scorecardresearch

বড় খবর

মুচিপাড়ায় ধুন্ধুমার, বাড়ির দরজা ভেঙে বিজেপি নেতা সজল ঘোষকে গ্রেফতার

চরম উত্তেজনা সন্তোষ মিত্র স্কোয়ার এলাকায়।

BJP leader sajal ghosh arrested
ঘটনার দিন সজল ঘোষ।

চরম উত্তেজনা সন্তোষ মিত্র স্কোয়ার এলাকায়। বাড়ির দরজা ভেঙে পুলিশ গ্রেফতার করল বিজেপি নেতা সজল ঘোষকে। প্রশাসন প্রতিহিংসা পরায়ণ বলে অভিযোগ করেছেন ধৃত বিজেপি নেতা। বলেন, “বিনা অপরাধে আমাকে গ্রেফতার করা হল।”

ঘটনার সূত্রপাত সন্তোষ মিত্র স্কোয়ারের কাছে একটি ক্লাব ভাঙচুরকে কেন্দ্র করে। সজল ঘোষ অনুগামীদের অভিযোগ, তৃণমূল আশ্রিত দুষ্কৃতীরা ওই ক্লাবে ভাঙচুর চালিয়েছে। পুলিশকে জানানো সত্ত্বেও কোনও পদক্ষেপ করা হয়নি। অথচ মুচিপাড় থানা থেকে ওই ক্লাবের দূরত্ব ১০ মিটারও নয়।

সজল ঘোষের বাড়ির দরজা ভাঙার সময়কার ছবি।

পাল্টা তৃণমূল কর্মীদের দাবি, ওই ক্লাবের সঙ্গে যুক্ত ব্যক্তিরা মহিলাদের কটূক্তি করেন। বৃহস্পতিবার রাতেই তৃণমূলের যুব নেতা অভিষেক দাসের স্ত্রীকে শ্লীলতাহানি করা হয়েছে বলেও অভিযোগ। অভিযুক্তরা স্থানীয় দোকান ভাঙচুরেও যুক্ত। তাদের বিরুদ্ধে ওঠা যাবতীয় অভিযোগ অস্বীকার করেছে রাজ্যের শাসক দল।

ফলে ওই ক্লাবকে কেন্দ্র করেই যাবতীয় অভিযোগ, পাল্টা অভিযোগ এবং গন্ডগোল। এদিন সকালে তৃণমূল অনুগামীরা বিজেপি নেতা সজল ঘোষের বিরুদ্ধে কটূক্তির অপরাধে এফআইআর দায়ের করেন। এরপরই সজল গোষকে পুলিশ আত্মসমর্পণ করতে বলে। কিন্তু তা করতে অস্বীকার করেন ওই বিজেপি নেতা। এরপরই বিজেপি নেতা সজল ঘোষের বাড়ির দরজা ভেঙে ভিতরে প্রবেশ করে পুলিশ। গ্রেফতার করা হয় সজল ঘোষকে।

মুচিপাড়া থানার সামনে জটলা।

পরিস্থিতি ক্রমশ তপ্ত হচ্ছে। থানার সামনে দাঁড়য়ে রয়েছে উভয় শিবিরের কর্মীরা। দু’তরফেই চলছে স্লোগান।

পুলিশ তৃণমূলের মদতে চলছে বলে দাবি কলকাতা পুরসভার প্রাক্তন মেয়র পারিষদ তথা সজল ঘোষের বাবা প্রদীপ ঘোষের। তাঁর দাবি, ”পুলিশ শাসক দলের হয়ে কাজ করে। কারোর কথা শোনে না। আদালত এর বিহিত করবে। তৃণমূল বাংলা থেকে মুছে যাবে।”

ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস বাংলা এখন টেলিগ্রামে, পড়তে থাকুন

Stay updated with the latest news headlines and all the latest Kolkata news download Indian Express Bengali App.

Web Title: Bjp leader sajal ghosh arrested