বড় খবর

বিদ্যুৎমন্ত্রীর সঙ্গে বৈঠকে কাটল না জট, জুনের বিল নিয়ে ফের টুইট অভিষেকের

“এপ্রিল ও মে মাসের বিল নিয়ে এখনই কোনও সিদ্ধান্ত আমাকে জানায়নি। সব ক্যালকুলেট করতে হবে এখনই বলতে পারবে না। কী ভাবে দিতে হবে তা জানাতে পারেনি। পরে জানাবে।”

power minister cesc cover

রাজ্যের বিদ্যুৎমন্ত্রী শোভনদেব চট্টোপাধ্যায়ের সঙ্গে সিইএসসি কতৃপক্ষের বৈঠকেও জুন মাসের বিলের জল কাটল না। তবে মন্ত্রী জানিয়ে দিয়েছেন যাঁরা জুন মাসের বিদ্যুতের বিল দেয়নি তাঁদের লাইন কাটতে পারবে না সিইএসসি। তিনি বলেন, “মোটের ওপর চারটে সিদ্ধান্ত হয়েছে এদিনের বৈঠকে।” এদিকে ওই বৈঠকের পর সাংসদ অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায় ফের টুইটে জানিয়ে দিয়েছেন, “যাঁরা জুন মাসের বিল দিয়েছেন তাঁদের চিন্তা করার দরকার নেই। তাঁরা জুনের বিলের সঙ্গে যুক্ত অতিরিক্ত এপ্রিল ও মে মাসের টাকা ফেরত নিতে পারেন বা পরবর্তী বিলের সঙ্গে অ্যাডজাস্ট করতে পারেন।” যদিও শোভনদেববাবু জানিয়েছেন এসব বিষয় নিয়ে সিইএসসির সঙ্গে তাঁর কোনও কথা হয়নি।

রবিবার রাতে সিইএসসি-র সহসভাপতি (ডিস্ট্রিবিউশন) অভিজিত ঘোষ জানিয়েছিলেন, “গ্রাহকদের সুরাহার জন্য আমাদের চেয়ারম্যান সঞ্জীব গোয়ঙ্কা সিদ্ধান্ত নিয়েছেন জুন মাসের বিলটাই পেমেন্ট করতে হবে। বাকি দুমাসের যে বকেয়া টাকা এর মধ্যে রয়েছে তা পেমেন্ট করতে হবে না।” সাংসদ অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায় টুইটে বলেছেন, “সিইএসসি ঘোষণা করেছে ৩৩ লক্ষ গ্রাহকের মধ্যে ২৫.৫ লক্ষ গ্রাহককে স্বস্তি দিল সিইএসসি। এখন জুন মাসের বিল জমা করতে হবে।” রবিবারের এই ঘোষণার পর বিভ্রান্তিতে পড়ে যান সাধারণ গ্রাহকরা। যাঁরা এর মধ্যে জুনের বিল দিয়েছেন সেক্ষেত্রে কী হবে।

এদিন সিইএসসি কতৃপক্ষের সঙ্গে বৈঠক করেন বিদ্যুৎমন্ত্রী। শোভনদেব চট্টোপাধ্যায়ের ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস বাংলাকে বলেন, মোটের ওপর চারটে সিদ্ধান্ত হয়েছে। কী সেই সিদ্ধান্ত? তিনি বলেন, “প্রথমত জুন মাসের বিল তৈরি করা সহজ নয়। একটা সিস্টেম অনুযায়ী বিল হয়, সেটাকে অফ করে করতে হবে। গত বছরের জুন মাসের বিল দেখে করবে কী না, বা ৬ মাসের গড় বিল থেকে করবে। এসব নিয়ে মতামত জানাতে পারেনি। বলেছে ক্যালকুলেশনের ব্যাপার আছে। দ্বিতীয়ত, এপ্রিল ও মে মাসের বিল নিয়ে এখনই কোনও সিদ্ধান্ত আমাকে জানায়নি। সব ক্যালকুলেট করতে হবে এখনই বলতে পারবে না। কী ভাবে দিতে হবে তা জানাতে পারেনি। পরে জানাবে। তৃতীয়ত, জুন মাসের বিলে স্ল্যাবের বেনিফিট, রিবেট পাবে এবং কোনও পেনাল্টি চার্জ হবে না। চতুর্থত যাঁরা জুন মাসের বিল পেমেন্ট করেনি তাদের লাইন কাটা যাবে না।” তিনি জানিয়ে দেন, “এছাড়া কোনও সিদ্ধান্ত হয়নি। আমাকে সিইএসসি কতৃপক্ষ বলেছে অনেক ক্যালকুলেশন আছে, অনেক সিস্টেম চ্যাঞ্জ করার বিষয় আছে।”

এদিকে এই বৈঠকের পর ফের টুইট করেন সাংসদ অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়। তিনি টুইটে এদিনও লিখেছেন, “সিইএসসির সিদ্ধান্তে ২৫.৫ লক্ষ গ্রাহক উপকৃত হচ্ছেন। জুন মাসের সঙ্গে এপ্রিল ও মে মাসের অতিরিক্ত বিলের টাকা দিতে হবে না। যাঁরা ইতিমধ্যে জুন মাসের বিল জমা দিয়েছেন তাঁদের কোনও চিন্তা নেই। তারা টাকা ফেরত নিতে পারেন বা পরবর্তী বিলের সঙ্গে অ্যাডজাস্ট করতে পারেন।” এ বিষয়ে বিদ্যুৎমন্ত্রীকে জিজ্ঞাসা করা হলে তিনি বলেন, “আমার সঙ্গে এসব বিষয় নিয়ে সিইএসসি-র কোনও কথা হয়নি।”

Web Title: Bengal power minister meeting with cesc kolkata abhishek banerjee

Next Story
ইলেক্ট্রিকের বিল কমছে, শুধু জুনের টাকা দিলেই চলবে, ঘোষণা সিইএসসিরcesc bill
The moderation of comments is automated and not cleared manually by bengali.indianexpress.com