scorecardresearch

বড় খবর

সমাজ মন্দ চোখে দেখে, এই স্কুলে তাঁরাই খুঁজে পাচ্ছেন নারীসত্তা

সমাজের প্রতি দায় থেকে স্কুল চালানো। সেই কারণে সম্পূর্ণ বিনামূল্যে চলছে প্রশিক্ষণ।

dance school

চলন-বলন সংখ্যাগরিষ্ঠের মত নয়। চলতি কথায়, আর পাঁচ জনের মত না। আর, এই জন্যই রূপান্তরকামীরা এখনও ভারতীয় সমাজে কার্যত ব্রাত্য। আইনের চোখে যতই মান্যতা পাক, উপহাসের জ্বালা তাঁদের সহ্য করতেই হয়। কটূক্তি, বিদ্রূপের দৃষ্টি তো আছেই। সহৃদয় বহু নাগরিক আছেন, যাঁরা রূপান্তরকামীদের সমাজের মূলস্রোতে রাখার চেষ্টা করে চলেছেন। সেই চেষ্টার খামতিও নেই।

এই উদ্যোগে কয়েক যোজন এগিয়ে গেল একটি নাচের স্কুল। যেখানে ভারতনাট্যম শিখিয়ে রূপান্তরকামীদের মধ্যে নারীসত্তার অনুভূতি জাগানোর চেষ্টা চলছে। স্কুলের ১৫ জন শিক্ষার্থীর প্রত্যেকেই রূপান্তরকামী। ৫ জুন, বলতে গেলে সদ্যই স্কুল শুরু হয়েছে। কিন্তু, চেন্নাইয়ের এই নাচের স্কুলের শিক্ষার্থীরা যেন বিন্দুতেই সিন্ধুর স্বাদ পাচ্ছেন। তাঁদের সকলের কাছে এই যে স্বপ্নের সার্থকতা।

এই উদ্যোগের খবর তাঁদের কানে পৌঁছেছে। খুশি রূপান্তরকামীদের সংগঠনগুলো। এই সব সংগঠনের সঙ্গে দীর্ঘদিন ধরেই যুক্ত বৈষ্ণবী। তামিলনাড়ুর এই প্রথম রূপান্তরকামী অটোচালক উদ্যোগকে সাধুবাদ জানালেন। তিনিও ভর্তি হয়েছেন এই স্কুলে। বৈষ্ণবীর কথায়, ‘আমি বিশ্বাস করি, আমার মধ্যে নাচের প্রতিভা আছে। কিন্তু, লোকজন আমায় কেবল একজন ট্রান্সজেন্ডার অটোচালক হিসেবে দেখে। এই সব কারণেই আমি আমার নাচের দক্ষতা দেখানোর সুযোগ পাইনি। এখন মনে হচ্ছে আমি একজন পারফর্মিং আর্টিস্ট হিসেবে নিজেকে তুলে ধরতে পারব।’

সমাজের প্রতি দায় থেকে স্কুল চালানো। সেই কারণে সম্পূর্ণ বিনামূল্যে চলছে প্রশিক্ষণ। সহদোরন বলে একটি স্বেচ্ছাসেবী সংস্থা কেরলের শ্রী সত্য সাঁই অরফানেজ ট্রাস্টের সঙ্গে যৌথ উদ্যোগে এই স্কুল শুরু করেছে। গত দুই দশক ধরেই শ্রী সত্য সাঁই অরফানেজ ট্রাস্ট চেন্নাইয়ে রূপান্তরকামীদের জন্য কাজ করে যাচ্ছে। নতুন এই স্কুলে শেখাচ্ছেন বিখ্যাত ভরটনাট্যম শিল্পী সন্মুগ সুন্দরম। শিক্ষার্থীদের বয়স ২১ থেকে ৪৯। ড্রেস কোড বলতে সবুজ শাড়ি।

আরও পড়ুন- পুলিশের জালে বিজেপি বিধায়ক, গণধর্ষিতার ছবি প্রকাশ্যে আনতেই তড়িঘড়ি পদক্ষেপ

রূপান্তরকামীদের একটা দলকে নাচ শেখানো। এই তো প্রথম। তা, কেমন অনুভূতি হচ্ছে? সুন্দরম বললেন, ‘ভাষায় প্রকাশ করতে পারব না যে ঠিক কতটা খুশি হয়েছি। প্রতিটি নাচের ক্লাস রূপান্তরকামী শিক্ষার্থীদের মধ্যে একটা আত্মবিশ্বাস তৈরি করছে। এই শিক্ষার্থীরা ভালো করে শিখলে, এখানে শিক্ষার্থীর সংখ্যা বাড়বেই। এই নৃত্যশিল্প তাতে আরও বেশি করে ছড়িয়ে পড়বে। ক্লাসে তো অনেকে আমাকে বলল, ছোট থেকেই নাকি নাচতে চাইত। এতদিন সুযোগ পায়নি। এবার পাচ্ছে।’

Read full story in English

Stay updated with the latest news headlines and all the latest General news download Indian Express Bengali App.

Web Title: Transgender community in chennai on learning bharatanatyam