সরকারি চাকরিতে বড় বদল, নয়া নীতি ঘোষণা কেন্দ্রের

লকডাউন আবহে সেই জট কাটিয়ে বুধবার সরকারি পরীক্ষা নেওয়ার জন্য বিশেষ সংস্থা গঠনের অনুমোদন দিল প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী নেতৃত্বাধীন কেন্দ্রীয় মন্ত্রীসভা।

দেশে কেন্দ্রীয় সরকারি চাকরির ক্ষেত্রে বড়সড় সংস্কার করল মোদী সরকার। বুধবার ন্যাশনাল রিক্রুটমেন্ট এজেন্সি (এনআরএ) গঠনে অনুমোদন দিল কেন্দ্রীয় মন্ত্রীসভা। ভারত সরকারের যাবতীয় গ্রুপ বি এবং সি (নন টেকনিকাল) পদে নিয়োগের ক্ষেত্রে প্রিলিমিনারি পরীক্ষাটি নেবে এনআরএ। এই পরীক্ষার নাম হবে কমন এলিজিবিটি টেস্ট (সিইটি) শুরু হবে।

এই মুহুর্তে চলতি নিয়মে আইবিপিএস, এসএসসি এবং আরআরবি এর মাধ্যমে যাবতীয় নিয়োগ আগা থেকে গোড়া পর্যন্ত হয়ে থাকে। কিন্তু এবার সিইটি পরিক্ষার মাধ্যমে প্রাথমিকভাবে বাছাই করা হবে পরীক্ষার্থীদের।কেন্দ্রীয় সরকারের পক্ষে বিবৃতি দিয়ে জানান হয়েছে, “সিইটি পরীক্ষায় প্রাপ্ত নম্বরের ভিত্তিতে পরবর্তী ধাপে পরীক্ষাগুলির আয়োজন করবে সংশ্লিষ্ট নিয়োগকারী প্রতিষ্ঠানগুলি (এসএসসি, আরআরবি, আইবিপিএস)। তবে এই নিয়োগকারী সংস্থাদের অবলুপ্ত করা হচ্ছে না।”

প্রধানমন্ত্রী মোদী বলেন, “ন্যাশনাল রিক্রুটমেন্ট এজেন্সি কোটি কোটি কর্মপ্রার্থীদের জন্য দারুণ সুযোগ এনে দিতে সক্ষম হবে। এই সাধারণ যোগ্যতা পরীক্ষার মাধ্যমেই চাকরির সংস্থান আরও সহজ হবে। স্বচ্ছ থাকবে গোটা নিয়োগ প্রক্রিয়া।”

সিইটি পরীক্ষা হবে তিনটি পর্যায়ে। স্নাতক মানের, উচ্চমাধ্যমিক মানের এবং মাধ্যমিক মানের উপর ভিত্তি করে।

তথ্য এবং সম্প্রচার মন্ত্রী প্রকাশ জাভড়েকর বলেন, “এখন যুব প্রজন্মকে বিভিন্ন পরীক্ষায় অংশ নিতে হয়। সরকারের প্রায় ২০টি নিয়োগ সংস্থা রয়েছে। যদি কেউ চার বা পাঁচটি পদের জন্য অংশ নিতে হয় (বিভিন্ন কাজের জন্য) তবে তাকে বিভিন্ন পরীক্ষায় অংশ নিতে হবে। এই লক্ষ্যে এই এনআরএ গঠন ঐতিহাসিক।”

আরও জানান হয়েছে বছরে দু’বার সিইটি পরীক্ষা হবে। কেন্দ্রীয় কর্মীবর্গ এবং প্রশিক্ষণ প্রতিমন্ত্রী জীতেন্দ্র সিং বলেন, “এই পরীক্ষা নিয়োগের ক্ষেত্র, বাচাই পদ্ধতিকে, পোস্টিং এবং জীবনযাপনকে অনেক সরল করবে…।” সিং আরও জানান, “সিইটি পরীক্ষা মোট ১২টি ভাষায় হবে। এনআরএ-এর শীর্ষে থাকবেন কেন্দ্রীয় পর্যায়ের বা সমতূল্য পদমর্যাদার কোনও আমলা। এছাড়াও অবশ্যই থাকবেন এসএসসি, আরআরবি, আইবিপিএস-এর মতো প্রতিনিধিরা। আগামী তিন বছর এনআরএ-এর কাজকর্মের জন্য ১৫৫৭.৫৭ কোটি টাকা অনুমোদন করেছে কেন্দ্রীয় মন্ত্রীসভা।

কর্মীবর্গ এবং প্রশিক্ষক সি চমদ্রমৌলি জানান প্রতি বছর গড়ে আড়াই থেকে তিন কোটি কর্মপ্রার্থী গ্রুপ ডি-সি এর ১.২৫ লক্ষ পদের জন্য আবেদন করেন। ৫০টির বেশি নিয়োগ পরীক্ষা আয়োজিত হয় প্রতি বছর। সিইটি চালু হয়ে গেলে এই পরীক্ষায় প্রাপ্ত নম্বরের ভিত্তিতে আবেদনকারীরা সুবিধা পাবেন।

Read the full story in English

ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস বাংলা এখন টেলিগ্রামে, পড়তে থাকুন

Get the latest Bengali news and Jobs news here. You can also read all the Jobs news by following us on Twitter, Facebook and Telegram.

Web Title: National recruitment agency to conduct tests for govt jobs cabinet make a nod

Next Story
বিউটি উইথ ব্রেন! মিস ইন্ডিয়া ফাইনালিস্ট এবার ইউপিএসসিতেও চূড়ান্ত সফল
Show comments