scorecardresearch

বড় খবর

প্রেমিককে পিটিয়ে মারার অভিযোগ, আত্মঘাতী প্রেমিকাও! শোকে বিহ্বল গোটা গ্রাম, যোগীরাজ্যে উত্তেজনা

এলাকায় প্রচুর সংখ্যায় পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।

প্রেমিককে পিটিয়ে মারার অভিযোগ, আত্মঘাতী প্রেমিকাও! শোকে বিহ্বল গোটা গ্রাম, যোগীরাজ্যে উত্তেজনা
প্রতীকী ছবি

পরিবারের লোকেদের বিরুদ্ধে প্রেমিককে পিটিয়ে হত্যা্র অভিযোগের মাত্র ১০ ঘন্টার মধ্যেই নিজের ঘরে আত্মঘাতী হলেন বছর উনিশের এক তরুণী।  পুলিশ জানিয়েছে, ঘটনাটি ঘটেছে রামপুর মনিহারান অঞ্চলের ইসলামপুর এলাকায়। পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে মৃত তরুণীর নাম তন্নু সাইনি। তিনি বিএসসির পড়ুয়া ছিলেন।

স্থানীয় সূত্রে খবর মেয়েটির পরিবার তার প্রেমিক জিয়া-উর-রহমানকে মেয়েটির বাড়ির লোক তাদের বাড়িতে ডাকে। সেখানে তারা তাকে মারধর করে বলে জানা গিয়েছে। পরে তাঁকে দেরাদুনের একটি হাসপাতালে আহত অবস্থায় ভর্তি করা হয়। সেখানেই তিনি মারা যান। যদিও মেয়েটির বাড়ির লোক মারধরের অভিযোগ পুরোপুরি অস্বীকার করেছে। মৃত্যুর খবর ছড়িয়ে পড়ার পরপরই, স্থানীয় বাজার-দোকান বন্ধ হয়ে যান। এলাকায় সাম্প্রদায়িক অস্থিরতার আশঙ্কায় প্রচুর সংখ্যায় পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে। সাহারানপুরের এসএসপি ভিপিন টাডা বলেছেন, “প্রচুর পুলিশ বাহিনী মোতায়েন করা হয়েছে। তদন্ত চলছে এবং সেই অনুযায়ী ব্যবস্থা নেওয়া হবে।”

যোগী রাজ্যে ২৪ ঘন্টার ব্যবধানে দুই তরুণ-তরুণীর  অস্বাভাবিক মৃত্যু ঘিরে তোলপাড়। পশ্চিম উত্তরপ্রদেশের একটি গ্রামে মাত্র ১০ ঘন্টার ব্যবধানে প্রেমিক-প্রেমিকার মৃত্যুকে ঘিরে ধুন্ধুন্মার পরিস্থিতি। দাবি, পাল্টা অভিযোগকে কেন্দ্র করে উত্ত্যপ্ত প্রত্যন্ত এই গ্রাম। পুলিশ সূত্রে খবর উভয় পক্ষ একে অপরের বিরুদ্ধে এফআইআর দায়ের করে, তবে এই ঘটনায় এখনও পর্যন্ত কেউ গ্রেফতার হয়নি।  

পুলিশ জানিয়েছে, জিয়া-উর-রহমানকে (১৯) তারই প্রতিবেশী তন্নু সাইনির বাড়িতে কুপিয়ে হত্যা করা হয়। এই ঘটনার রেশ কাটতে না কাটতেই তন্নু সাইনিকে তার ঘরে মৃত অবস্থায় উদ্ধার করা হয়। পুলিশের প্রাথমিক অনুমান ওই তরুণী আত্মহত্যা করেছে। ভিন ধর্মের প্রেম এবং তার জেরেই মৃত্যুর ঘটনা সামনে আসতেই এলাকায় উত্তেজনার আঁচ ছড়িয়ে পড়ে। পরিস্থিতি সামাল দিতে গ্রামে পুলিশ পিকেট মোতায়েন করা হয়েছে।    

জিয়া-উর-রহমানের পরিবারের তরফে দাবি করা হয়েছে  প্রেমের কারণেই তাদের ছেলেকে কুপিয়ে হত্যা করা হয়েছে। অন্যদিকে তনুর মা সুনেশ দেবী ছেলের বিরুদ্ধে ওঠা খুনের অভিযোগকে অস্বীকার করেছেন। পরিবারের দাবি, জিয়া-উর-রহমানকে রাতের অন্ধকারে চোর ভেবেই একদল লোক পিটিয়ে হত্যা করে।  

এদিকে এই ঘটনার মাত্র ১০ ঘন্টার মধ্যেই তন্নুকে ঘরে ঝুলন্ত অবস্থায় উদ্ধার করা হয়। হাসপাতালে নিয়ে গেলে তাঁকে মৃত বলে ঘোষণা করা হয়। কৃষক পরিবার সূত্রে জানা গেছে, বুধবার সকাল ১১টা নাগাদ তনুকে ঝুলন্ত অবস্থায় পাওয়া যায়।  

ঘটনার পর পুলিশ সুপার জানান, ‘উভয় পরিবারের তরফে এক্তি করে এফআইআর দায়ের করা হয়েছে। দুটি অস্বাভাবিক মৃত্যুর মামলা রুজু করা হয়েছে। পুলিশ সব দিক খতিয়ে দেখছে’।

Stay updated with the latest news headlines and all the latest General news download Indian Express Bengali App.

Web Title: Up girl ends life after boyfriend is beaten to death in up