বড় খবর

নন্দীগ্রামে ‘বহিরাগত দুষ্কৃতী’দের আশ্রয় দিচ্ছেন শুভেন্দু, কমিশনে নালিশ তৃণমূলের

প্রথমে বহিরাগত দুষ্কৃতীদের বিষয়টি স্থানীয় পুলিশ প্রশানকে জানানো হলেও কাজের কাজ হয়নি বলেও অভিযোগ রাজ্যের শাসক দলের।

নন্দীগ্রামে বহিরাগাত দুষ্কৃতীদের এনে আশ্রয় দিচ্ছেন বিজেপি প্রার্থী শুভেন্দু অধিকারী। রীতিমত তথ্য প্রমাণ তুলে ধরে কমিশনে এই অভিযোগ করল তৃণমূল। অভিযোগপত্রে নন্দীগ্রাম বিধানসভা এলাকার চারটি বাড়ির ঠিকানা ও বাড়ির মালিকদের নাম তুলে ধরা হয়েছে। তৃণমূলের তরফে রাজ্যসভার সাংসদ ডেরেক ও’ব্রায়েন কমিশনে অভিযোগ দায়ের করে দ্রুত পদক্ষেপের আর্জি জানিয়েছেন।

কোন এলাকা থেকে বহিরাগতদের আনা হয়েছে, তারা কার নির্দেশে পরিচালিত হচ্ছেন, তারও উল্লেখ করা হয়েছে অভিযোগে। প্রথমে বহিরাগত দুষ্কৃতীদের বিষয়টি স্থানীয় পুলিশ প্রশানকে জানানো হলেও কাজের কাজ হয়নি বলেও অভিযোগ রাজ্যের শাসক দলের।

কমিশনে তৃণমূলের অভিযোগপত্রে উল্লেখ, রেয়াপাড়ার হাসপাতাল মোড়ের কাছে কালীপদ শীর দোতলা বাড়ি রয়েছে। সেখানেই গত ডিসেম্বর থেকে ৩০-৪০ জন যুবক রয়েছেন। যাঁদের বাড়ি কোলাঘাট, পিংলা, কাঁথি এলাকায়। এদের কাছে ১২টি বাইক ও একটি গাড়িও রয়েছে। প্রায় রোজই রেয়াপাড়া সহ সংলগ্ন এলাকায় বিজেপি প্রার্থী শুভেন্দু অধিকারীকে ঘুরে বেড়াতে দেখা যায়।

দ্বিতীয় বাড়িটি হরিপুড়ের মেঘনাদ পালের। ডেরেকের অভিযোগপথ্রে উল্লেখ, চণ্ডীপুর-নন্দীগ্রাম রোড থেকে ১ কিলোমিটার ভিতরে। তিন তলা বাড়িটি ক্যানভাস দ্বারা ঘেরা। শুভেন্দুর নির্বাচনী এজেন্ট-সহ ৪০-৫০ জন বহিরাগতকে এখানে আশ্রয় দেওয়া হয়েছে।

তৃতীয় বাড়িটি বয়াল-১ এর পরবিত্র করের। দোতলা এই বাড়িটি টেঙ্গুয়া-২ পঞ্চায়েতের তেরোপাখিরা গ্রামে অবস্থিত। এই দোতলা বাড়িতে বলরামপুর, ঝাড়ুচরণ, নরসিংহপুর, জ্যোতির্মল এবং পানিবিতান এলাকা থেকে ২০-৩০ জন রয়েছেন বলে অভিযোগপত্রে দাবি করেছে তৃণমূল।

এছাড়া বয়াল এলাকার এমএসকে অঞ্চলের ভজহরি সামন্তর বাড়িতেও ২০-৩০ জন বহিরাগতকে আশ্রয় দেওয়া হয়েছে বলে অভিযোগ তৃণমূলের।

কমিশনকে দেওয়া তৃণমূলের চিঠি

কমিশনে জডো়া-ফুল শিবিরের নালিশ প্রসঙ্গে তৃণমূল মুখপাত্র কুণাল ঘোষ বলেছেন, ‘শুভেন্দু হারবে জেনেই বহিরাগত দুষ্কৃতীকে নন্দীগ্রামে আশ্রয় দিয়েছেন। পরিষ্কার মানুষের রায়ে নয়, হিংসার পরিবেশ সৃষ্টি করেই ভোটে জয় ছিনি নেওয়া বিজেপির প্রধান লক্ষ্য।’ পাল্টা, রাজ্য বিজেপির মুখপাত্র ও গেরুয়া প্রার্থী শমীক ভট্টাচার্যের দাবি, ‘প্রচার করতে এক কেন্দ্র থেকে অন্য কেন্দ্রে মানুষ যান। এটাই বাংলার নির্বাচনী সংস্কৃতি। তবে তারা দুষ্কৃতী কিনা তা কমিশন খতিয়ে দেখবে।’

একুশের নির্বাচনে হাইভোল্টেজ লড়াই নন্দীগ্রামে। মমতার বিরুদ্ধে লড়াইয়ের ময়দানে শুভেন্দু। গত কয়েকদিন ধরেই বিজেপি প্রার্থীর প্রচার ঘিরে উত্তেজনা, হিংসার ঘটনা ঘটেছে নন্দীগ্রামে। এক্ষেক্রে একে অপরকে নিসানা করছে যুযুধান তৃণমূল-বিজেপি। তার মাঝেই নথি তুলে শুভেন্দু অধিকারীর বিরুদ্ধে বহিরাগত দুষ্কৃতীদের নন্দীগ্রামে ঠাঁই দেওয়ার যে অভিযোগ কমিশেন ডেরেকে ও’ব্রায়েন করেছেন -তাতে ভোটের উত্তেজনা কয়েকগুণ বাড়ল বলেই মনে করা হচ্ছে।

ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস বাংলা এখন টেলিগ্রামে, পড়তে থাকুন

Get the latest Bengali news and General news here. You can also read all the General news by following us on Twitter, Facebook and Telegram.

Web Title: Suvendu adhikari has sheltered non residents miscreants in nandigram tmc alleges in ec

Next Story
স্ত্রী-সন্তানের আর্জিতেও আত্মসমর্পণ নয়, কাশ্মীরে নিকেশ চার লস্কর জঙ্গি
The moderation of comments is automated and not cleared manually by bengali.indianexpress.com