বড় খবর

‘সুশান্তের জীবনে কিছু একটা হতে চলেছে’, মৃত্যুর চার মাস আগে পুলিশকে ফোন পরিবারের

মুম্বাইয়ের পুলিশ সুপারের কথায় চার মাসে আগে সুশান্তের পরিবারের তরফে কোনও লিখিত অভিযোগ জমা পড়েনি থানায়।

সুশান্ত সিং রাজপুত।

এমন মৃত্যুর সাক্ষী কখনই হতে হয়নি বলিউডকে। সুশান্ত সিং রাজপুতের মৃত্যুর দু’মাস কেটে গেলেও বিতর্ক পিছু ছাড়ল না। একের পর এক অভিযোগে নয়া মোড় নিচ্ছে সুশান্ত মৃত্যু তদন্ত। জানা গিয়েছে অভিনেতার জামাইবাবু তথা পুলিশ অফিসার ও পি সিং সুশান্তের মৃত্যুর চার মাস আগে মুম্বাই পুলিশের উচ্চপদস্থ কর্তাকে মেসেজ পাঠিয়েছিলেন সুশান্তের জীবনে কিছু একটা ঘটতে চলেছে এই মর্মে।

পুলিশ সূত্রের খবর পরিবারের তরফ থেকে আশংকা করা হয়েছিল সুশান্তের জীবনের ঝুঁকি রয়েছে। মেসেজটিতে এও বলা হয়েছিল যে “অভিনেতাকে এক দল ধান্দাবাজ দল ঘিরে রেখেছে।” রাজপুতের বাবা কে কে সিং আগেই বলেছিলেন যে অভিনেতা রিয়া চক্রবর্তীর বিরুদ্ধে অভিযোগ নিয়ে তিনি বিহার পুলিশের কাছে পৌঁছেছিলেন। তিনি বলেন, মুম্বাই পুলিশের কাছে ফেব্রুয়ারির প্রথম দিকে যে অভিযোগ পাঠানো হয়েছিল সেগুলিতে কাজ হয়নি।

দ্য ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস যে স্ক্রিন শট দেখেছে সেখানে ডিসিপি জোন নাইনের পুলিশ সুপার দাহিয়কে রিয়া চক্রবর্তীর নাম নিয়ে আশংকা প্রকাশ করেছিলেন ও পি সিং। সেখানে সুশান্তের জামাইবাবু সাফ লেখেন যে সুশান্তকে নিয়ে কোনও চক্রান্ত করা হচ্ছে। এমনকী তাঁকে “মানসিকভাবে, শারীরিকভাবে ক্ষতি করার চেষ্টা করা হচ্ছে বলেও অভিযোগ করা হয়।”

যদিও মুম্বাইয়ের পুলিশ সুপারের কথায় চার মাসে আগে সুশান্তের পরিবারের তরফে কোনও লিখিত অভিযোগ জমা পড়েনি থানায়। তাই কোনওরকম পদক্ষেপ নিতে পারেনি পুলিশ। তিনি বলেন, “আমি ও পি সিং-কে জানিয়েছিলাম যে সরকারিভাবে লিখিত অভিযোগ না পেলে রিয়া চক্রবর্তীকে ডাকা সম্ভব নয়। যদি মেসেজের ভিত্তিতে থানায় ডাকা হয় তবে তা বেআইনি হবে।”

Read the story in English

ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস বাংলা এখন টেলিগ্রামে, পড়তে থাকুন

Get the latest Bengali news and General news here. You can also read all the General news by following us on Twitter, Facebook and Telegram.

Web Title: Sushant singh four months before death kin told police his life was at risk

Next Story
পদত্যাগ জম্মু-কাশ্মীরের লেফটেনেন্ট গর্ভনর মুর্মুর, দায়িত্ব পেলেন মনোজ সিনহা
The moderation of comments is automated and not cleared manually by bengali.indianexpress.com