scorecardresearch

মহিলা প্রতিবাদীদের ‘কুকুর’ বলে বিতর্ক জড়ালেন তেলেঙ্গানার মুখ্যমন্ত্রী, একযোগে বিরোধিতা কংগ্রেস-বিজেপির

‘যদি আপনারা থাকতে চান, তাহলে শান্তি বজায় রাখুন। অন্যদের বিরক্ত করবেন না। এই ধরনের নাটক আমরা অনেক দেখেছি।’

প্রতিবাদীদের কুকুর বলে বিতর্ক জড়ালেন তেলেঙ্গানার মুখ্যমন্ত্রী কে চন্দ্রশেখর রাও। জানা গিয়েছে, যাঁদের উদ্দেশে তিনি এই শব্দ ব্যবহার করেছেন, তাঁদের মধ্যে মহিলা বিক্ষোভকারীরা ছিলেন। নালগোন্ডা জেলার এক সরকারি অনুষ্ঠানে মেজাজ হারিয়ে প্রতিবাদীদের সভাস্থল ছেড়ে বেরিয়ে যেতে নিরদেশ দেন তেলেঙ্গানার মুখ্যমন্ত্রী। সুত্রের খবর, নাগার্জুন সাগর বিধানসভা কেন্দ্রের এক সরকারি অনুষ্ঠানে এই বিতর্ক উসকে দিয়েছেন কে চন্দ্রশেখর রাও বা কেসিআর। আর কয়েকদিনের মধ্যে সেই কেন্দ্রে উপনির্বাচন। তাই এখন জোরকদমে চলছে প্রচারও। এদিন, সভায় মুখ্যমন্ত্রীর বক্তব্যের সময় কয়েকজন হল্লা শুরু করেন। তাঁরা সভামঞ্চের দিকে এগিয়ে গিয়ে মুখ্যমন্ত্রীকে অভিযোগপত্র জমা দিতে গেলেই মেজাজ হারান কেসিআর। তিনি পুলিশকে নির্দেশ দেন প্রতিবাদীদের বের করে দিতে।

তিনি সভাস্থলে উপস্থিত পুলিশকর্তাদের বলেন, ‘ওদের থেকে প্রতিবাদপত্র নিয়ে বের করে দিন।‘ সুর আরও চড়িয়ে তাঁর মন্তব্য, ‘যদি আপনারা থাকতে চান, তাহলে শান্তি বজায় রাখুন। অন্যদের বিরক্ত করবেন না। এই ধরনের নাটক আমরা অনেক দেখেছি। আপনাদের মতোই অনেক কুকুর আছে। অনুগ্রহ করে সভাস্থল ছাড়ুন, নয়তো পুলিশ এদের বের করে দিন।‘

তেলেঙ্গানার মুখ্যমন্ত্রীর এই আচরণের তীব্র বিরধিতা করে কংগ্রেস। রাজ্যের দায়িত্বপ্রাপ্ত নেতা মণিকাম ঠাকুর অবিলম্বে মুখ্যমন্ত্রীর ক্ষমা দাবি করেন। তিনি বলেন, ‘তেলেঙ্গানার মুখ্যমন্ত্রী মহিলাদের কুকুর বলেছেন। উনি ভুলে গিয়েছেন যে মহিলারা ওর সামনে দারিয়ে ছিলেন, তাঁদের জন্য উনি মুখ্যমন্ত্রী হয়েছেন। তাই আচরণ বদল করুন। ভুলবেন না এটা গণতন্ত্র। ভুলবেন না গণতন্ত্রে মানুষ শেষ কথা। চন্দ্রশেখর ক্ষমা চান।‘

বিজেপির মুখপাত্র কে কৃষ্ণসাগর রাও বলেন, ‘মুখ্যমন্ত্রীর মন্তব্য হিন্দুদের অপমান। অবিলম্বে ক্ষমা চান মুখ্যমন্ত্রী।

Stay updated with the latest news headlines and all the latest General news download Indian Express Bengali App.

Web Title: Telengana cm kcr likens protestors to dogs opposition hits back national