scorecardresearch

বড় খবর

পড়ুয়াদের প্র্যাকটিক্যাল ট্রেনিংয়ের ব্যবস্থা করুক ভারত সরকার, ইউক্রেনের মেডিক্যাল কলেজগুলির আর্জি

সুমি স্টেট ইউনিভার্সিটির মধ্যে বেশ কয়েকটি ইউনিভার্সিটি তাদের অনলাইন ক্লাস পুনরায় চালু করতে পারেনি।

পড়ুয়াদের প্র্যাকটিক্যাল ট্রেনিংয়ের ব্যবস্থা করুক ভারত সরকার, ইউক্রেনের মেডিক্যাল কলেজগুলির আর্জি
ইতিমধ্যেই বেশ কিছু মেডিকেল কলেজ অনলাইন ক্লাস পুনরায় চালু করায় স্বস্তির নিঃশ্বাস ফেলেছে পড়ুয়ারা

রাশিয়া ইউক্রেন সংকটের কারণে ভবিষ্যৎ চ্যালেঞ্জের মুখে প্রায় ২৩ হাজার মেডিকেল পড়ুয়া। ইতিমধ্যেই তারা ইউক্রেন ছেড়ে দেশে ফিরে এসেছেন। প্রবল উৎকণ্ঠার মধ্য দিকে দিন কেটেছে তাদের। কী হবে তাদের ভবিষ্যত এই চিন্তাতে রাতের ঘুম উড়েছিল পড়ুয়া থেকে অভিভাবকদের। ইতিমধ্যেই বেশ কিছু মেডিকেল কলেজ অনলাইন ক্লাস পুনরায় চালু করায় স্বস্তির নিঃশ্বাস ফেলেছে তারা। সূত্রের খবর, আগামী মাসের মধ্যেই বাকী মেডিকেল কলেজগুলো তাদের অনলাইন ক্লাস চালু করবে। এই মাঝেই মেডিকেল কলেজগুলির তরফে দেশে সরকারের কাছে অনুরোধ করা হয়েছে পড়ুয়াদের প্রাক্টিক্যাল ট্রেনিং দেশের কলেজ গুলিতে করার ব্যবস্থা করার। কারণ হিসাবে বলা হয়েছে অনলাইন ক্লাসের মাধ্যমে প্রাক্টিক্যাল ট্রেনিং কখনই সম্ভব নয়।

ইউক্রেনের দক্ষিণ বন্দর শহর ওডেসা ন্যাশনাল মেডিকেল ইউনিভার্সিটির মতো বেশ কয়েকটি ইউনিভার্সিটি অনলাইন ক্লাস পুনরায় চালু করতে পারলেও খারকিভ ন্যাশনাল মেডিকেল ইউনিভার্সিটি, কিয়েভ মেডিকেল ইউনিভার্সিটি এবং সুমি স্টেট ইউনিভার্সিটির মধ্যে বেশ কয়েকটি ইউনিভার্সিটি তাদের অনলাইন ক্লাস পুনরায় চালু করতে পারেনি। কারণ এই যুদ্ধের কারণে সেগুলি ব্যাপক ভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। তবে আশা করা হচ্ছে আগামী মাস থেকেই এই ইউনিভার্সিটিগুলি পুনরায় তাদের অনলাইন ক্লাস চালু করতে পারবে। সুমি স্টেট ইউনিভার্সিটির তরফে জানানো হয়েছে আগামী ১ এপ্রিল থেকেই তারা তাদের অনলাইন ক্লাস পুনরায় চালু করবে।

খারকিভ ন্যাশনাল মেডিক্যাল ইউনিভার্সিটির এমবিবিএস-এর পঞ্চম বর্ষের ছাত্র কেরানাপ কিরুপাকরণ বলেছেন, “অনলাইন ক্লাস শীঘ্রই শুরু হবে শুনে আমরা স্বস্তি পেয়েছি। অন্তত আমরা আমাদের কোর্সগুলো শেষ করতে পারব এবং সেই ডিগ্রি পেতে পারব যার জন্য আমরা এত সংগ্রাম করেছি।” পঞ্চম বর্ষের পড়ুয়ারা ক্লিনিক্যাল ট্রেনিয়ের বিষয়টি নিয়ে উদ্বিগ্ন।

আরো পড়ুন: ইউক্রেন থেকে অপহৃত বহু শিশু, কাঠগড়ায় রাশিয়ার সেনাবাহিনী

কারণ অনলাইনে সেটা কোন ভাবেই সম্ভব নয়। কিয়েভ মেডিকেল ইউনিভার্সিটির পঞ্চম বর্ষের ছাত্র জে সালভি বলেন “আমরা অনলাইনে ইসিজি অথবা অন্যান্য আনুষঙ্গিক বিষয় সম্পর্কে একটা ধারণা অর্জন করতে পারলেও, অনলাইনে ডেলিভারি কীভাবে হয় সেটা কোন ভাবেই শেখা সম্ভব নয়। তার জন্য প্রয়োজন হাতে কলমে প্রশিক্ষণ”।

পড়ুয়াদের আরও ভাল ক্লিনিকাল ট্রেনিংয়ের জন্য দেশের মেডিকেল কলেজ গুলিতে ইউক্রেন ফেরত পড়ুয়াদের ক্লিনিক্যাল ট্রেনিংয়ের ব্যবস্থার অনুরোধ জানানো হয়েছে  ইউক্রেনের অন্যতম বৃহত্তম মেডিকেল কলেজ, খারকিভ ন্যাশনাল মেডিকেল ইউনিভার্সিটি তরফে।  একটি সার্কুলার জারি করে খারকিভ ন্যাশনাল মেডিকেল ইউনিভার্সিটির তরফে ভারত সরকারকে অনুরোধ করা হয়েছে মেডিক্যাল পড়ুয়াদের ক্লিনিক্যাল ট্রেনিংয়ের ব্যবস্থার। সার্কুলারে লেখা হয়েছে “পড়ুয়াদের ভবিষ্যতের কথা মাথায় রেখে ভারত সরকার ইউক্রেন ফেরত পড়ুয়াদের ক্লিনিক্যাল ট্রেনিংয়ের ব্যবস্থা করুক, এতে পড়ুয়াদের ভবিষ্যত সুরক্ষিত হবে। তাদের সরকারী এবং বেসরকারি মেডিকেল কলেজে সেই সুযোগ দেওয়া হোক”। এপ্রসঙ্গে ন্যাশনাল মেডিক্যাল কমিশনের (NMC) একজন সদস্য বলেছেন “আমরা ইতিমধ্যেই পড়ুয়াদের সঙ্গে কথা বলেছি, কীভাবে বিষয়টি বাস্তবায়িত করা যায় সে ব্যপারে ইতিমধ্যেই আলোচনা করা হয়েছে”।  

Read story in English

Stay updated with the latest news headlines and all the latest General news download Indian Express Bengali App.

Web Title: War torn ukraine medical varsities start online classes ask nations to provide practical training