালেঞ্জ করে সুপ্রিম কোর্টে আবেদন দায়ের হয়েছে। সর্বোচ্চ আদালতের তরফে কর্ণাটক সরকারকে একটি নোটিসও দেওয়া হয়।যদিও কর্ণাটক হাইকোর্টের রায়ের ওপর কোন স্থগিতাদেশ জারি করা হয়নি।  কর্ণাটক হাইকোর্টের রায়ের বিরুদ্ধে সুপ্রিম কোর্টে বেশ কয়েকটি আবেদন দাখিল হয়েছে।

কর্ণাটক হাইকোর্ট রায় দিয়েছিল শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে হিজাব পরা অপরিহার্য ধর্মীয় অনুশীলন নয়। কেবল অপরিহার্য ধর্মীয় আচরণই সংবিধানের ২৫ নম্বর অনুচ্ছেদের অধীনে সুরক্ষা পেতে পারে। আর, এই ইস্যুতেই কর্ণাটক হাইকোর্ট উদুপির মুসলিম পড়ুয়াদের ক্লাসে হিজাব পরার আবেদন খারিজ করে দেয়।

প্রসঙ্গত, হিজাব বিতর্ক নিয়ে কর্ণাটক হাই কোর্টের রায়ে অসন্তুষ্ট হয়ে সুপ্রিম কোর্টে দ্বারস্থ হয়েছিলেন মামলাকারীরা। কর্ণাটক হাই কোর্ট এর আগে রায় দেয়, হিজাব মুসলিমদের জন্য বাধ্যতামূলক নয়। সেই ক্ষেত্রে স্কুল বা কলেজের ইউনিফর্ম মেনেই পড়ুয়াকে শ্রেণিকক্ষে ঢুকতে হবে। এই রায়কে চ্যালেঞ্জ জানিয়ে পড়ুয়ারা শীর্ষ আদালতের দ্বারস্থ হন। অল ইন্ডিয়ান মুসলিম পার্সোনাল ল বোর্ড-এর তরফেও কর্ণাটক হাইকোর্টের আদেশের বিরুদ্ধে সুপ্রিম কোর্টে আপিল করে। তারা দাবি করে পবিত্র কোরানের মুসলিম মহিলাদের হিজাব পরা বাধ্যতামূলক। তাদের দাবি পবিত্র কোরান ও ইসলামিক আইনের ভুল ব্যাখ্যার উপরে ভিত্তি করেই এই রায়দান করা হয়েছে।

আরও পড়ুন: [ আরও কঠোর প্রশাসন! কাশির সিরাপ তদন্তে চার সদস্যের কমিটি গড়ল কেন্দ্র ]

এর আগে হিজাব বিতর্কে উত্তাল হয়ে উঠেছিল গোটা কর্ণাটক। রাজ্যের বিভিন্ন প্রান্তে বিক্ষোভ দেখিয়েছেন মুসলিম পড়ুয়ারা। এনিয়ে দীর্ঘদিন কর্ণাটক জুড়ে অশান্তি চলছিল। রাজ্যের বিভিন্ন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানগুলো বন্ধ ছিল। বহু শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানেই পুলিশের সঙ্গে ধস্তাধস্তিতে জড়িয়ে পড়েছেন পড়ুয়ারা। বিক্ষোভ ঠেকাতে বহু ব্যক্তিকে গ্রেফতারও করা হয়েছে। এই বিক্ষোভের পিছনে সাম্প্রদায়িক শক্তি এবং বহিরাগত শক্তির মদত রয়েছে বলে অভিযোগ করেছে কর্ণাটকের শাসক দল বিজেপি।

পরিস্থিতি উত্তপ্ত থাকায় দীর্ঘদিন কর্ণাটকের বিভিন্ন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে পঠনপাঠন বন্ধ ছিল। পাশাপাশি, এই বিক্ষোভ শুধু কর্ণাটকে সীমাবদ্ধ থাকেনি। অন্যান্য রাজ্যেও কমবেশি ছড়িয়ে পড়েছিল। এই পরিস্থিতিতে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে হিজাব পরা সংবিধানের ২৫ নম্বর অনুচ্ছেদের অধীনে সুরক্ষিত বলে দাবি করেন সংখ্যালঘু পড়ুয়ারা। যা নিয়ে আদালতে দীর্ঘদিন মামলা চলে। সেই মামলাতেই শেষ পর্যন্ত কর্ণাটক হাইকোর্ট জানিয়ে দেয়, শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে হিজাব পরা অপরিহার্য নয়।

Stay updated with the latest news headlines and all the latest General news download Indian Express Bengali App.

Web Title: Supreme court judgment on karnataka hijab ban today