বড় খবর

ভারত ফেরত না নিলে মারা যেতে হবে, আর্তি রক্তস্নাত মায়ানমারের

জেনারেল মিন আং হ্ল্যাং একটি সরকারি চ্যানেলে একটি বিবৃতিতে জানিয়েছেন, দেশের গণতন্ত্র রক্ষার জন্য সেনাবাহিনী গোটা দেশের সঙ্গে হাত মিলিয়ে কাজ করতে চায়।

পরিস্থিতি যত এগোচ্ছে তত উত্তপ্ত হচ্ছে মায়ানমার। দেশের বিভিন্ন এলাকা থেকে পালিয়ে আসা মানুষজন সীমান্তের এই এলাকায় আশ্রয় নিয়েছে। এই প্রেক্ষাপটে ভারত ফিরিয়ে না নিলে মৃত্যুর কোলে যেতে হবে, এমন আর্তি করছে মায়ানমারবাসী।

মায়ানমারে সেনা অভ্যুত্থানের পর বহু মানুষ দেশ ছেড়ে পালাচ্ছেন। তাঁদের মধ্যেই বেশ কিছু ভারতেও চলে আসছেন বলে খবর। এদিকে, সেনা অভ্যুত্থানের পর শনিবার সবচেয়ে বেশি রক্তাক্ত হল মায়ানমার। ওই দেশের সংবাদমাধ্যমের রিপোর্ট অনুযায়ী, শনিবার অন্তত ৫০ জন নিহত হয়েছেন সেনার গুলিতে।

দেশজুড়ে চলছে মৃত্যুমিছিল। জেনারেল মিন আং হ্ল্যাং একটি সরকারি চ্যানেলে একটি বিবৃতিতে জানিয়েছেন, দেশের গণতন্ত্র রক্ষার জন্য সেনাবাহিনী গোটা দেশের সঙ্গে হাত মিলিয়ে কাজ করতে চায়। নাওপিদাওয়ে সেনা কুচকাওয়াজের পরই এই কথা বলেন জেনারেল। যদিও সামরিক শাসনের প্রতিবাদ করায় দেশে এত লোকের মৃত্যু হচ্ছে, তার মধ্যেও সেনাবাহিনী কুচকাওয়াজ করে শক্তি প্রদর্শন করায় আন্তর্জাতিক মহলে নিন্দার ঝড় উঠেছে।

সেনাশাসনের বিরুদ্ধে গত দু’মাস ধরেই বিক্ষোভে উত্তপ্ত মায়ানমার। শনিবার সশস্ত্র বাহিনীর সাফল্য উদ্‌যাপনে যখন ব্যস্ত সেনা, সেই সময় ইয়াঙ্গন, মান্দালয় এবং আরও বেশ কিছু শহরে পথে নামেন হাজার হাজার মানুষ। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণের বাইরে চলে যাচ্ছে দেখে আন্দোলনকারীদের হুঁশিয়ারি দেয় সেনা। ঘোষণা করা হয়, পিছু না হটলে মাথায় অথবা পিছন থেকে গুলি করে মারা হবে তাঁদের। কিন্তু সেনার হুঙ্কারেও পিছু হটেননি আন্দোলনকারীরা।

ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস বাংলা এখন টেলিগ্রামে, পড়তে থাকুন

Get the latest Bengali news and General news here. You can also read all the General news by following us on Twitter, Facebook and Telegram.

Web Title: Will be killed myanmar nationals pray india does not send them back

Next Story
করোনা কমাতে লকডাউনই ভরসা! বড় সিদ্ধান্ত নিতে চলেছে মহারাষ্ট্র সরকার
The moderation of comments is automated and not cleared manually by bengali.indianexpress.com