scorecardresearch

বড় খবর

গুজরাটে নদীতে ভেঙে পড়ল কেবল ব্রিজ, মৃত অন্তত ৬০ জন, নিখোঁজ বহু

চার দিনে আগে মেরামতি করা সেতুটি ফিটনেস সার্টিফিকেট ছাড়াই রবিবার জনসাধারণের জন্য খুলে দেওয়া হয়েছিল।

গুজরাটে নদীতে ভেঙে পড়ল কেবল ব্রিজ, মৃত অন্তত ৬০ জন, নিখোঁজ বহু

মোদীর রাজ্য গুজরাটে মেরামতির চার দিনের মধ্যেই ভেঙে পড়ল সেতু। এই ঘটনায় অন্ততপক্ষে ৬০ জনের মৃত্যু হয়েছে। তার মধ্যে ২৫ জন শিশু। আহত হয়ে হাসপাতালে চিকিৎসাধীন বহু। এমনটাই জানিয়েছেন গুজরাট সরকারের মন্ত্রী ব্রিজেশ মারজা। রবিবার সন্ধ্যা সাড়ে ৬টা নাগাদ ১৫০ জনকে নিয়ে মাচ্ছু নদীতে ব্রিজটি ভেঙে পড়ে। নিখোঁজদের খোঁজ পেতে নদীতে তল্লাশি শুরু হয়েছে। প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী গুজরাট সফরে গিয়েছেন। তার মধ্যেই ব্রিজটি ভেঙে পড়ল। প্রশাসন সূত্রে খবর, আহত কমপক্ষে ৭০ জনকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

সূত্রের খবর, মেরামতির পর পুরসভার ফিটনেট সার্টিফিকেট ছাড়াই মোরবির এই ব্রিজটি খোলা হয়। ১৮৭৯ সালে তৈরি এই কেবল ব্রিজ (ঝুলন্ত সেতু) মেরামতির জন্য দীর্ঘ সাত মাস বন্ধ ছিল। সামনেই গুজরাট বিধানসভা নির্বাচন। আর, রবিবার ছিল ছট পুজো। সেই কথা মাথায় রেখে মেরামতির পর ফিটনেট সার্টিফিকেট ছাড়াই ব্রিজটি জনসাধারণের জন্য খুলে দিয়েছে প্রশাসন। এমনই অভিযোগ করেছে বিরোধী দল কংগ্রেস।

অন্যতম বিরোধী আম আদমি পার্টির অভিযোগ, এই ব্রিজের মেরামতি নিয়ে দুর্নীতি হয়েছে। ঘটনায় সিবিআই তদন্ত করাতে হবে। তৃণমূল সুপ্রিমো মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ও ঘটনায় শোকপ্রকাশ করেছেন। ব্রিজটি মেরামতির নামে কত কোটি টাকা দুর্নীতি হয়েছে, প্রশ্ন তুলেছেন তৃণমূল নেতৃত্ব।

ঘটনায় উদ্বেগ প্রকাশ করেছেন গুজরাটের মুখ্যমন্ত্রী ভূপেন্দ্র প্যাটেল। তিনি সোশ্যাল মিডিয়ায় জানিয়েছেন, দ্রুতগতিতে উদ্ধারকাজ চলছে। আহতদের চিকিৎসার ব্যবস্থা করা হয়েছে। এই ব্যাপারে তাঁর নেতৃত্বাধীন রাজ্য সরকার মোরবি প্রশাসনের সঙ্গে সর্বক্ষণ যোগাযোগ রাখছে। উদ্ধারকাজ নিয়ে মুখ্যমন্ত্রী ভূপেন্দ্র প্যাটেলের সঙ্গে ফোনে কথা বলেছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীও। তিনি উদ্ধারকাজের জন্য যাবতীয় ব্যবস্থা নেওয়ার নির্দেশ দিয়েছেন।

প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে কথা বলার পর মুখ্যমন্ত্রী ভূপেন্দ্র প্যাটেল জানিয়েছেন, মৃতদের নিকটাত্মীয়কে এককালীন চার লক্ষ টাকা দেওয়া হবে। আর, প্রত্যেক আহতকে ৫০ হাজার টাকা করে দেওয়া হবে। উদ্ধারকাজ খতিয়ে দেখতে নিজে মোরবি রওনা দিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী ভূপেন্দ্র প্যাটেল। প্রধানমন্ত্রীর জাতীয় ত্রাণ তহবিল থেকেও মৃতদের পরিবারপিছু এককালীন ২ লক্ষ টাকা দেওয়ার কথা ঘোষণা করা হয়েছে। পাশাপাশি, আহতদের পিছু ৫০ হাজার টাকা করে দেওয়া হবে বলে জানানো হয়েছে। ঘটনায় শোকপ্রকাশ করেছেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহও। তিনি বলেন, ‘আমি গুজরাটের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী হর্ষ সিংভি ও অন্যান্যদের সঙ্গে কথা বলেছি। এনডিআরএফ উদ্ধারকাজ চালাচ্ছে।’ শোকপ্রকাশ করেছেন কংগ্রেস নেতা রাহুল গান্ধীও।

আরও পড়ুন- কালীপুজোর উদ্বোধনে বিদ্বেষমূলক মন্তব্যের অভিযোগ, শুভেন্দু অধিকারীর বিরুদ্ধে জামিন অযোগ্য ধারায় মামলা

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানিয়েছেন, ঘটনার সময় বহু মানুষ সেতুটির ওপর দাঁড়িয়ে ছট পুজোর কার্যকলাপ দেখছিলেন। তাঁদের ভার সহ্য করতে না-পেরেই সেতুটি ভেঙে পড়ে। স্থানীয় বিধায়ক ও গুজরাটের মন্ত্রী ব্রিজেশ মারজা এই প্রসঙ্গে বলেন, ‘সেতু ভেঙে যাওয়ার পর বহু মানুষ নদীতে পড়ে যান। এখনও উদ্ধারকাজ চলছে। বহু মানুষ আহত হয়েছেন। তাঁদের হাসপাতালে ভর্তি করানো হয়েছে।’ ব্রিটিশ জমানায় তৈরি এই ব্রিজ ‘জুলটো পুল’ নামে স্থানীয় বাসিন্দাদের কাছে পরিচিত। মোরবি অঞ্চলে পর্যটকদের আকর্ষণের অন্যতম কেন্দ্রবিন্দু ছিল এই সেতু।

Read full story in English

Stay updated with the latest news headlines and all the latest General news download Indian Express Bengali App.

Web Title: Suspension bridge collapses in gujarat