বড় খবর

নিষ্প্রদীপ মেটিয়াবুরুজ, বিক্ষোভ থামাতে গিয়ে আক্রান্ত তৃণমূল বিধায়ক

ঝড়ের পর থেকে বিদ্যুৎসংযোগ বিচ্ছিন্ন হওয়ায় এবং পানীয় জলের অভাবে শহর, শহরতলির অবস্থা সংকটজনক। বিক্ষোভ অব্যাহত। কিন্তু, মেটিয়াবুরুজের ঘটনা সব কিছুকে ছাপিয়ে গিয়েছে।

বিধায়ক আবদুল খালেক মোল্লা

ঝড়ের পর থেকে বিদ্যুৎসংযোগ না থাকা এবং পানীয় জলের অভাবে শহর, শহরতলির অবস্থা সংকটজনক। এর দায় নিয়ে পুরসভা, নবান্ন ও সিইএসসি-র মধ্যে টানাপোড়েন চলছে। সরব বিরোধী শিবির। এই পরিস্থিতির জন্য রাজ্যের মন্ত্রী তথা মানিকতলার বিধায়ক সাধন পাণ্ডে কলকাতা পুরসভার প্রশাসক ফিরহাদ হাকিমের ভূমিকা নিয়ে প্রশ্ন তুলেছেন। কিন্তু, মেটিয়াবুরুজের ঘটনা সব কিছুকে ছাপিয়ে গিয়েছে। বিদ্যুতের দাবিতে বিক্ষোভরতদের থামাতে গিয়ে আক্রান্ত হয়েছেন শাসকদলের বিধায়ক আবদুল খালেক মোল্লা।

ঠিক কী ঘটেছিল?

আমফানের পর কেটে গিয়েছে টানা সাতদিন। এখনও বিদ্যুৎ বিচ্ছিন্ন মেটিয়াব্রুজের অধিকাংশ এলাকা। বিদ্যুতের দাবিতে আবেদন নিবেদনে কাজ হয়নি। ধৈর্যের বাঁধ ভেঙে গিয়েছে বাসিন্দান্দের। বাধ্য হয়ে মঙ্গলবার দুপুরে নাদিয়াল থানার অন্তর্গত বদরতলায় বিক্ষোভ দেখাচ্ছিলেন স্থানীয় বাসিন্দারা। সেই সময়ই তৃণমূল বিধায়ক আবদুল খালেক মোল্লা সেখানে হাজির হন। বিধায়ককে দেখেই বিক্ষোভকারীরা আরও উত্তেজিত হয়ে ওঠেন। উত্তেজিত জনতার মারে মুখ ফেটে যায় বর্ষীয়ান বিধায়কের।

আরও পড়ুন- কলকাতাকে ছন্দে ফেরাতে অনুজ ববির পুরনিগমকে পরামর্শ অগ্রজ সুব্রতর

স্থানীয়দের অভিযোগ, বিদ্যুৎ না মেলায় সিইএসসি-কে আগেই জানানো হয়েছিল। কিন্তু সুরাহা মেলেনি। গত কয়েকদিনে মেটিয়াবুরুজের বিধায়ককেও দেখা যায়নি। যা আগুনে ঘি ঢালে। মঙ্গলবার বিকেল সওয়া পাঁচটা নাগাদ বিক্ষোভ থামাতে বদরতলায় যান বিধায়ক আবদুল খালেক মোল্লা। ঘটনাস্থলে পৌঁছতেই তাঁকে ঘিরে কটূক্তি শুরু হয়। এরপর ঘটনাস্থল ছেড়ে চলে যাওয়ার চেষ্টা করেন বিধায়ক। তখনই বিক্ষোভরত জনতা আবদুল খালেক মোল্লাকে আক্রমণ করে। রক্তাক্ত হন শাসক দলের বিধায়ক।

এই ঘটনার পিছনে রাজনৈতিক উস্কানির অভিযোগ তুলেছে জোড়াফুল শিবির। মেটিয়াবুরুজের ঘটনায় আরএসএস ও বিজেপির মদত রয়েছে বলে দাবি করেন রাজ্যের মন্ত্রী তথা কলকাতা পুরসভার প্রশাসক ফিরহাদ হাকিম। জখম বিধায়ককে সিএমআরআই-এর আইসিইউতে ভর্তি করা হয়। বর্তমানে তাঁর শারীরিক পরিস্থিতি স্থিতিশীল বলে হাসপাতাল সূত্রে জানা গিয়েছে।

ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস বাংলা এখন টেলিগ্রামে, পড়তে থাকুন

Get the latest Bengali news and Kolkata news here. You can also read all the Kolkata news by following us on Twitter, Facebook and Telegram.

Web Title: Abdul khalek molla tmc mla metiaburuj attack by local people for power supply after amphan

Next Story
জলের দরে জলে ভেজা বই কাবুলিওয়ালাদের কাছে বিকোচ্ছে আমফান বিধ্বস্ত কলেজ স্ট্রিটamphan kolkata college street
The moderation of comments is automated and not cleared manually by bengali.indianexpress.com