মর্মান্তিক! সন্তান-সহ কুয়ো থেকে উদ্ধার তিন বোনের দেহ

গত ২৫ মে তিন বোনের মধ্যে সবচেয়ে ছোট কমলেশ তাঁর বাবাকে ফোন করেছিল।

well

গভীর কুয়ো। আর, সেখান থেকে উদ্ধার হল তিন বোন আর তাঁদের দুই সন্তানের দেহ। পরিবারের সদস্যরা জানিয়েছেন, ওই তিন বোন একই পরিবারের তিন ভাইকে বিয়ে করেছিলেন। এই মৃত্যুর সময় তাঁদের দুই বোন অন্তঃসত্ত্বা ছিলেন। মৃত তিন মহিলা হলেন কালু মিনা (২৫), মমতা মিনা (২৩) ও কমলেশ মিনা (২০)। মৃত দুটি শিশুর একটির বয়স চার। অন্যটির একমাসেরও কম। ঘটনাটি ঘটেছে ডুডু এলাকায়। তিন বোনের মধ্যে দুই বোনের সন্তান হবে। এই আনন্দে গোটা পরিবার বেশ চনমনে ছিল। আচমকা এই মৃত্যুকে সেই চনমনে ভাবই বদলে গিয়েছে শোকে।

মৃত মহিলাদের বাবার অবশ্য অভিযোগ, এই ঘটনা আসলে অত্যাচারের ফল। কারণ, গত ২৫ মে তিন বোনের মধ্যে সবচেয়ে ছোট কমলেশ তাঁর বাবাকে ফোন করেছিল। ফোনে বলেছিল, স্বামী ও অন্য আত্মীয়রা তাঁদের মারধর করছে। তাঁরা খুন হয়ে যাওয়ার ভয় পাচ্ছেন। ঘটনায় থানায় এফআইআর করেছেন মৃত মহিলাদের বাবা। সেখানে তিনি এই কথাগুলো লিখেছেন। পাশাপাশি, এফআইআরে জানিয়েছেন, যৌতুকের জন্য শ্বশুরবাড়ির লোকেরা তাঁর মেয়েদের ওপর হামেশাই অত্যাচার করত।

এফআইআরে মৃত মহিলাদের বাবা লিখেছেন, ‘আমি ডুডুতে পৌঁছে মেয়েদের শ্বশুরবাড়ির লোকজনকে কী হয়েছে তা জিজ্ঞাসা করি। তখন ওঁদের ঘনিষ্ঠ পাঁচ-সাত জন ও মেয়েদের শ্বশুরবাড়ির লোকেরা আমাকে গালিগালাজ করতে থাকে। আমাকে বলে, ওরা মারা গেছে, আমরা কিছুই জানি না। তুমি এখান থেকে চলে যাও। না-হলে তুমিও মারা যাবে। আমার বড় মেয়ে কালুর দুই ছেলে। একজনের বয়স চার। অন্যজনের ২২ দিন। মমতা ও কমলেশ ৮ আর ৯ মাসের গর্ভবতী। আমি আশঙ্কা করছি যে শ্বশুরবাড়ির লোকজনই আমার তিন মেয়ে এবং দুই নাতিকে পূর্ব পরিকল্পিতভাবে হত্যা করেছে। এরপর তাদের মৃতদেহ কুয়োতে ফেলে দিয়েছে।’

আরও পড়ুন- সেনা নিয়োগে নীতি বদলের চেষ্টা, চুক্তি শেষে মাত্র ২৫ শতাংশকে নিয়োগের প্রস্তাব

বুধবার প্রথমে এই ঘটনায় একটি নিখোঁজের অভিযোগ দায়ের করা হয়েছিল। পরে, তিন মহিলার বাবার অভিযোগের ভিত্তিতে তিন স্বামীর বিরুদ্ধে ৩২৩, ৪০৬ ও ৪৯৮এ ধারায় এফআইআর দায়ের করা হয়েছে। রাজস্থানের জয়পুরের এই ঘটনায় স্তম্ভিত গোটা সমাজ। জয়পুর গ্রামীণের পুলিশ সুপার মণীশ আগরওয়াল বলেন, ‘ দেহগুলো শেষপর্যন্ত উদ্ধার করা হয়েছে। ময়নাদন্তের জন্যও পাঠানো হয়। দোষীরা কেউ ছাড় পাবে না। মৃত তিন মহিলার একজনের হোয়াটসঅ্যাপ বার্তাও আমরা উদ্ধার করেছি। সেখানে ওই মহিলা পরিষ্কার লিখেছেন, শ্বশুরবাড়ির লোকজনের জন্য সমস্যায় আছেন। মরে যাওয়াই ভালো।’

Read full story in English

Stay updated with the latest news headlines and all the latest General news download Indian Express Bengali App.

Web Title: Three sisters and their kids found dead in well of rajasthan

Next Story
বড়সড় ফাঁপড়ে Indigo, অনিয়মে দৃষ্টান্তমূলক পদক্ষেপ DGCA-র