scorecardresearch

বড় খবর

সিবিআই পরিচয় দিয়ে ডাকাতি খাস কলকাতায়, পুলিশের জালে ২

ব্যবসায়ীর অভিযোগের পর বিষয়টি নিয়ে তদন্ত শুরু করে কলকাতা পুলিশ।

সিবিআই পরিচয় দিয়ে ডাকাতি খাস কলকাতায়, পুলিশের জালে ২

সিবিআই পরিচয় দিয়ে ডাকাতির ঘটনায় এখনও পর্যন্ত ২ জনকে আটক করেছে কলকাতা পুলিশ। ধৃতেরা হলেন, রঞ্জন চৌধুরী ও সন্তু মোল্লা। সোমবার কলকাতায় এক ব্যবসায়ীর বাড়িতে  সিবিআই আধিকারিক পরিচয় দিয়ে ডাকাতদের একটি দল ৩০ লক্ষ টাকা নগদ এবং লক্ষাধিক মূল্যের গয়না নিয়ে চম্পট দেয়। মঙ্গলবার কলকাতা পুলিশ জানিয়েছে, ঘটনাটি ঘটেছে শহরের ভবানীপুর এলাকায়। এই ঘটনায় এলাকা জুড়ে ছড়িয়ে পড়ে চাঞ্চল্য। এরপরই অপারেশনে নামে কলকাতা পুলিশ। মাত্র ২৪ ঘন্টার মধ্যে ধরা পড়ে ২ জন।   

সুরেশ ওয়াধওয়া (৬০) নামে এক ব্যবসায়ী ডাকাতির বিষয়ে থানায় অভিযোগ দায়ের করেন। তার পরই তদন্তে নেমে ২ জনকে আটক করে কলকাতা পুলিশের অপরাধ দমন শাখা। কী অভিযোগ ছিল ওই ব্যবসায়ীর? তিনি তার অভিযোগে জানান, সোমবার সকাল ৮টা নাগাদ ৭-৮ জন লোক তার বাড়িতে আসেন, নিজেদের সিবিআই আধিকারিক পরিচয় দেন। এরপর বাড়িতে তল্লাশি শুরু হয়। হাতিয়ে নেওয়া হয় নগদ ৩০ লক্ষ টাকা এবং বেশ কয়েকলক্ষ টাকার সোনার গয়না।  

ওয়াধওয়া সংবাদ মাধ্যমকে বলেন, “ডাকাতরা মোট তিনটি গাড়িতে এসেছিল। যার গায়ে পুলিশের স্টিকার ছিল। আমি দরজা খুললাম এবং তারা সিবিআই অফিসার বলে বাড়িতে তল্লাশি চালায়। আমি ওদের পরিচয়পত্র দেখাতে বলি, কিন্তু ততক্ষণে ৭ থেকে ৮ জনের একটি দল ঘরে ঢুকে পড়ে। তিনি দাবি করেন, দলটি ঘরে ঢুকে রীতিমত তাণ্ডব চালায়। নগদ ৩০ লাখ ও লাখ টাকার গয়না নিয়ে চম্পট দেয় তারা।

ওই ব্যবসায়ীর অভিযোগের পর বিষয়টি নিয়ে তদন্ত শুরু করে কলকাতা পুলিশ। আর মাত্র ২৪ ঘন্টার মধ্যেই ২ জনকে আটক করে পুলিশ। পুলিশের তরফে জানানো হয়েছে,  অপরাধীরা সম্পূর্ণ পরিকল্পনা নিয়ে ওই ব্যবসায়ীর বাড়িতে হানা দেয়। এই ঘটনায় পরিবারের ঘনিষ্ঠ কেউ জড়িত বলেই প্রথম থেকেই সন্দেহ হয় পুলিশ। সেই সূত্র ধরেই তদন্তে নামে পুলিশ।এলাকার সিসি ক্যামেরার ফুটেজ সংগ্রহ করে দেখা যায়, একটি গাড়ি, সেই সূত্র ধরেই গ্রেফতার দুই। রঞ্জন নিজেকে সিবিআইয়ের এক শীর্ষ কর্তা বলে পরিচয় দেয়।

Stay updated with the latest news headlines and all the latest Kolkata news download Indian Express Bengali App.

Web Title: 2 person arrested in kolkata bhawanipur dacoity case