scorecardresearch

বড় খবর

বিশ্বাসঘাতকদের কোনও নিরাপদ আশ্রয় থাকা উচিত নয়: মোদী

সরকারি কাজে গত ৬-৭ বছরে নজরদারি বেড়েছে, কমেছে দুর্নীতি। সফলভাবে রূপায়িত হচ্ছে সরকারি প্রকল্প, সুবিধা পাচ্ছেন দেশবাসী। দাবি প্রধানমন্ত্রীর।

https://indianexpress.com/article/cities/pune/operation-ganga-indian-students-ukraine-evacuation-pm-modi-7803661/
প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী।

যারা দেশ ও জনগণের সঙ্গে বিশ্বাসঘাতকতা করে তাদের জন্য কোথাও কোনও নিরাপদ আশ্রয় থাকা উচিত নয়, মনে করেন প্রধানমন্ত্রী মোদী। বুধবার সেন্ট্রাল ভিজিলান্স কমিশন ও সিবিআই-য়ের যোথ সম্মেলনে বক্তব্য রাখেন প্রধানমন্ত্রী। সেখানেই বক্তব্য রাখার সময় মোদী বলেন, ‘যারা জাতির সঙ্গে প্রতারণা করেন তাঁদের কোনওভাবেই দয়া দেখানো উচিত নয়।’

কী বলেছেন প্রধানমন্ত্রী?

সরকারি নানা কাজে গত ৬-৭ বছরে নজরদারি বেড়েছে, ফলে কমেছে দুর্নীতি। সফলভাবে রূপায়িত হচ্ছে সরকারি প্রকল্প, যার সুবিধা পাচ্ছেন দেশবাসী। তাঁর আমলে বিভিন্ন উন্নয়নমূলক কাজের খতিয়ান তুলে ধরেন মোদী। বলেন, ‘আজ দেশবাসী এটা অন্তত বিশ্বাস করে যে, যতই শক্তিশালী ব্যক্তিরা প্রতারণা বা লুটপাট করুক না কেন, তারা যেখানেই থাকুক না কেন তাদের প্রতি সরকার কোনও দয়া দেখায় হয় না ও প্রশাসন তাদের ছেড়ে দেবে না।’

কংগ্রেসকে কটাক্ষ করে মোদী বলেন, ‘দুর্নীতি নির্মূলের রাজনৈতিক স্বদিচ্ছা অতীতের সরকারের ছিল না। কিন্তু বর্তমান সরকারের সেই ইচ্ছা রয়েছে। প্রশাসনিক ক্ষেত্রেও এজন্য নিরবিচ্ছিন্ন সংস্কারের কাজ হচ্ছে।’

দুর্নীতি কমাতে প্রযুক্তি নির্ভর ‘ডিজিয়টাল ইন্ডিয়া’র পক্ষে সওয়াল করছে বিজেপি সরকার। প্রধানমন্ত্রীর কথায়, ‘মানবজাতির কল্যাণে একুশ শতকে ভারত প্রযুক্তি ব্যবহারের ওপর গুরুত্ব আরোপ করেছে। দুর্নীতি ব্যবস্থার অঙ্গ- এটা নিউ ইন্ডিয়া মানতে নারাজ। মনে করা হয়, প্রযুক্তির ফেল স্বচ্ছতা আসবে, তীক্ষ্ণ ও মসৃণ হবে প্রশাসনিক পদক্ষেপ।’

Read in English

ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস বাংলা এখন টেলিগ্রামে, পড়তে থাকুন

Stay updated with the latest news headlines and all the latest General news download Indian Express Bengali App.

Web Title: There should be no safe havens for those who betray country said pm modi