বড় খবর

করোনা হজম করাতে নয়া মিষ্টি কলকাতায়

দোকানের যাদবপুরের দুটি শাখাতেই মিলবে এই অ্য়ান্টি করোনা সন্দেশ। মিষ্টি খেলেই করোনা হজম। 

অ্যান্টি করোনা সন্দেশ কলকাতায়।
করোনা মোকাবিলায় বিশ্বব্য়াপী চলছে গবেষণা। এখনও করোনা প্রতিরোধে ওষুধ বা ভ্য়াকসিন আবিস্কার হয়নি। বিশ্বব্য়াপী সেই চেষ্টা চলছে অনবরত। তবে এবার কলকাতায় মিলছে অ্য়ান্টি করোনা সন্দেশ। মিষ্টি কিনলেই একেবারে ফ্রি-তে মিলবে এই সন্দেশ। করোনা সচেতনায় এমনই উদ্য়োগ নিয়ে যাদবপুরের এক মিষ্টান্ন প্রতিষ্ঠান।

করোনার করাল গ্রাসে বিশ্বের উন্নত দেশগুলোর সভ্য়তা ভেঙে চুরমার। প্রতিদিন সেখানে হাজার হাজার মানুষের মৃত্য়ু হচ্ছে। করোনা মোকাবিলায় ভারতে চলছে লকডাউন। ইতিমধ্য়ে করোনার করাল গ্রাসে মৃতের সংখ্য়া একশ ছাড়িয়েছে। করোনা আক্রান্ত হয়েছেন ৪ হাজারের ওপর। লকডাউনের প্রথম দিকে এরাজ্য়ে বনধের আওতায় ছিল মিষ্টির দোকান। অবশেষে রাজ্য় সরকার ঘোষণা করে মিষ্টির দোকান দুপুর ১২ টা থেকে ৪টে পর্যন্ত খোলা থাকবে। তবে এই চার ঘণ্টা খোলা থাকলেও সন্তুষ্ট নয় মিষ্টান্ন ব্য়বসায়ীরা। ভরদুপুরে নয়, তাঁরা চাইছেন সকালে  দোকান খোলা রাখতে। পাশাপাশি কারিগরের অভাবেও অনেকে বন্ধ রেখেছেন দোকান।

ছবি :পার্থ পাল
ছবি :পার্থ পাল

মিষ্টি দখলেই তাক লেগে যাবে। যেন আতঙ্কের করোনা ভাইরাস হাজির মিষ্টির দোকানেও। করোনা ভাইরাসের মত দেখতে হুবহু এক ধরনের মিষ্টি বানিয়ে ফেলেছেন যাদবপুরের হিন্দুস্থান সুইটস। করোনা সচেতনতার বার্তা দিতেই এই উদ্য়োগ বলে জানিয়েছেন দোকানের কর্ণধার রবীন পাল। মিষ্টিগুলির নাম রেখেছেন অ্য়ান্টি করোনা সন্দেশ। সেই সন্দেশে লেখা উই ক্যান ডাইজেস্ট করোনা। রবিন পাল বলেন, “যাঁরা মিষ্টি কিনবেন তাঁদের ফ্রিতে এই অ্য়ান্টি করোনা সন্দেশ দেওয়া হবে। মানুষ যাতে করোনা নিয়ে আরও সচেতন হন তাই এই উদ্য়োগ।”

ছবি :পার্থ পাল

এভাবেই করোনার বিরুদ্ধে লড়াইয়ে নেমেছে এই মিষ্টির দোকান। করোনার বিরুদ্ধে জেহাদ ঘোষণা করে নানা পোষ্টারও সাঁটানো হয়েছে দোকানে। এই দোকানের যাদবপুরের দুটি শাখাতেই মিলবে এই অ্য়ান্টি করোনা সন্দেশ। মিষ্টি খেলেই করোনা হজম।

Get the latest Bengali news and Kolkata news here. You can also read all the Kolkata news by following us on Twitter, Facebook and Telegram.

Web Title: Anti corona sweet in kolkata

Next Story
“নেই শ্রমিক, কমে আসছে মজুত”, লকডাউনে কেমন আছে রাজ্যের সর্ববৃহৎ পাইকারি বাজার?
The moderation of comments is automated and not cleared manually by bengali.indianexpress.com