scorecardresearch

‘জামিন নিয়ে আমরা কেন সিদ্ধান্ত নেব?’ নারদ শুনানিতে মন্তব্য হাইকোর্টের

ভিন রাজ্যে নারদ মামলা স্থানান্তরের আর্জিতে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের নাম জুড়ল সিবিআই। যুক্ত করা হয়েছে রাজ্যের আইন মন্ত্রী মলয় ঘটকের নামও।

Calcutta High Court has issued an interim stay on the transfer of contractual teachers by Bengal Govt
ফাইল ছবি।

হাইকোর্টে শুরু নারদ মামলার শুনানি। সোমবার নিম্ন আদালতের জামিনের বিরোধিতায় করা সিবিআইয়ের দায়ের করা মামলায় বেঞ্চ বলেছে, ‘জামিন হবে কিনা আমরা কেন সিদ্ধান্ত নেব? মানুষের চাপের অভিযোগ ছিল তাই জামিনে স্থগিতাদেশ দিয়েছি। করোনাকালে জেলে রাখার দরকার আছে কি?’ সলিসিটর জেনারেল তুষার মেহেতাকে এই প্রশ্ন করে হাইকোর্ট। এদিন ভারপ্রাপ্ত প্রধান বিচারপতি এবং বিচারপতি অরিজিত বন্দ্যোপাধ্যায়ের বেঞ্চে এই মামলার শুনানি চলছে।

কোর্টের প্রশ্ন, ‘ধৃতেরা তদন্তে অসহযোগিতা করেছে? চার্জশিট জমা পড়ে গিয়েছে। ধৃতদের জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়েছে?’  যদিও সলিসিটর জেনারেলের মন্তব্য, ‘ধৃতেরা কেউ জেলে নেই হাসপাতালে চিকিৎসাধীন। ইতিহাসে এটা অভূতপূর্ব ঘটনা।‘ তিনি বলেন, ‘এই হাইকোর্ট সিবিআইকে নিয়োগ করেছিল। মুখ্যমন্ত্রী নিজে ঢুকে তাঁকে গ্রেফতারের কথা বলছেন। চাপ তৈরি কৌশল নেওয়া হয়েছে।‘ পাল্টা ধৃতদের তরফে আইনজীবী অভিষেক মনু সিংভি সওয়াল করেন, ‘ধৃতদের না জানিয়ে মামলা হয়েছে। তখন ন্যায়-বিচারের কথা মনে ছিল না। কেন্দ্রীয় সংস্থা ছলে-বলে তাদের জেলে ঢোকানোর পরিকল্পনা নিয়েছে।‘

এদিকে, ভিন রাজ্যে নারদ মামলা স্থানান্তরের আর্জিতে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের নাম জুড়ল সিবিআই। যুক্ত করা হয়েছে রাজ্যের আইন মন্ত্রী মলয় ঘটকের নামও। হাইকোর্ট সূত্রে জানা গিয়েছে, ৪০৭ নম্বর ধারায় মামলা অন্য রাজ্যে সরিয়ে নিয়ে যেতে চায় সিবিআই। আদালতে আবেদনে সিবিআই জানিয়েছে, বাংলায় মামলাটিকে প্রভাবিত করা হতে পারে। কেন্দ্রীয় তদন্তকারী সংস্থার নিশানায় রয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী।

গত সোমবার রাজ্যে চার হেভিওয়েট নেতা-মন্ত্রীকে নারদ মামলায় গ্রেফতার করে সিবিআই। সেইসময় আচমকা নিজাম প্যালেসে হাজির হন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। মামলার শুনানির সময় হাজির হয়েছিলেন আইন মন্ত্রী মলয় ঘটক। তাই এই আবেদনে মমতা ও মলয়ের নাম যুক্ত করেছে সিবিআই। একইসঙ্গে সিবিআইয়ের তরফে আবেদনে যুক্ত করা হয়েছে সাংসদ তথা আইনজীবী কল্যাণ বন্দ্যোপাধ্যায়ের নাম। সিবিআইয়ের অভিযোগ, সোমবার ব্যাঙ্কশাল আদালতে গোলমাল করেছিলেন কল্যাণ।

এদিকে, বুধবার নারদ মামলায় কলকাতা হাইকোর্টে বেলা ১২টার সময় হওয়ার কথা থাকলেও শুনানি পিছিয়ে দেওয়া হয়েছে। মামলার শুনানি শুরু হবে দুপুর দুটোয়। মামলা ভিন রাজ্যে সরানোর জন্য সিবিআইয়ের আবেদন এবং ৪ জন নেতা-মন্ত্রীর জামিনে স্থগিতাদেশের পুনর্বিবেচনার আর্জিরও শুনানি হবে এদিন। হাই কোর্টে অভিযুক্তদের হয়ে সওয়াল করবেন অভিষেক মনু সিঙ্ঘভি, সিদ্ধার্থ লুথরা ও কল্যাণ বন্দ্যোপাধ্যায়।

Stay updated with the latest news headlines and all the latest Kolkata news download Indian Express Bengali App.

Web Title: Bail hearing on 4 arrested in connection to narada case is underway state