scorecardresearch

অপরাধ প্রক্রিয়ার দুষ্টচক্রে আটকে মহম্মদ জুবের, পর্যবেক্ষণ সুপ্রিম কোর্টের

গত ২০ জুলাই শীর্ষ আদালত জুবেরের জামিনের আবেদন মঞ্জুর করেছে।

অপরাধ প্রক্রিয়ার দুষ্টচক্রে আটকে মহম্মদ জুবের, পর্যবেক্ষণ সুপ্রিম কোর্টের

আগেই মহম্মদ জুবেরের মামলার তদন্ত উত্তরপ্রদেশ থেকে দিল্লিতে সরিয়ে নিয়ে এসেছিল সুপ্রিম কোর্ট। এবার একধাপ এগিয়ে শীর্ষ আদালতের পর্যবেক্ষণ, ‘অপরাধ প্রক্রিয়ার দুষ্টচক্র আটকে’ মহম্মদ জুবের। এপ্রসঙ্গে সুপ্রিম কোর্ট বলেছে, ‘বিভিন্ন এফআইআরে একই টুইটে একইরকম অপরাধ হয়েছে। তা সত্ত্বেও, আবেদনকারীকে সারা দেশে একাধিক তদন্তের শিকার হতে হয়েছে।’

অল্ট নিউজের সহ-প্রতিষ্ঠাতা মহম্মদ জুবেরের বিরুদ্ধে দেশজুড়ে একাধিক অভিযোগ দায়ের হয়েছে। অথচ, সেই সব অভিযোগ দায়ের হয়েছে একই টুইটের বিরুদ্ধে বা তার ওপর ভিত্তি করে। আর, সেই কারণেই শীর্ষ আদালত জুবেরের বিরুদ্ধে সব মামলগুলো একত্রিত করার নির্দেশ দিয়েছে। জুবেরকে জামিন দেওয়ার নির্দেশ দিয়ে বলেছে, ‘ফৌজদারি বিচারের যন্ত্রপাতি আবেদনকারীর বিরুদ্ধে নিরলসভাবে প্রয়োগ করা হয়েছে। সেই কারণেই আবেদনকারী অপরাধমূলক প্রক্রিয়ার এমন একটি দুষ্টচক্রে আটকা পড়েছে, যেখানে প্রক্রিয়াটি নিজেই শাস্তি হয়ে উঠেছে।’

গত ২০ জুলাই শীর্ষ আদালত জুবেরের জামিনের আবেদন মঞ্জুর করেছে। তবে, এই মামলার বিস্তারিত রায়ের কপি সোমবার বেলার দিকে প্রকাশিত হয়েছে। বিচারপতি ডিওয়াই চন্দ্রচূড়, বিচারপতি এএস বোপান্নার বেঞ্চ জানিয়েছ, গ্রেফতারের ক্ষমতা অবশ্যই সংক্ষিপ্ত আকারে ব্যবহার করা উচিত। অর্ণেশ কুমার মামলায় শীর্ষ আদালতের দেওয়া রায় ও নির্দেশিকাগুলো অন্যান্য মামলার ক্ষেত্রেও কঠোরভাবে অনুসরণ করা উচিত।

আরও পড়ুন- ভারতের সঙ্গে জুড়বে পাকিস্তান-বাংলাদেশ, ‘অখণ্ড ভারত’ স্বপ্নে বিভর মুখ্যমন্ত্রী

আদালতের পর্যবেক্ষণ, একই টুইটে একই অপরাধ হওয়ার পরও দেশজুড়ে মামলা হওয়ায় মহম্মদ জুবেরকে সারা দেশে একাধিক তদন্তের মুখে পড়তে হয়েছে। ফলে তাঁকে বিভিন্ন জায়গায় একাধিক আইনজীবী নিয়োগ করতে হবে। একাধিক জামিনের আবেদন জমা দিতে হবে। তদন্তের স্বার্থে একাধিক রাজ্যের একাধিক জেলায় ঘুরতে হবে। একাধিক আদালতের বিচারপ্রক্রিয়ায় মুখে পড়তে হবে। বিভিন্ন আদালতে নিজেকে নির্দোষ প্রমাণ করতে হবে। আর, এই সবই করতে হবে একই অভিযোগের জন্য।

আর, সেই কারণেই আদালতের পর্যবেক্ষণ, ‘তিনি অপরাধমূলক প্রক্রিয়ার একটি দুষ্ট চক্রে আটকা পড়েছেন। এমন একটি চক্রে, যেখানে প্রক্রিয়াটি নিজেই শাস্তি হয়ে উঠেছে। আরও দেখা গিয়েছে, ২০২১ থেকে কিছু পুরনো এফআইআর সক্রিয় করা হয়েছে। সঙ্গে আরও নতুন কিছু এফআইআর যুক্ত হয়েছে। যার ফলে আবেদনকারীর প্রতিটি তদন্তে সহায়তা করা সমস্যাজনক হয়ে উঠেছে।’

Read full story in English

Stay updated with the latest news headlines and all the latest General news download Indian Express Bengali App.

Web Title: Supreme court says zubair trapped in a vicious cycle of the criminal process